ইংল্যান্ডের রেস্তোরাঁয় বাঙালি খাবার ! Rowley Manor Hotel-এ প্রাচ্যের সঙ্গে কলকাতার ছোঁয়া

ইল্যান্ডের মাটিতে বাঙালি হাতে সেজে উঠেছে Rowley Manor Hotel...

ইল্যান্ডের মাটিতে বাঙালি হাতে সেজে উঠেছে Rowley Manor Hotel...

  • Share this:

    #ইংল্যান্ড:  ভারত ছেড়ে অনেকেই অন্য দেশে চলে যান। কর্ম সূত্রে বা কাজের জন্য। কিন্তু খুব কম মানুষ আছেন যারা অন্য দেশেও গিয়ে নিজের দেশের কাজকে ধরে রাখতে পারেন। ভালোবাসতে পারেন। ইল্যান্ডের মাটিতে বাঙালি হাতে সেজে উঠছে Rowley Manor Hotel। সাজিয়ে তুলছেন রোমিত মিত্র এবং তাঁর স্ত্রী দেবজানি। ইংল্যান্ডের মানুষের কাছে পৌঁছে যাচ্ছে বাঙালি খাবারও। তবে প্রধাণত এখানে প্রাচ্যের খাবার পাওয়া যায়। বাঙালি হলেও এই হোটেলটিকে তাঁরা সাজিয়েছেন ইংল্যান্ডের ছোঁয়া রেখেই।

    ঝাড়খন্ডের যশিডিতে রিসর্টের ব্যবসা করতেন রোমিত। সেখান থেকেই ভেবে ফেলেন একটু অন্য রকম কিছু করতে হবে। সেই আশা নিয়েই পাড়ি জমালেন সুদূর ইংল্যান্ড। সেখানে গিয়ে এই রেস্তোরাঁ বানিয়ে ফেললেন রোমিত। ইংল্যান্ডের মানুষের বিয়ে থেকে জন্মদিন সব কিছুতেই সেজে ওঠে বাঙালির হাতে গড়া রেস্তোরাঁ। একেবারে পাঁচতারা হোটেলের মতো সাজিয়েছেন এই রেস্তোরাঁ। ছাপ রয়েছে আভিজাত্যের। এখানে বিয়ের অনুষ্ঠানও হয়।

    রোমিত জানান, তাঁর দীর্ঘ ১৫ বছরের অভিজ্ঞতা রয়েছে ওবেরয়-তে কাজ করার। সেই সব অভিজ্ঞতাকে সঙ্গী করেই বুকে সাহস নিয়ে বিদেশে ছুটেছেন স্ত্রীকে নিয়ে। সেখানেই সাজিয়েছেন এই রেস্তোরাঁ। তিনি জানান, "আমাদের হসপিটালিটি এবং আন্তরিক ব্যবহারে খুশি হন এখানকার মানুষজন।" এমনকি ভারতীয়রাও এখানে ঢু মারতে ভোলেন না। বিদেশি খাবার -দাবারের সঙ্গে রয়েছে বাঙালি খাবারও। চাইলেই প্লেটে সাজিয়ে দেন বাঙালি রান্না। কলকাতার স্বাদ তুলে ধরেছেন ইংল্যান্ডের মাটিতে। তবে সাধারণত এখানে প্রাচ্যের খাবারই পাওয়া যায়। কিন্তু আপনি চাইলেই পেতে পারেন অন্য খাবারও।  এই রেস্তোরাঁ বা হোটেলের প্রশংসায় মেতেছেন অনেকেই। এখানকার পরিবেশ এতটাই সুন্দর যে একবার গেলেই বার বার যেতে মন চাইবে। কলকাতা থেকে দূরে থেকেও এভাবে সব কিছুকে সাজিয়ে তুলেছেন মিত্র দম্পতি।

    Published by:Piya Banerjee
    First published: