হোম /খবর /নদিয়া /
বাড়ি ভাড়া দিতে পারেননি ! গাছ তলায় ঠাঁই হল দুই সন্তানসহ তাঁত শিল্পীর

বাড়ি ভাড়া দিতে পারেননি ! গাছ তলায় ঠাঁই হল দুই সন্তানসহ তাঁত শিল্পীর

লকডাউনে কর্মহীন হয়ে পড়ে বাড়ি ভাড়া দিতে না পেরে তাঁত শ্রমিকের বর্তমান ঠিকানা এখন নবদ্বীপ স্টেশন লাগোয়া ঝোপের মধ্যেকার এক গাছ তলায়।

  • Share this:

#নদিয়া: করোনা মহামারীর ছেড়ে গোটা দেশের বিভিন্ন জায়গায় চলছে লকডাউন। পশ্চিমবঙ্গেও বলবৎ রয়েছে কিছু নিয়ম বিধি। লোকাল ট্রেন সহ অন্যান্য গন পরিবহন ব্যবস্থা রয়েছে বন্ধ। যার জেরে দিন আনা দিন খাওয়া মানুষেরা কার্যত কর্মহীন। দুবেলা দুমুঠো খাবার জোগাড় করতেই হিমশিম খাচ্ছেন অনেকে। এহেন পরিস্থিতিতে দুঃস্থ মানুষদের সহযোগিতায় এগিয়ে আসছেন প্রশাসন থেকে বিভিন্ন সমাজসেবী সংগঠনেরা। কিন্তু এমন পরিস্থিতিতে কিছু অমানবিক দৃশ্য উঠে আসে আমাদের চোখের সামনে। এবার তারই নিদর্শন পাওয়া গেল। বাড়ি ভাড়া না দিতে পারায় বাড়িওয়ালা বের করে দেন দুই সন্তানসহ সস্ত্রীক তাঁত শ্রমিককে।লকডাউনে কর্মহীন হয়ে পড়ে বাড়ি ভাড়া দিতে না পেরে তাঁত শ্রমিকের বর্তমান ঠিকানা এখন নবদ্বীপ স্টেশন লাগোয়া ঝোপের মধ্যেকার এক গাছ তলায়। আর এভাবেই মাস তিনেক ধরে অভাব অনটনে দুই সন্তান ও স্ত্রীকে নিয়ে প্লাস্টিকের তাবু ঘেরা অস্থায়ী ছাউনির নিচে দিন কাটছে বর্ধমান জেলার ধাত্রী গ্রামের তাঁত শ্রমিক তারক বসাকের। লকডাউনের পর থেকেই ঠিকমতো মজুরি পাচ্ছিলেন না তাঁত শ্রমিক তারক বসাক। ভাড়া না দিতে পারায় বাড়িওয়ালা বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিয়েছে। অবশেষে দ্বিতীয় শ্রেণীতে পড়া কন্যা সন্তান এবং আড়াই মাসের পুত্র সন্তান ও স্ত্রীকে নিয়ে নবদ্বীপ ধাম স্টেশন লাগোয়া গাছের নিচে তাঁবু খাটিয়ে ঘর বেধেছে তারক। আগামী দিনে কি হবে তা অজানা। তবুও বাঁচার তাগিদে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে বন জঙ্গল ঘেরা খোলা মাঠের পাশে এক চিলতে জায়গায় নতুন জীবন শুরু করেছে চারজনের পরিবারটি। যেখানে সাপ ব্যাংক এবং শেয়ালের অবাধ আনাগোনা সেখানেই বাঁচার তাগিদে দুই সন্তানকে নিয়ে নতুন করে জীবন যুদ্ধ শুরু করেছে তারক ও তার স্ত্রী প্রিয়া বসাক।

Mainak Debnath

Published by:Piya Banerjee
First published:

Tags: Landlord, Nadia, Worker