Home /News /malda /
Malda: নোংরা জল জমে থাকছে ট্রমা কেয়ার ইউনিট এর সামনে

Malda: নোংরা জল জমে থাকছে ট্রমা কেয়ার ইউনিট এর সামনে

title=

নোংরা জল জমে দূর্গন্ধ ছড়াচ্ছে গোটা এলাকা জুড়ে। বেশ কিছুদিন ধরেই নোংরা জল ডিঙিয়ে যাতাযাত করছেন রোগীর আত্মীয় স্বজন থেকে সাধারণ মানুষ। নোংরা জলের উপর দিয়েই রোগীদের ট্রেচারের করে নিয়ে যেতে হচ্ছে।

  • Share this:

    মালদহ: নোংরা জল জমে দূর্গন্ধ ছড়াচ্ছে গোটা এলাকা জুড়ে। বেশ কিছুদিন ধরেই নোংরা জল ডিঙিয়ে যাতাযাত করছেন রোগীর আত্মীয় স্বজন থেকে সাধারণ মানুষ। নোংরা জলের উপর দিয়েই রোগীদের ট্রেচারের করে নিয়ে যেতে হচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে তৈরি হয়েছে মালদহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ট্রমা ভবনের সদর গেটের সামনে। ম্যানহোলের মুখ উন্মুক্ত হয়ে থাকায় নোংরা জল উপচে পড়ছে। আবার বেশ কিছু পাইপ চুরি গিয়েছে।ফলে নোংরা জল ড্রেনে না পড়ে রাস্তায় ছড়িয়ে থাকছে।হাসপাতালের সামনে জমে থাকা নোংরা জল থেকে রোগ ছড়ানোর আশঙ্কা করছেন রোগীর আত্মীয়রা।সদ্য চালু হয়েছে মালদহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ট্রমা কেয়ার ইউনিট। নিয়মিত রোগী ভর্তি হচ্ছেন এই নতুন ভবনে। মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভবনটির নতুন চালু হলেও এখনো পুরনো হাসপাতাল ভবনের জরুরী বিভাগ রয়েছে। মুহূর্ত রোগীদের প্রথমে জরুরি বিভাগে নিয়ে আসা হয়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসার পর ভর্তি নিয়ে রোগীদের ট্রমা কেয়ার ইউনিটে পাঠানো হয়।

    ট্রমা ইউনিট ভবনে ঢোকার মুখে জল জমে থাকায় রোগীর আত্মীয়দের জলের ওপর দিয়ে ট্রেচার ঠেলে রোগীদের হাসপাতালের ভেতরে ঢোকাতে হচ্ছে। দীর্ঘদিন ধরেই এমন সমস্যার সম্মুখীন হলেও মেডিকেল কর্তৃপক্ষ এখন পর্যন্ত কোন ব্যবস্থার উদ্যোগ নেয়নি এমনই অভিযোগ। আবার ট্রমা কেয়ার ইউনিটে ভর্তি থাকা রোগীদের ট্রলিতে শুনিয়ে নোংরা জলের উপর দিয়ে এক্সরে এমআরআই করতে নিয়ে যাচ্ছে মেডিকেল কলেজের বহির্বিভাগ বিল্ডিংয়ে। নোংরা দুর্গন্ধে ছড়িয়েছে কোটা ট্রমা কেয়ার চত্বর।

    আরও পড়ুনঃ একশো দিনের কাজে দুর্নীতির অভিযোগ! মালদহে বরখাস্ত তিন কর্মী!

    প্রচণ্ড গরমে এই গন্ধে শ্বাস-প্রশ্বাস নিতে কষ্ট হচ্ছে রোগীর আত্মীয়দের। মালদহ মেডিকেল কলেজ সূত্রে জানা গিয়েছে, হাসপাতাল চত্বরে বাড়ছে চুরির ঘটনা। কেউ বা কারা ড্রেনের উপরে থাকা লোহার জাল চুরি করে পালিয়েছে। প্রায় নিয়মিত চুরির ঘটনা ঘটেছে। পাইপ চুরির ফলে ট্রমা কেয়ার সেন্টারের বাথরুমের নোংরা জল ঝরঝর করে পড়ছে রাস্তায় এসে।

    আরও পড়ুনঃ নাকা চেকিং চালিয়ে নিষিদ্ধ ফেনসিডিলসহ গ্রেফতার এক ‌যুবক

    সেই জল পেরিয়েই ট্রমা কেয়ার সেন্টারে যাচ্ছেন চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী থেকে রোগীর আত্মীয়রাও। তবে হাসপাতাল ব্যবহারকারীদের উদাসীনতা আরও খারাপ করেছে পরিস্থিতি। জলের পরিত্যক্ত প্লাস্টিকের বোতল, গুটখার ছেঁড়া প্যাকেট জমে কোথাও আটকে গিয়েছে নোংরা জলের ধারাও। ফলে আরও বাড়ছে সমস্যা। দ্রুত সমস্যার সমাধানের আশ্বাস দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

      Harashit Singha
    First published:

    Tags: Malda, North Bengal

    পরবর্তী খবর