Home /News /life-style /
NetraSuraksha: স্বাস্থ্য সম্পর্কে সচেতন থাকুন, ডায়াবেটিস রোগীদের এই উপসর্গগুলি রয়েছে কি না দেখুন

NetraSuraksha: স্বাস্থ্য সম্পর্কে সচেতন থাকুন, ডায়াবেটিস রোগীদের এই উপসর্গগুলি রয়েছে কি না দেখুন

NetraSuraksha: বাড়ির লোকের স্বাস্থ্য সম্পর্কে সচেতন থাকুন! ডায়াবেটিস রোগীদের এই উপসর্গগুলি রয়েছে কি না দেখুন।

  • Share this:

    NetraSuraksha সেল্ফ চেক করিয়ে নিন এখানে

    স্বাস্থ্য রক্ষার জন্য সঠিক পদক্ষেপ গ্রহণের বিষয়ে আমরা অনেকেই বিশেষ সচেতন নই। আমরা জানি যে, আমাদের শরীরচর্চা করা উচিতস ভিটামিন খাওয়া উচিত, সুগার-ভর্তি স্ন্যাক্স খাওয়া উচিত নয় এবং শুধুমাত্র খিদে পেলেই খাওয়া উচিত... কিন্তু আমরা এগুলি মেনে চলি না। কারণ এত বিধিনিষেধ মেনে চলা কঠিন। আমাদের দৈনন্দিন জীবনে মানসিক চাপের পরিমাণ অনেকটাই বেশি: আমাদের বয়স, আমাদের সামাজিক বা অর্থনৈতিক অবস্থান, আমরা বিবাহিত বা অবিবাহিত যা-ই হই না কেন। তবে কোনও প্রিয়জনের স্বাস্থ্য সম্পর্কে আমরা অনেক বেশি সচেতন থাকি।

    আমাদের প্রত্যেকেরই বয়স বাড়ছে এবং এই কথা আমাদের বাবা-মা, দাদু-দিদিমা, শ্বশুর-শাশুড়ি, এবং সেই সমস্ত আত্মীয়-স্বজনদের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য, যাঁদের আমরা জীবনের অবিচ্ছেদ্য অংশ বলে মনে করি। তাই তাঁদের সুস্বাস্থ্যের দিকে নজর রাখা অবশ্যই আমাদের কর্তব্য। এই কর্তব্য আমরা কীভাবে পালন করব? এর চাবিকাঠি একটাই- তথ্য, তথ্য এবং শুধুমাত্র তথ্য। আমরা যত বেশি জানব, আমরা যত বেশি দেখব, তত দ্রুত আমরা প্রতিকূল পরিস্থিতির মোকাবিলা করার জন্য নিজেকে প্রস্তুত করতে পারব। কারণ সময় অত্যন্ত দামি।

    বয়স্ক পরিজনদের দেখাশোনা করার ক্ষেত্রে একটি রোগ সম্পর্কে সবচেয়ে বেশি সচেতন থাকা প্রয়োজন, সেটি হল ডায়াবেটিস।প্রতি বছর ডায়াবেটিস এবং এর সাথে সম্পর্কিত বিভিন্ন কারণে গোটা বিশ্বে কয়েক মিলিয়ন মানুষ প্রাণ হারান: ইন্টারন্যাশনাল ডায়াবেটিস ফেডারেশান অ্যাটলাস 2019 অনুসারে, এই সংখ্যা 2019 সালে ছিল 4.2 মিলিয়ন। ডায়াবেটিস একক ভাবে, বা হাইপারটেনশনের সাথে কম্বিনেশন হিসেবে, সারা বিশ্বে 80%ডায়াবেটিক রোগীর লাস্ট-স্টেজ কিডনির রোগের কারণে পরিণত হয়েছে। ডায়াবেটিস এবং কিডনির ক্রনিক রোগ, উভয়ের সাথে কার্ডিওভাস্কুলার রোগের গভীর সংযোগ রয়েছে1। গোটা বিশ্বের প্রায় 40 থেকে 60 মিলিয়ন ডায়াবেটিস রোগীর ক্ষেত্রে ডায়াবেটিক ফুট এবং পায়ের নানা রকম জটিলতা প্রাণঘাতী রূপ ধারণ করে 1।ক্রনিক আলসার এবং অঙ্গচ্ছেদের মতো পরিণতির ফলে স্বাভাবিক জীবনযাপন অসম্ভব হয়ে উঠতে পারে এবং এমনকী কম বয়সে মৃত্যুর আশঙ্কাও বৃদ্ধি পায় 1।

    যদি আপনার পরিবারে বা পরিচিত মহলে কেউ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হন, তাহলে এখনই এই ধরনের জটিলতা সম্পর্কে পড়াশোনা এবং জ্ঞান অর্জন শুরু করুন। কারণ ডায়াবেটিস সম্পর্কিত এই জটিলতাগুলি দ্রুত ধরা পড়লে এবং চিকিৎসা শুরু হলে সুস্থ হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

    ডায়াবেটিসের কারণে হওয়া জটিলতাগুলির মধ্যে অপেক্ষাকৃত অজানা, কিন্তু সম্ভবত সবচেয়ে গুরুতর সমস্যা হল দৃষ্টিশক্তি হারানো। ডায়াবেটিস সম্পর্কিত চোখের জটিলতাগুলি হল মূলত ডায়াবেটিক রেটিনোপ্যাথি, ডায়াবেটিক ম্যাকুলার এডিমা, ছানি বা ক্যাটারাক্ট এবং গ্লুকোমা, তার পাশাপাশি রয়েছে ডবল ভিশন এবং ফোকাস না করতে পারার সমস্যাও1। এগুলির মধ্যে, ডায়াবেটিক রেটিনোপ্যাথি-কে কর্মক্ষম জনগণের মধ্যে দৃষ্টিশক্তি হারানোর অন্যতম প্রধান কারণ বলে গণ্য করা হয় এবং তাই এই রোগের অত্যন্ত ক্ষতিকারক পারিবারিক ও আর্থ-সামাজিক প্রভাব রয়েছে বলা যেতে পারে1। এছাড়াও এই সমস্যা সহজে বোঝা যায় না, কারণ প্রাথমিক পর্যায়ে এর তেমন কোনও উপসর্গ নেই। ফলে এই রোগ-নির্ণয় করা অত্যন্ত কঠিন। অর্থাৎ যত ক্ষণে উপসর্গ ধরা পড়বে তত ক্ষণে দৃষ্টিশক্তি অনেকটাই ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে যাবে, এবং তা পুনরুদ্ধার করা অসম্ভব।

    এখানে এমন কয়েকটি উপসর্গের তালিকা দেওয়া হল, যেগুলি সম্পর্কে আপনার অবশ্যই জেনে রাখা দরকার।

    পড়তে অসুবিধা

    এই উপসর্গ চিহ্নিত করা একটু কঠিন, কারণ আমরা সকলেই জানি যে বয়স বাড়ার সাথে সাথে দৃষ্টিশক্তি ক্ষীণ হতে শুরু করে। আমরা যখন কোনও কিছু পড়ি, তখন আমরা চোখের ম্যাকুলা নামের একটি অংশ ব্যবহার করি- যা সূক্ষ্ম জিনিস দেখতে সাহায্য করে2।আমরা যখন গাড়ি চালাই কিংবা কারও মুখের দিকে তাকাই, তখনও চোখের এই অংশটিই ব্যবহার করি। ডায়াবেটিসের কারণে ম্যাকুলা নামক এই অংশটি ফুলে যেতে পারে- এই রোগের নাম হল ডায়াবেটিক ম্যাকুলার এডিমা, এবং এটি ডায়াবেটিক রেটিনোপ্যাথি রোগসমষ্টির একটি অংশ3।

    যদি আপনার পড়তে অসুবিধা হয় এবং চশমা বদলানোর পরেও এই সমস্যার হাত থেকে মুক্তি না পান, তাহলে একদমই অবহেলা করবেন না। রেটিনা সোসাইটি অফ ইন্ডিয়ার যুগ্ম সচিব ডঃ মণীষা আগরওয়াল মনে করেন, এটিই হল ডায়াবেটিক রেটিনোপ্যাথি রোগের একদম প্রাথমিক পর্যায়ের উপসর্গ। এবং অবহেলা করা হলে, এই উপসর্গ ক্রমশ জটিল রূপ ধারণ করবে এবং শীঘ্রই চোখের সামনে কালো মেঘ বা লাল ছোপ ঘুরে বেরাচ্ছে বলে মনে হবে, বা কিছু ক্ষেত্রে চোখে রক্তক্ষরণের কারণে আচমকা ব্ল্যাকআউট হয়ে যেতে পারে।

    এই ধরনের সমস্যা হচ্ছে বুঝতে পারলে দ্রুত চোখের ডাক্তারের কাছে যান, এবং দেখার ক্ষেত্রে অন্য কোনও সমস্যা হচ্ছে কিনা, তা বোঝার চেষ্টা করুন। কারণ চোখের মতো সংবেদনশীল অঙ্গের ক্ষেত্রে, প্রতিটি বিবরণ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

    আবছা দৃষ্টিশক্তি

    বেশ কয়েক ধরনের সমস্যা হলে দৃষ্টিশক্তি আবছা হয়ে গিয়েছে বলে মনে হতে পারে- অনেকে আগের মতো উজ্জ্বল রঙ দেখতে পান না, আবার অনেকে একই রঙের একাধিক জিনিস পাশাপাশি রাখলে সেগুলি আলাদা করতে পারেন না (যেমন, সাদা দেওয়ালের সামনে সাদা ল্যাম্প রাখা থাকলে তা পৃথক ভাবে বুঝতে না পারা), অনেকের আবার রাতে দেখতে অসুবিধা হয় এবং অধিকাংশের ক্ষেত্রেই যে সাধারণ সমস্যা দেখা যায় তা হল, দৃষ্টি আবছা বা ধোঁয়াটে হয়ে যাওয়া, যেন চোখের সামনে কোনও পর্দার আস্তরণ ভেদ করে তাঁদের দেখতে হচ্ছে। এবং, বাস্তব ক্ষেত্রেও চোখে ঠিক এই সমস্যাটাই হয়4।

    ছানি পড়ার ফলে চোখের লেন্স ক্ষতিগ্রস্ত হয় এবং লেন্সের উপরেই অধঃক্ষেপ জমা হওয়ার ফলে একটি আস্তরণ পড়ে যায়। ডায়াবেটিসে আক্রান্ত রোগীদের ক্ষেত্রে লেন্স অস্বচ্ছ হয়ে যাওয়ার বা ছানি পড়ার সমস্যা অনেকটাই বেশি। ডায়াবেটিস না থাকলে যে বয়সে চোখে ছানি পড়ে, ডায়াবেটিস থাকলে তার চেয়ে অনেক কম বয়সে এই সমস্যা দেখা দিতে পারে।গবেষকরা মনে করেন, রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা বেশি থাকার কারণে লেন্সের স্বচ্ছ অংশেঅধঃক্ষেপ জমা হতে থাকে5।

    চোখের উপরে চাপ অনুভব করা

    অনেক সময়ে মনে হতে পারে যেন চোখ ফুলে গিয়েছে– অনেক ক্ষেত্রে রোগীর চোখ ফুলে গিয়েছে মনে হওয়ার কিছু দিনের মধ্যে বিষয়টি বাইরে থেকে বোঝা যেতে পারে। চোখের একাধিক রোগ এবং সমস্যার কারণে চোখ ফুলে যেতে পারে, তবে কোনও ডায়াবেটিস রোগীর যদি এই সমস্যা হয় তাহলে গ্লুকোমা হওয়ার আশঙ্কা থেকে যায়6।

    ডায়াবেটিসের কারণে গ্লুকোমার মতো রোগ হওয়ার আশঙ্কা অন্তত দুই গুণ বৃদ্ধি পায়3,6। এই রোগের চিকিৎসা দ্রুত শুরু না হলে, দৃষ্টিশক্তি হারানো এবং অন্ধত্বের মতো ভয়াবহ পরিণতি হতে পারে। বয়স বাড়ার সাথে সাথে এই ঝুঁকি বৃদ্ধি পায়6।

    চোখের চারপাশে প্রেশার বেড়ে গেলে গ্লুকোমা হয়। প্রেশার বৃদ্ধির কারণে রেটিনা এবং অপ্টিক নার্ভে রক্ত সরবরাহকারী রক্তজালিকাগুলি ফুটো হয়ে যায়। রেটিনা এবং নার্ভ বা স্নায়ু ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার ফলে ধীরে ধীরে দৃষ্টিশক্তি হারাতে শুরু করে6।

    চোখের সামনে গাঢ় রঙের কিছু ভেসে বেড়াচ্ছে মনে হওয়া

    আমরা সকলেই বিভিন্ন সময়ে চোখের সামনে কিছু ভেসে বেড়াতে দেখি- বিশেষ করে সলিড রঙের কোনও দেওয়াল, বা আকাশের দিকে বেশি ক্ষণ তাকিয়ে থাকলে মনে হয় যেন চোখের সামনে উজ্জ্বল রঙের, স্বচ্ছ কোনও বলয় তৈরি হয়েছে। এগুলি খুব স্বাভাবিক। কিন্তু যদি মনে হয় চোখের সামনে ভারী কিছু ভেসে বেড়াচ্ছে, বা যেগুলি ভাসমান অবস্থায় দেখা যাচ্ছে সেগুলি যদি গাঢ় রঙের হয়, তাহলে বিষয়টি অবহেলা করবেন না7।

    অধিকাংশ ক্ষেত্রেই এই উপসর্গ এত নগণ্য হয় যে কেউ বিশেষ লক্ষ্য করেন না। তাই কারও পড়তে সমস্যা হচ্ছে, বা গাড়ি চালাতে কিংবা মুখ স্পষ্ট দেখতে অসুবিধা হচ্ছে বলে যদি শুনতে পান, তাহলে এই বিষয়ে জিজ্ঞাসা করুন। ডায়াবেটিক রেটিনোপ্যাথির পরবর্তী পর্যায়ে, চোখের মধ্যে থাকা ভিট্রিয়াস ফ্লুইডের মধ্যে রক্তজালিকা থেকে রক্ত ক্ষরিত হতে পারে, এর ফলে চোখের সামনে গাঢ় রঙের কিছু ভেসে বেড়াচ্ছে বা গাঢ় কোনও আস্তরণ পড়েছে বলে মনে হয়8।কিন্তু সমস্যা হল, এই ধরনের উপসর্গগুলি নিজে থেকেই সেরে যায়8, তাই কেউ এগুলি নিয়ে চিন্তা করেন না। তাই আপনি যাঁদের যত্ন নিচ্ছেন, তাঁরা এই রকম কোনও সমস্যা হচ্ছে বলে আপনাকে জানাবেন, সেই সম্ভাবনা খুব কম। সবচেয়ে ভালো উপায় হল, এই বিষয়ে ডায়াবেটিস রোগীকে আগাম জানিয়ে রাখা, যাতে এমন কোনও সমস্যা লক্ষ্য করলে তাঁরা যেন আপনাকে সাথে সাথে জানান!

    ডায়াবেটিস রোগীদের ক্ষেত্রে চোখের যে সমস্ত জটিলতা দেখা দেয়, তাদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিপূর্ণ হল ডায়াবেটিক রেটিনোপ্যাথি1। অধিকাংশ দেশে এই রোগকে কর্মক্ষম জনগণের মধ্যে দৃষ্টিশক্তি হারানোর অন্যতম প্রধান কারণ বলে গণ্য করা হয় এবং তাই এর পারিবারিক ও আর্থ-সামাজিক প্রভাব অত্যন্ত ক্ষতিকারক বলা যেতে পারে। তবে এই সমস্যা প্রতিরোধ করা সম্ভব এবং এর চিকিৎসা করারও সুযোগ রয়েছে1।

    সম্পূর্ণ প্রতিরোধযোগ্য হওয়া সত্ত্বেও আমাদের দেশের বহু মানুষ ডায়াবেটিক রেটিনোপ্যাথির কারণে দৃষ্টিশক্তি হারাচ্ছেন, এটি অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক বিষয়। যুক্তরাজ্যের মতো দেশে, নিয়মিত চোখের স্ক্রিনিং করানোর নিয়ম চালু করা হয়েছে। এর ফলস্বরূপ, কর্মক্ষম জনগণের মধ্যে ডায়াবেটিক রেটিনোপ্যাথির কারণে অন্ধ হয়ে যাওয়ার ঘটনা প্রায় বন্ধ হয়ে গিয়েছে। এমনকী ওয়েলসেও মাত্র 8 বছরের মধ্যে এই রোগের কারণে দৃষ্টিশক্তির সমস্যা বা অন্ধ হয়ে যাওয়ার ঘটনা প্রায় 40-50% হ্রাস পেয়েছে1।

    এর দ্বারা কী প্রমাণিত হয়? আপনার চোখের ডাক্তারের কাছে গিয়ে (চশমার দোকানে নয়!) একটি সাধারণ, রুটিন এবং যন্ত্রণাবিহীন চোখের পরীক্ষা করানোর মাধ্যমে একদম প্রাথমিক পর্যায়েই ডায়াবেটিক রেটিনোপ্যাথি-কে থামিয়ে দেওয়া সম্ভব! যেহেতু একদম প্রাথমিক পর্যায়ে এই রোগের তেমন কোনও উপসর্গ বোঝা যায় না, তাই একদম প্রাথমিক পর্যায়ে এই রোগ ধরা পড়ার অর্থ হল, তখনও চোখেএর বিশেষ প্রভাব পড়েনি। এবং এরপরে রোগী যদি চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে চলেন, তাহলে এই রোগ আর বাড়তে পারবে না, অর্থাৎ আপনার দৃষ্টিশক্তি সুরক্ষিত থাকবে।

    এই কারণেই, Novartis-এর সহযোগিতায় Network18 চালু করেছে 'Netra Suraksha' - India Against Diabetes initiative নামের একটি উদ্যোগ: যাতে ডায়াবেটিক রেটিনোপ্যাথি হতে পারে এমন রোগীরা সচেতন হতে পারেন। এই উদ্যোগের মাধ্যমে চিকিৎসা জগতের প্রতিভাবান কয়েক জন প্রতিনিধি এবং নীতি নির্ণায়কদের পাশাপাশি বিদ্বজ্জনদের একত্রিত করা হয়েছে, যাতে তাঁরা সকলে মিলে আলোচনা মাধ্যমে ভারতে এই সমস্যার সমাধানসূত্র বের করতে পারেন। এছাড়াও এই উদ্যোগেরঅন্যতম লক্ষ্য হল ডায়াবেটিক রেটিনোপ্যাথি সম্পর্কে গোলটেবিল বৈঠক, ব্যাখ্যামূলক ভিডিও এবং প্রতিবেদনের মাধ্যমেসচেতনতা ছড়িয়ে দেওয়া।News18.com–এর Netra Suraksha initiative পেজে গিয়ে এগুলি দেখে নিতে পারেন।

    ভবিষ্যতে আমাদের কারও খেয়াল রাখতে হতে পারে, কিন্তু আমাদের নিজেদের স্বাস্থ্যের দিকে নজর রাখাজরুরি। তাই আমরা পরামর্শ দিচ্ছি, সকলে অনলাইনে আমাদের তৈরি করা এই Diabetic Retinopathy Self Check Up গ্রহণ করুন এবং আপনার নিজের ও পরিজনদের কতটা ঝুঁকি রয়েছে তা জেনে নিন। এরপরে আমরা পরামর্শ দেব, প্রতি বছর রুটিনমাফিক এই চোখের পরীক্ষা করান এবং এটি একটি অভ্যাসে পরিণত করুন। এই রুটিনে চোখের পরীক্ষার পাশাপাশি আরও কিছু জিনিস অন্তর্ভুক্ত করুন, যেমন বার্ষিক রক্তপরীক্ষা এবং অন্যান্য সচেতনতামূলক স্ক্রিনিং। কারণ এই সমস্যাগুলি যত দ্রুত ধরা পড়ে তত মঙ্গল, তাই না?

    আর দেরী করবেন না।

    References:

    1. IDF Atlas, International Diabetes Federation, 9th edition, 2019

    2. https://socaleye.com/understanding-the-eye/ 18 Dec, 2021

    3. https://www.niddk.nih.gov/health-information/diabetes/overview/preventing-problems/diabetic-eye-disease 18 Dec, 2021

    4. https://www.mayoclinic.org/diseases-conditions/cataracts/symptoms-causes/syc-20353790 18 Dec 2021

    5. https://www.ncbi.nlm.nih.gov/pmc/articles/PMC3589218/ 18 Dec, 2021

    6. https://my.clevelandclinic.org/health/diseases/4212-glaucoma 19 Dec, 2021

    7. https://www.medicalnewstoday.com/articles/325781#causes 29 Dec, 2021

    8. https://www.mayoclinic.org/diseases-conditions/diabetic-retinopathy/symptoms-causes/syc-20371611 18 Dec, 2021

    Published by:Ananya Chakraborty
    First published:

    Tags: Diabetes, NetraSuraksha

    পরবর্তী খবর