Home /News /malda /
Malda: কলেজ ছাত্রীর মাকে মারধরের অভিযোগ প্রতিবেশী যুবক ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে

Malda: কলেজ ছাত্রীর মাকে মারধরের অভিযোগ প্রতিবেশী যুবক ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে

বিয়ের প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছিলেন কলেজ ছাত্রী। বদলা নিতে কলেজছাত্রীর মাকে মারধোর করার অভিযোগ উঠল অভিযুক্ত যুবক ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে।

  • Share this:

    মালদহ: বিয়ের প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছিলেন কলেজ ছাত্রী। বদলা নিতে কলেজছাত্রীর মাকে মারধোর করার অভিযোগ উঠল অভিযুক্ত যুবক ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে। গুরুতর জখম অবস্থায় ওই কলেজ ছাত্রীর মা বর্তমানে মালদহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে মালদহের ইংরেজবাজার থানার উত্তর রামচন্দ্রপুর গ্রামে। গত এক বছর আগে কলেজছাত্রীকে বিয়ের প্রস্তাব দেয় প্রতিবেশী এক যুবক। তাতে রাজি হয়নি কলেজ ছাত্রী ও তার পরিবার। সেই নিয়ে কলেজ ছাত্রীর পরিবারের উপর চড়াও হয়েছিল অভিযুক্ত যুবক। যদিও সেই সময় স্থানীয়দের তৎপরতায় পরিস্থিতি মিটমাট হয়ে যায়। পুরনো ঘটনার বদলা নিতে ওই কলেজ ছাত্রীর মাকে বেধড়ক মারধোর করার অভিযোগ উঠল অভিযুক্ত যুবক ও তার পরিবারের লোকজনদের বিরুদ্ধে। কলেজ ছাত্রীর পরিবারের পক্ষ থেকে ইংরেজবাজার থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ।স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে উত্তর রামচন্দ্রপুরের বাসিন্দা ওই কলেজছাত্রী মালদহের বেসরকারি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের পড়ুয়া। গত এক বছর আগে ওই এলাকারই রতন কর্মকারের ছেলে ভিকি কর্মকার তাকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়েছিল। এমনকি বিয়ের প্রস্তাব পর্যন্ত দেয়।

    কিন্তু প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছিলেন কলেজ ছাত্রী। এই নিয়ে দুই পরিবারের মধ্যে একটি গন্ডোগোল হয়েছিল। সেই গন্ডোগোলের মীমাংসাও হয়ে যায়। রবিবার সকালে প্রাতঃভ্রমনে বেরিয়েছিলেন কলেজ ছাত্রীর মা। সেই সময় তাকে একা পেয়ে অভিযুক্তরা রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে বেধড়ক মারধর করে বলে অভিযোগ। আহত ওই কলেজ ছাত্রীর মাকে তড়িঘড়ি উদ্ধার করে মালদহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে মালদহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ঘটনার পর আতঙ্কিত ওই কলেজ ছাত্রী ও তার পরিবারের লোকজন। আতঙ্ক প্রকাশ করে কলেজছাত্রী বলেন, গত এক বছর আগে আমাকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়েছিল। রাজি না হওয়ায় আমার পরিবারের সাথে ঝামেলা করে। বদলা নিতেই আমার মায়ের উপর হামলা।

    আরও পড়ুনঃ নোংরা জল জমে থাকছে ট্রমা কেয়ার ইউনিট এর সামনে

    আমি একা রাস্তায় বেরিয়ে কলেজে ও টিউশন পড়তে যায়। যেকোনো সময় আমার ওপর হামলা চালাতে পারে। এই নিয়ে আমি আতঙ্কিত। থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে আমরা। দোষীদের শাস্তি চাইছি। কলেজ ছাত্রীর পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, দীর্ঘদিন ধরেই ওই অভিযুক্ত যুবক কলেজছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করতো। পথে-ঘাটে কলেজছাত্রীকে একা দেখলেই প্রেম প্রস্তাব দেওয়া থেকে শুরু করে বিভিন্ন ভাবে উত্ত্যক্ত করতো।

    আরও পড়ুনঃ একশো দিনের কাজে দুর্নীতির অভিযোগ! মালদহে বরখাস্ত তিন কর্মী!

    এ নিয়ে দুই পরিবারের মধ্যে মাঝে বিবাদ হয়। বহুবার কলেজ ছাত্রীর পরিবারকে অভিযুক্ত যুবককে পর্যন্ত দিয়েছে। কলেজ ছাত্রীর বাবা বলেন, পুরনো বিবাদের জেরে আমার স্ত্রীকে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে বেধড়ক মারধর করে অভিযুক্তরা। আমার মেয়ে একা কলেজে যায়। মেয়ের ওপর এই ধরনের অত্যাচার হতে পারে।যদিও অভিযোগের ভিত্তিতে পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ।

    Harashit Singha
    First published:

    Tags: Malda, North Bengal

    পরবর্তী খবর