পার্লার যেতে পারছেন না! বাড়িতে বসেই রূপচর্চা! ঝকঝকে ত্বক পেতে পারেন সহজেই

বাড়ি বসেই করা যেতে পারে রূপচর্চা! বাড়িকেই করে তোলা যেতে পারে অস্থায়ী বিউটি পার্লার।

বাড়ি বসেই করা যেতে পারে রূপচর্চা! বাড়িকেই করে তোলা যেতে পারে অস্থায়ী বিউটি পার্লার।

  • Share this:

#কলকাতা:

গত বছর করোনা সংক্রমণ মাথাচাড়া দিতেই তড়িঘড়ি লকডাউন করা হয়। তার পর পরিস্থিতি একটু স্বাভাবিক হলেও ফের চলতি বছরে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ-এর কারণে লকডাউন করা হয়। এর পর থেকে বেশির ভাগ মানুষ ঘরবন্দি। বন্ধ রয়েছে সেলুন, স্পা এবং বিউটি পার্লার-সহ বেশ কয়েকটি ব্যবসা। আনলকের প্রক্রিয়া চালু হলেও নতুন করে সংক্রমণের ভয়ে কেউই সেলুন, স্পা এবং বিউটি পার্লারমুখী হচ্ছেন না। রূপচর্চা নিয়ে অনেকেই চিন্তিত।

এত চিন্তা করে লাভ নেই, যতই লকডাউন হোক, বাড়ি বসেই করা যেতে পারে রূপচর্চা! বাড়িকেই করে তোলা যেতে পারে অস্থায়ী বিউটি পার্লার। খুব সহজ কতগুলি স্টেপ অনুসরণ করতে হবে। নিচে দেওয়া হল সেগুলো বিশদে।

১. প্রথমেই বলে রাখা দরকার, ভালো ঘুম এবং খাওয়াদাওয়া সময়ে করতে পারলেই ত্বককে সুস্থ রাখা যায়। এটাই রূপচর্চার প্রাথমিক ধাপ। এছাড়াও শরীরচর্চার তুলনা হয় না এক্ষেত্রে। নিয়ম করে এই ধাপগুলি অনুসরণ করলেই সমস্যার সমাধান হতে পারে।

২. প্রতি দিন ঠিকঠাক একটি স্কিনকেয়ার রুটিন ফলো করতে হবে। ত্বক শুষ্ক হওয়া থেকে এড়াতে প্রতি দিন মুখ ধোয়ার পরে ময়শ্চারাইজার লাগিয়ে নিতে হবে। এর ফলে ত্বক শুষ্ক হবে না এবং ব্রনর সমস্যাও থাকবে না। প্রত্যেকের ত্বক অনুযায়ী একটি স্ক্রাব ব্যবহার করা ভালো। এতে ত্বকে ডেড সেল জমতে পারে না।

৩. মাসে অন্তত একবার ফেসিয়াল করা জরুরি। বিউটি পার্লারে যেতে ইচ্ছে না হলে বাড়িতে বসে অনলাইনে নিজের পছন্দের কিছু ফেস প্যাক অর্ডার করা যেতে পারে। সেগুলি চলে আসার পর নিয়ম করে ব্যবহার করলেই হাতেনাতে ফল মিলতে পারে।

৪. বাড়িতে তৈরি জাঙ্ক ফুড খেলেও চলবে না। এই সব খাওয়ার খেতে ইচ্ছে করলে, সেই সময় টাটাকা ফল খেতে হবে। প্রতি দিন খাওয়ার চার্টে অন্তত এক ধরনের শাক রাখতে হবে। সারা দিন পর্যাপ্ত পরিমাণে জল খেতে ভুললে চলবে না। জল হল, ত্বক পরিচর্যার গুরুত্বপূর্ণ উপাদান।

৫. ত্বক ভালো থাকার আরও একটি উপায় হল মেডিটেশন। কোনও ভাবেই স্ট্রেস নেওয়া চলবে না। বাড়িতে বসে কাজের সময় একটু বিরতি নিয়ে মন শান্ত করতে হবে। এই সহজ টিপসগুলি অনুসরণ করতে পারলেই সৌন্দর্য অনায়াসে ধরা দেবে।

First published: