Home /News /kolkata /
Asansol Ballygunge Bye Election: পিছিয়ে যাবে আসানসোল- বালিগঞ্জের উপনির্বাচন? নির্বাচন কমিশনকে চিঠি দিল রাজ্য

Asansol Ballygunge Bye Election: পিছিয়ে যাবে আসানসোল- বালিগঞ্জের উপনির্বাচন? নির্বাচন কমিশনকে চিঠি দিল রাজ্য

নির্বাচন কমিশনকে চিঠি দিল নবান্ন৷

নির্বাচন কমিশনকে চিঠি দিল নবান্ন৷

আগামী ১২ এপ্রিল আসানসোল এবং বালিগঞ্জে উপনির্বাচনের (Ballygunge Bye Election) দিন চূড়ান্ত করেছে নির্বাচন কমিশন৷

  • Share this:

#কলকাতা: ১২ এপ্রিলের উপনির্বাচন (Asansol Ballygunge Bye Election) পিছিয়ে দেওয়া যায় কি না, তা বিবেচনা করে দেখতে নির্বাচন কমিশনকে (Election Commission) চিঠি দিল রাজ্য সরকার৷ এ দিনই রাজ্যের তরফে নির্বাচন কমিশনকে এই চিঠি দেওয়া হয়েছে বলে সিইও দফতর সূত্রে খবর৷

আগামী ১২ এপ্রিল আসানসোল এবং বালিগঞ্জে উপনির্বাচনের (Ballygunge Bye Election) দিন চূড়ান্ত করেছে নির্বাচন কমিশন৷ কিন্তু ওই সময়ে রাজ্যে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা রয়েছে৷ উচ্চ মাধ্যমিকের মধ্যেই উপনির্বাচন হলে সমস্যা হবে কি না, তা নিয়ে এ দিনই মুখ্যসচিবের সঙ্গে শিক্ষা দফতরের সচিবের বৈঠক হয়৷ তার পরই রাজ্য সরকারের তরফে এই চিঠি দেওয়া হয়৷ পাশাপাশি ওই সময় আইএসসি, আইসিএসসি এবং সিবিএসই বোর্ডেরও পরীক্ষা রয়েছে৷

আরও পড়ুন: আসানসোলে বড় চমক শত্রুঘ্ন সিনহার! প্রচারে তুলবেন ঝড়, সঙ্গী কে জানেন?

সিইও দফতর সূত্রে রাজ্য সরকারের চিঠির প্রাপ্তি স্বীকার করা হয়েছে৷ রাজ্যের প্রস্তাব দিল্লিতে নির্বাচন কমিশনের সদর দফতরে পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে৷

১২ এপ্রিল আসানসোল লোকসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচন৷ এই কেন্দ্রে শত্রুঘ্ন সিনহাকে প্রার্থী করেছে তৃণমূল কংগ্রেস৷ অন্যদিকে বালিগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচনও ১২ এপ্রিল হওয়ার কথা৷ ওই কেন্দ্রে বাবুল সুপ্রিয়কে প্রার্থী করেছে শাসক দল৷ অন্যান্য দলগুলি এখনও নিজেদের প্রার্থী ঘোষণা করেনি৷

আরও পড়ুন: বড় সুখবর! ১০০ দিনের কাজ নিয়ে কেন্দ্রের রিপোর্টে এগিয়ে রাজ্য

আগামী ২ এপ্রিল থেকে রাজ্যে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা শুরু হচ্ছে৷ রাজ্য সরকার মনে করছে, উচ্চমাধ্যমিকের মধ্যে উপনির্বাচন হলে যে এলাকাগুলিতে ভোট রয়েছে সেখানে স্কুল পাওয়ার ক্ষেত্রে সমস্যা হবে৷ সূত্রের খবর, চিঠিতে বলা হয়েছে, গোটা এপ্রিল মাস জুড়েই রাজ্যে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা রয়েছে৷ পাশাপাশি ওই সময় সিবিএসই, আইসিএসসি এবং আইএসসি বোর্ডের পরীক্ষা রয়েছে৷ পাশাপাশি, ভোট প্রচারের জন্য পরীক্ষার্থীরাও সমস্যার মধ্যে পড়তে হতে পারে৷

জানা গিয়েছে, রাজ্যের তরফে চিঠিতে ভোটের জন্য নির্দিষ্ট করে কোনও তারিখের কথা উল্লেখ করা হয়নি৷ শুধু এপ্রিল মাস জুড়ে পরীক্ষার কথা উল্লেখ করে ভোট পিছিয়ে দেওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে৷

Published by:Debamoy Ghosh
First published:

Tags: Asansol, Ballygunge, Election Commission

পরবর্তী খবর