হোম /খবর /কলকাতা /
সন্ধে সাতটা বাজলেই বন্ধ লোকাল,অফিসে ৫০শতাংশ কর্মী,কাল থেকে কড়া বিধিনিষেধ রাজ্যে

West Bengal New Covid 19 Guidelines: সাতটা বাজলেই বন্ধ লোকাল, অফিসে ৫০ শতাংশ কর্মী, কাল থেকে কড়া বিধিনিষেধ রাজ্যে

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

এর পাশাপাশি কাল থেকেই সমস্ত সরকারি, বেসরকারি অফিসে ফের ঘুরিয়ে ফিরিয়ে পঞ্চাশ শতাংশ কর্মী নিয়ে কাজ চালানোর নির্দেশ দিয়েছে রাজ্য সরকার (West Bengal New Covid Guidelines)৷

  • Last Updated :
  • Share this:

#কলকাতা: আগামিকাল কাল থেকেই রাজ্যে ফের চালু হচ্ছে কড়া বিধিনিষেধ (West Bengal New Covid 19 Guidelines)৷ এ দিন রাজ্যের মুখ্যসচিব এইচ কে দ্বিবেদী সাংবাদিক বৈঠক করে জানিয়েছেন. আগামিকাল সোমবার থেকে রাজ্যের সমস্ত লোকাল ট্রেন (Local Trains) পঞ্চাশ শতাংশ যাত্রী নিয়ে চলাচল করবে৷ তবে সন্ধে সাতটার পর  লোকাল ট্রেন চলাচল করবে না৷ মেট্রোও চলবে পঞ্চাশ শতাংশ যাত্রী নিয়ে৷ তবে তা স্বাভাবিক সূচি অনুযায়ীই চলবে৷ তবে দূরপাল্লার ট্রেন পরিষেবা আপাতত স্বাভাবিকই থাকছে৷

এর পাশাপাশি কাল থেকেই সমস্ত সরকারি, বেসরকারি অফিসে ফের ঘুরিয়ে ফিরিয়ে পঞ্চাশ শতাংশ কর্মী নিয়ে কাজ চালানোর নির্দেশ দিয়েছে রাজ্য সরকার৷ কাল থেকেই রাজ্যের স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় সহ সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে৷ পাশাপাশি বন্ধ হচ্ছে সুইমিং পুল, স্পা, সেলুন, জিম, বিউটি পার্লার, ওয়েলনেস সেন্টার৷ লন্ডন সহ ইউকে থেকে কলকাতায় আসা সমস্ত বিমানও আগামিকাল  থেকে বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে৷

আরও পড়ুন: আগামিকাল থেকে রাজ্যে ফের বন্ধ স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়! খোলা যাবে না জিম, সেলুন, পার্ক, ঘোষণা নবান্নে...

রাজ্যের মুখ্যসচিব জানিয়েছেন, আগামিকাল থেকেই সমস্ত হোটেল, রেস্তোরাঁ, পানশালা, শপিং মল পঞ্চাশ দর্শক এবং ধারণ ক্ষমতা নিয়ে চালু রাখা যাবে৷ সকাল দশটা থেকে রাত দশটা পর্যন্ত খুলে রাখা যাবে শপিং মল৷ তবে রাত দশটা বাজলেই এই হোটেল, রেস্তোরাঁ, পানশালা  বন্ধ করে দিতে হবে৷ রাত দশটা থেকে সকাল পাঁচটা পর্যন্ত নাইট কারফিউ নিয়েও কঠোর অবস্থান নিচ্ছে রাজ্য প্রশাসন৷ গণপরিবহণ এবং জরুরি পরিষেবা ছাড়া অন্যান্য যানবাহনের চলাচলের ক্ষেত্রে কড়া অবস্থান নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন মুখ্যসচিব৷

সমস্ত বাজারের ক্ষেত্রেও কঠোর ভাবে করোনা বিধি মানতে হবে৷ ক্রেতা বিক্রেতারা মাস্ক না পরলে বা শারীরিক দূরত্ব না মানলেই কড়া ব্যবস্থা নেবে পুলিশ, প্রশাসন৷ তবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চালু থাকবে হোম ডেলিভারি৷

আরও পড়ুন: থিকথিকে ভিড়ে বাড়ছে করোনার বিপদ, দিঘায় কড়া দাওয়াই প্রশাসনের

বিয়ে বাড়ি বা যে কোনও সামাজিক অনুষ্ঠানে সর্বাধিক পঞ্চাশ শতাংশ জনসমাগম করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে৷ মিটিং বা কনফারেন্সে প্রেক্ষাগৃহের ধারণ ক্ষমতার পঞ্চাশ শতাংশ মানুষ অথবা সর্বাধিক দুশো জন জন উপস্থিত থাকতে পারবেন৷

মুখ্যসচিব জানিয়েছেন, আপাতত দুয়ারে সরকার কর্মসূচি এক মাস পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে৷ পরিস্থিতি অনুযায়ী আগামী ১ ফেব্রুয়ারি এ নিয়ে সিদ্ধান্ত নেবে রাজ্য প্রশাসন৷

Published by:Debamoy Ghosh
First published: