Home /News /life-style /
Heart disease explainer: ত্বকে এই উপসর্গগুলো চোখে পড়ছে? সাবধান! হৃদরোগের ইঙ্গিত নয় তো

Heart disease explainer: ত্বকে এই উপসর্গগুলো চোখে পড়ছে? সাবধান! হৃদরোগের ইঙ্গিত নয় তো

ত্বকে এই উপসর্গগুলো চোখে পড়ছে? সাবধান! হৃদরোগের ইঙ্গিত নয় তো

ত্বকে এই উপসর্গগুলো চোখে পড়ছে? সাবধান! হৃদরোগের ইঙ্গিত নয় তো

Heart disease explainer: ত্বকে কোন কোন লক্ষণ দেখলে হৃদরোগের বিষয়ে সতর্ক হতে হবে, জেনে নেওয়া যাক।

  • Share this:

#কলকাতা: হৃদরোগ এমন কোনও একটি রোগ নয় যা শরীরে আচমকা দেখা দেয়। রোগটি বেশ কয়েক মাস কিংবা বছর ধরে একটু একটু করে বাড়তে থাকে। আসলে যখন আমরা হৃদরোগ সম্পর্কে সচেতন হই, ততক্ষণে সেটি সামগ্রিকভাবে শরীরে প্রভাব ফেলে দেয়। তাই হার্টের রোগকে সাইলেন্ট কিলার বলা হয়। তবে বেশ কিছু উপসর্গ রয়েছে যেগুলো সাধারণ বলে মনে হলেও সেগুলোর হার্টের রোগের সঙ্গে সম্পর্ক রয়েছে। সেক্ষেত্রে প্রাথমিকভাবে লক্ষণগুলি চিহ্নিত করতে পারলেও হার্টকে বাঁচানো যায় এবং রোগীর আয়ুও অনেক বছর বাড়ানো যায়। আমাদের ত্বকেও তার প্রভাব পড়ে। অতএব, ত্বকে কোন কোন লক্ষণ দেখলে হৃদরোগের বিষয়ে সতর্ক হতে হবে, জেনে নেওয়া যাক।

নেট প্যাটার্ন

যদি কেউ ত্বকে নীলচে বা বেগুনি রঙের একটি অবিন্যস্ত জালের মতো দাগ খেয়াল করেন তাহলে দেরি না করে ডাক্তারের পরামর্শ করা উচিত। এই ধরনের লক্ষণকে কোনও সংক্রমণ বা ফুসকুড়ির দাগ মনে করে উপেক্ষা না করে অবিলম্বে ব্যবস্থা নেওয়া প্রয়োজন। কারণ অনেক সময়েই ধমনী ব্লক হয়ে গেলে কোলেস্টেরল এমবোলাইজেশন সিন্ড্রোম নামে এক ধরনের শারীরিক জটিলতার কারণে এই জালের মতো দাগ দেখা দেয়।

আরও পড়ুন-উত্তরবঙ্গে ভারী বৃষ্টি অব্যাহত, দক্ষিণবঙ্গে আবহাওয়ার কী পূর্বাভাস, জেনে নিন

ত্বকে হলুদ দাগ

অনেকের ত্বকের ঠিক নিচে হলুদ বা কমলা রঙের কোনও কিছু জমা হতে থাকে। বেশিরভাগ সময়ে এগুলো চোখের কোণে এবং পায়ের নিচের দিকের পিছনের অংশে দেখা যায়। তবে কোনও ব্যথা হয় না বলে এগুলো অনেকেরই নজরে আসে না। কিন্তু এক্ষেত্রে অবশ্যই কোলেস্টেরলের মাত্রা পরীক্ষা করা এবং সেটি নিয়ন্ত্রণে রাখা উচিত।

ওয়াক্স বাম্প

বাইরে থেকে মোমের মতো দেখতে ভারী ফ্যাট জমা হলে তা কোলেস্টেরলের মাত্রা বেশি হওয়ার ইঙ্গিত দেয়। প্রাথমিক পর্যায়ে এটি র‍্যাশের মতো দেখতে লাগে। বিশেষজ্ঞদের মতে, অতিরিক্ত মাত্রায় ট্রাইগ্লিসারাইডের কারণে ত্বকের নিচে এই ধরনের লক্ষণ দেখা যায়।

গোলাকার আকৃতির নখ

এই ধরনের গোলাকৃতি নখ ডাক্তারি পরিভাষায় যেটি মেডিক্যালি ক্লাবিং নেল নামে পরিচিত। নখের আকৃতিতে এই ধরনের পরিবর্তন উচ্চ মাত্রার কোলেস্টেরলের সঙ্গে সম্পর্কিত। পাশাপাশি নখে এই ধরনের অস্বাভাবিকতা দেখা দিলে ফুসফুসের রোগ এবং হার্টের জটিলতাও দেখা যায়।

আরও পড়ুন- রাশিফল ২৭ জুন; দেখে নিন কেমন যাবে আজকের দিন

নখে লাল রঙের রেখা

নখে লাল কিংবা বেগুনি রঙের রেখা তৈরি হলে সেটি জানান দেয় যে শরীরের ভিতরে কোনও কিছু অস্বাভাবিকতা তৈরি হচ্ছে। আসলে নখ হৃদরোগ-সহ শরীরের বিভিন্ন রোগের সূচক হতে পারে। তাই নখের কোনও অস্বাভাবিকতা লক্ষ্য করলে অবহেলা না করে দ্রুত ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়া উচিত।

লাম্পে ব্যথা হলে

বেশ কয়েকদিন ধরে হাতের কিংবা পায়ের আঙুলে কোনও কারণ ছাড়াই কোনও মাংসপিন্ডে ব্যথা হলে সেটি কোলেস্টেরলের মাত্রা বেড়ে যাওয়ার ইঙ্গিত হতে পারে। যদিও কিছু কিছু লাম্প নিজে থেকেই চলে যায়, তবে এই ধরনের উপসর্গেও গাফিলতি করা উচিত নয়।

Published by:Siddhartha Sarkar
First published:

Tags: Heart Disease

পরবর্তী খবর