একরত্তি তিসির বীজ কিন্তু সুপারফুড, হার্ট ভালো রাখা থেকে সৌন্দর্য বাড়াতে গুরুত্ব অপরিসীম

একরত্তি তিসির বীজ কিন্তু সুপারফুড, হার্ট ভালো রাখা থেকে সৌন্দর্য বাড়াতে গুরুত্ব অপরিসীম

quick look at how the superfood flaxseeds are beneficial for our body

প্রতি দিন একটু করে তিসির বীজ খেলে কতটা উপকার পাওয়া যায়, সেটা এক ঝলকে দেখে নেওয়া যাক!

  • Share this:

তিসির বীজ বা ফ্ল্যাক্সসিড (Flax Seed) হল এক প্রকার ফাংশনাল ফুড ৷ কারণ এর পুষ্টিগুণের কোনও তুলনা হয় না। দেখতে খয়েরি আর খেতে মুচমুচে এই বীজ পাওয়া যায় গাছ থেকে। এতে আছে লিগন্যানস, ফাইবার, প্রোটিন এবং আলফা লিনোলেনিক অ্যাসিড বা ওমেগা থ্রির মতো পলিআন স্যাচুরেটেড ফ্যাটি অ্যাসিড।

কিন্তু কেন এটাকে সুপারফুড বলা হয়? কারণ এতে অন্যান্য খাবারের চেয়ে ৮০০ গুণ বেশি লিগন্যানস থাকে। এই বীজ থেকে সর্বাধিক উপকার পেতে হলে ফ্ল্যাক্সসিড তেল ব্যবহার করুন। এই বীজ ভিজিয়ে রেখে খেলে বা গুঁড়ো করে খেলে এটি শরীরে তাড়াতাড়ি মিশে যায়। সকালে ব্রেকফাস্টে সিরিয়ালের সঙ্গে বা দই দিয়ে খেলেও ভালো হয়। প্রতি দিন একটু করে তিসির বীজ খেলে কতটা উপকার পাওয়া যায়, সেটা এক ঝলকে দেখে নেওয়া যাক!

হজম ক্ষমতা বাড়ায় ও কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে: তিসির বীজ ডায়েটরি ফাইবার সমৃদ্ধ। এটিতে দ্রবণীয় এবং অদ্রাব্য দুই ধরনের ফাইবার রয়েছে। দ্রবণীয় ফাইবার কোষ্ঠ নরম করে, অন্ত্রের ট্র্যাক্টগুলি থেকে সহজেই টক্সিনগুলি বের করে আনতে সহায়তা করে। এছাড়াও, অদ্রাব্য ফাইবারের উপস্থিতি অন্ত্রের মাধ্যমে বর্জ্য অপসারণ এবং অন্ত্রের নিয়মিত কাজকর্ম এগিয়ে নিয়ে যেতে সাহায্য করে।

ডায়বেটিস নিয়ন্ত্রণ করে: ইনসুলিনের ক্রিয়াকলাপ নিয়ন্ত্রণ করার ক্ষেত্রে তিসির বীজ খুব কার্যকরী। ফ্ল্যাকসিডে অদ্রবণীয় ফাইবারগুলি লিগন্যান দিয়ে তৈরি যা রক্তে শর্করার মাত্রা হ্রাস করে।

হার্টের স্বাস্থ্য ভালো রাখে: এই বীজ অ্যামিনো অ্যাসিড, আর্জিনাইন এবং গ্লুটামাইন দ্বারা সমৃদ্ধ। দু'টো উপাদানই হার্ট ভালো রাখে। এগুলিতে কোলেস্টেরলের সঙ্গে একই রকম কাঠামোযুক্ত ফাইটোস্টেরলও রয়েছে, তবে তারা অন্ত্রের কোলেস্টেরলের শোষণ রোধ করতে সহায়তা করে। পর্যাপ্ত তিসি বীজ রক্তচাপ কমায়, খারাপ কোলেস্টেরল কমায়, ধমনীতে কোনও বস্তু জমা হওয়া রোধ করে। ফলে পরোক্ষ ভাবে এই বীজ স্ট্রোক বা হৃদরোগ প্রতিরোধও করে।

ক্যানসারের ঝুঁকি কম করে: এতে লিগন্যান থাকায় এটি কোলোন, প্রসটেট, স্তনের ক্যানসার রোধ করে। এর অ্যান্টি অ্যাঞ্জিওজেনিক উপাদান শরীরে টিউমার হতে দেয় না। শক্তিশালী উদ্ভিদ যৌগিক লিগান্যান দেহে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ইস্ট্রোজেন সরবরাহ করে এবং এটি প্রয়োজনীয়-পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ করে।

স্নায়ুতন্ত্রের জন্য ভালো: অ্যান্টি-অক্সিড্যান্টগুলির উপস্থিতির কারণে, কোষের ক্ষতি করে এমন অক্সিডেটিভ চাপ আসতে দেরি হবে। অতএব, সময়ের আগে হওয়া নিউরোডিজেনারেটিভ রোগগুলি (যেমন অ্যালজাইমার্স এবং পার্কিনসন) প্রতিরোধ করে এই বীজ।

চুল ও ত্বক সুন্দর রাখে: এছাড়াও তিসির বীজের জেল ত্বক এবং চুলের জন্য একটি দুর্দান্ত ময়েশ্চারাইজার। এগুলি খাওয়া এবং এর তেল বা জেল প্রয়োগ করা চুল এবং ত্বকের পক্ষে ভালো। এটি ফ্লেকি বা খসখসে এবং রুক্ষ ত্বকের উপর খুব ভালো কাজ করে। অর্থাৎ নিয়মিত তিসি খেলে বা তেল লাগালে ত্বক পেলব হয়। শুষ্ক স্কাল্প আর্দ্র করে এই বীজ।

First published:
0

লেটেস্ট খবর