• Home
  • »
  • News
  • »
  • life-style
  • »
  • বিয়ের মরসুম চলছে, এই ৭ জিনিসের ব্যবহারেই কনের সাজে আসবে সাবেকিয়ানা, লাস্ট মিনিট টিপস...

বিয়ের মরসুম চলছে, এই ৭ জিনিসের ব্যবহারেই কনের সাজে আসবে সাবেকিয়ানা, লাস্ট মিনিট টিপস...

সংগৃহীত ছবি

সংগৃহীত ছবি

প্রিয়তমের চোখে মুগ্ধতা দেখতে আর প্রিয়জনদের প্রশংসা কুড়োতে কনে সেজে উঠুক সাবেকি বঙ্গবধূর সাজে। সঙ্গে থাক এই ৭ টিপস!

  • Share this:

#কলকাতা: বিয়ে বাঙালি আচার মেনে হোক বা না হোক, এই দিনের সাজ অন্য দিনের চেয়ে আলাদা হতেই হয়! জীবনের অন্যতম স্মরণীয় এক ঘটনা, একে তো আর হেলাফেলা করা যায় না! তাই প্রিয়তমের চোখে মুগ্ধতা দেখতে আর প্রিয়জনদের প্রশংসা কুড়োতে কনে সেজে উঠুক সাবেকি বঙ্গবধূর সাজে। সঙ্গে থাক এই ৭ টিপস!

*মুকুট: বাঙালি লুকে নিজেকে সাজাতে গেলে প্রথমেই যেটা জোগাড় করতে হবে, তা হল মুকুট। সাদা শোলার মধ্যে লাল বা গোল্ডেন রঙ দিয়ে কলকা করা এই মুকুট মাথায় দিলেই অদ্ভুত সুন্দর লাগে। অনেকের মতে, শুধু দেখতে সুন্দর হওয়াই নয়, বাংলার সংস্কৃতিও মিশে রয়েছে মুকুটের ডিজাইন আর ব্যবহারে।

*আলতা: আজও বাংলার গ্রামে গ্রামে বা একটু বয়স্ক মহিলাদের মধ্যে আলতা পরার চল রয়েছে। পায়ে এবং হাতে- দুই জায়গাতেই আলতা পরে থাকেন অনেকে। বিশেষ করে পুজো বা কোনও পার্বণ থাকলে এই রীতি মানেন গ্রামবাংলার একাংশ। তবে, বিয়েতেও আলতা পরার চল রয়েছে। হালফিলের আধুনিক স্টাইলে আলতার চল না থাকলেও বাঙালি ব্রাইডাল লুকে কিন্তু এর ব্যবহার মাস্ট।

*সোনার গয়না: ভারতবর্ষের প্রত্যেকটি রাজ্যেরই গয়নার ডিজাইন ভিন্ন। যে গয়না উত্তর ভারতে প্রসিদ্ধ, তা দক্ষিণে নয়। বা যা পূর্বে প্রসিদ্ধ, তা পশ্চিমে নয়। যোগাযোগের জেরে আজ সব একই হলেও ট্র্যাডিশনাল দিক থেকে পার্থক্য থেকেই যায়। বাংলার গয়নার নকশারও কিছু বৈশিষ্ট্য রয়েছে। যা দেখলেই বোঝা যাবে। তা ছাড়াও বাঙালি কনেরা মূলত যে গয়না পরেন তার মধ্যে কানবালা, ঝুমকো, পাশা, সীতাহার, মানতাসা, লহরী রয়েছে। তাই বাঙালি কনের সাজে এই সব গয়নার অন্তত একটি থাকলে ভালো লাগবে।

*শাঁখা-পলা: আগেকার দিনে শাঁখা-পলা, শঙ্খ ও কোরাল বা পলা থেকে তৈরি হলেও বর্তমানে বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই নকল উপাদান পাওয়া যায়। তবে, আসল-নকল যাই হোক, হাতে শাঁখা-পলা দেখলে বুঝতে হবে বাঙালি। তাই বাঙালি কনের হাতে এই দুই জিনিস থাকবে না, তা হতে পারে না। বিয়ের চিহ্ন এই শাঁখা-পলা ছাড়া বাঙালি ব্রাইডাল লুক অসম্পূর্ণ।

*লোহা: শাঁখা-পলার সঙ্গেই বিয়ের অন্যতম চিহ্ন বলা হয় লোহাকে। কখনও এমনি লোহার একটা চুড়ি বা সোনা দিয়ে বাঁধানো চুড়ি পরা হয়ে থাকে।

*টায়রা-টিকলি: অন্যান্য অলঙ্কারের সঙ্গে টায়রা-টিকলিও পরা হয়। যা কনেকে আরও সুন্দর করে তোলে।

*বেনারসি: এই সব কিছু দিয়ে সাজিয়ে যদি বেনারসির বদলে অন্য শাড়ি পরানো হয়, তা হলে বাঙালি কনে লাগা স্বাভাবিক নয়। কারণ এই লুকের সব চেয়ে বড় উপাদানই হল বেনারসি। লাল টুকটুকে বেনারসি ছাড়া কনের সাজ ফিকে থেকে যায়। তাই সব কিছুর সঙ্গে সঙ্গে বেনারসি কিন্তু মাস্ট হ্যাভ!

Published by:Shubhagata Dey
First published: