Home /News /kolkata /
Fake Note: পুরভোট দরজায়, বাইপাসের ধার থেকে যা উদ্ধার হল, চক্ষু চড়কগাছ পুলিশেরও!

Fake Note: পুরভোট দরজায়, বাইপাসের ধার থেকে যা উদ্ধার হল, চক্ষু চড়কগাছ পুলিশেরও!

Fake Note

Fake Note

কথার অসঙ্গতি থাকায় ব্যাগে তল্লাশি চালানো হয়। উদ্ধার হয় জাল নোট (Fake Note)।

  • Share this:

    #কলকাতা: ভোটের আগে লক্ষ লক্ষ টাকার জাল নোট উদ্ধার কলকাতার গুরুত্বপূর্ণ স্থানে। জাল নোট (Fake Note) দুই পাচারকারিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ভারতীয় সেনার গোয়েন্দা বিভাগ ও কলকাতা পুলিশের স্পেশ্যাল টাস্ক ফোর্সের (STF) যৌথ অভিযানে জালে ধরা পড়ে দুই পাচারকারি। পুলিশ সূত্রে খবর, ধৃতদের কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে ৫ লক্ষ ৬৪ হাজার ৫০০ টাকার জাল নোট (Fake Note)। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে, তদন্তকারীরা মঙ্গলবার রাতে প্রগতি ময়দান থানা এলাকার ক্যাপ্টেন ভেড়ির কাছে ঘাঁটি গেরে ছিলেন।

    আরও পড়ুন: কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা কি অফলাইনেই বাধ্যতামূলক? UGC যা জানাল...

    দুই সন্দেহভাজন যুবককে সেখানে দেখেই তাদের ওপর নজর রাখতে শুরু করেন তদন্তকারীরা। ওই এলাকাতেই এদিক ওদিন ঘোরাফেরা করছিল যুবকরা। এরপরই তাদেরকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করতে থাকেন তদন্তকারীরা। কথার অসঙ্গতি থাকায় ব্যাগে তল্লাশি চালানো হয়। উদ্ধার হয় জাল নোট (Fake Note)।

    আরও পড়ুন: বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এগিয়ে ঘাসফুল, কটাক্ষ বাম-বিজেপির

    পুলিশ সূত্রে খবর, ধৃতদের নাম মহসিন খান ওরফে বাবু ও তনয় দাস। ধৃতরা দুজনেই উত্তর ২৪ পরগনার বাসিন্দা। ধৃতরা কোথা থেকে জাল নোট সংগ্রহ করেছিল, কোথায় তাদের এই নোট পৌঁছে দেওয়ার কথা ছিল, তা জানার চেষ্টা করছেন তদন্তকারীরা। ধৃতদের সঙ্গে আন্তঃরাজ্য জাল নোট পাচারচক্রের কোনও যোগ রয়েছে কিনা, তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ধৃতদের নিজেদের হেফাজতে নিয়ে জেরা করার আবেদন জানাবেন তদন্তকারীরা।

    বিধাননগরে পুরসভা ভোটের আগে এভাবে এত টাকার জাল নোট উদ্ধারে চিন্তায় পুলিশ-প্রশাসন। এর সঙ্গে আরও কারা জড়িত ধৃতদের জেরা করে জানতে চান তদন্তকারীরা।

    Published by:Raima Chakraborty
    First published:

    Tags: Fake Note, West Bengal Municipal Election 2022

    পরবর্তী খবর