Home /News /life-style /
Hair Care Tips: মাথায় তেল না দিলেই চুল খারাপ হবে? প্রথাগত ধারণা থেকে বেরিয়ে এভাবেও যত্ন নিতে পারেন চুলের

Hair Care Tips: মাথায় তেল না দিলেই চুল খারাপ হবে? প্রথাগত ধারণা থেকে বেরিয়ে এভাবেও যত্ন নিতে পারেন চুলের

Hare Care Solutions: যারা সোরিয়াসিসের মতো চুলের চরম সমস্যায় ভুগছেন চুলের তেল দেওয়া তাদের একেবারেই উচিত না।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: চুলের সমস্যায় ভুগলেই রে রে করে তেড়ে আসবেন মায়েরা! তেল না দেওয়া থেকে শুরু করে চুলে রঙ করা বা হিট দেওয়া সব কিছুই কাঠগড়ায় উঠবে স্বাভাবিক নিয়মেই। চুলে তেল দেওয়া চুলের আর্দ্রতা বজায় রাখার প্রাথমিক উপায় ঠিকই কিন্তু কিছু চুলের তেল আবার মাথার ত্বকের ছিদ্রগুলিকে বন্ধ করে দেয় যাতে চুল পড়ার (Hair Care Tips) সমস্যা বাড়ে।

    আরও পড়ুন- যৌনতায় আনন্দের কথা বেশি করে সামনে আনলে তবেই সফল হবে যৌনস্বাস্থ্য শিক্ষা: গবেষণা

    শীতকালে বিশেষ করে চুলের স্বাস্থ্যের (Hair Care Tips) ক্ষতি হয়। চুলের সমস্ত আর্দ্রতা চলে গিয়ে তা রুক্ষ, নিষ্প্রাণ হয়ে যায়। এই ধরনের পরিস্থিতিতে চুলের তেলই একমাত্র সমাধান মনে হতে পারে কিন্তু যারা সোরিয়াসিসের মতো চুলের চরম সমস্যায় ভুগছেন চুলের তেল দেওয়া তাদের একেবারেই উচিত না। চুলের তেল ব্যবহার না করেও কীভাবে চুলের স্বাস্থ্য (Hair Care Tips) বজায় রাখতে পারেন রইল সামান্য কিছু টিপস।

    চুলে আর্দ্রতা বজায় রাখার ঘরোয়া প্রতিকার

    আমাদের রান্নাঘরে এমন অনেক উপাদান রয়েছে যা চুলের তেলের জায়গায় ব্যবহার করতে পারেন। ডিম, মধু, দই, কলা, মেথি এবং কারি পাতার মতো উপাদানগুলি সঠিক এবং নিয়মিতভাবে ব্যবহার করলে চুলের উপকারে (Hair Care Tips) আসবে। এগুলি কেবল চুলে প্রয়োজনীয় পরিমাণে আর্দ্রতাই বজায় রাখে না, চুলের অনেক সমস্যারও মোকাবিলা করে।

    চুলের জন্য নরম পণ্য ব্যবহার করুন

    চুলের জন্য তৈরি হওয়া অধিকাংশ পণ্যই রাসায়নিকে ঠাসা। এতে চুলের ধীরে ধীরে মৃত্যু ঘটে। চুলের জন্য সবসময় এমন শ্যাম্পু বা কন্ডিশনার বেছে নিন যা অ্যালকোহল, প্যারাবেন, সিলিকন এবং সালফার মুক্ত।

    তাপ থেকে বাঁচুন

    বিভিন্ন হেয়ার স্টাইলিং টুলস ব্যবহার করে নিজে স্টাইলিশ থাকেন ঠিকই তবে এই সব যন্ত্রপাতি চুলের ডগা ফাটিয়ে দেয়, চুল শুষ্ক করে এবং চুল পড়েও যায়। স্ট্রেটনার, ড্রায়ার এবং কার্লারের মতো গরম সরঞ্জামগুলি ব্যবহার করার আগে সবসময় চুলে তাপ প্রতিরক্ষামূলক স্প্রে ব্যবহার করুন।

    আরও পড়ুন- পুরুষদের সোনার গয়না পরাকে 'ট্রেন্ড' করেছিলেন বলিউডের গোল্ডম্যান বাপ্পি লাহিড়ি!

    স্বাস্থ্যকর ডায়েট মেনে চলুন

    উপরে উল্লিখিত বিষয়গুলি মাথায় রাখলে চুল বাইরে থেকে আর্দ্র থাকবে ঠিকই তবে চুলকে ভিতর থেকেও শক্তিশালী করতে হবে। স্বাস্থ্যকর ডায়েট অবশ্যই মেনে চলুন। চুলের জন্য খাদ্যের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হল আয়রন এবং প্রোটিন। রোজের খাদ্যতালিকায় সবুজ শাক, মাছ, কুমড়োর বীজ, মটরশুঁটি, ছোলা, সয়াবিন এবং সিরিয়ালস অন্তর্ভুক্ত করুন এবং প্রোটিনের জন্য, পনির, দুধ, সয়া, মসুর ডাল, মটর, কুইনো এবং দই খান।

    সিল্কের কাপড়ের বালিশ আর বড় দাঁতের চিরুণি ব্যবহার করুন

    সুতির বালিশের কভারগুলি রুক্ষ টেক্সচারের কারণে চুলের ক্ষতি করে। সুতির কাপড় চুলের চিকিত্সায় যে পণ্যগুলি ব্যবহার করছেন তাও মাথা থেকে শুষে নিতে পারে। সবসময় সিল্ক বা স্যাটিনের বালিশের কভার ব্যবহার করুন। আর বড় দাঁতের চিরুনি ব্যবহার করলে চুল পড়াও কম হবে।

    Published by:Madhurima Dutta
    First published:

    Tags: Common haircare mistakes, Hair growth tips

    পরবর্তী খবর