• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • West Bengal Coronavirus Update: দেশে ভয় ধরাচ্ছে ওমিক্রন, রাজ্যের করোনা আপডেট কী?

West Bengal Coronavirus Update: দেশে ভয় ধরাচ্ছে ওমিক্রন, রাজ্যের করোনা আপডেট কী?

West Bengal Coronavirus Update

West Bengal Coronavirus Update

আরও কিছুটা স্বস্তি দিয়ে আজ রাজ্যে করোনা সংক্রমণের হারও বেশ কিছুটা কমল (West Bengal Coronavirus Update)।

  • Share this:

#কলকাতা: গতকালই দেশে করোনা এর নতুন রূপ ওমিক্রণ এর সন্ধান পাওয়া যাওয়ায় উদ্বেগ ছড়িয়ে পড়ে সর্বত্র। সম্প্রতি ‘ওমিক্রন’ আতঙ্কে নির্দিষ্ট কয়েকটি দেশ থেকে আসা যাত্রীদের করোনা পরীক্ষার ক্ষেত্রে অনেক জোর দেওয়া হচ্ছিল কেন্দ্রের তরফে। জেনোম সিকোয়েন্সিং-এর ক্ষেত্রেও বেশি করে গুরুত্ব দেওয়া হয়। আর সেই জেনোম সিকোয়েন্সিং-এ দু জনের শরীরে ধরা পড়ে ‘ওমিক্রন’ ভ্যারিয়েন্ট। কর্ণাটকে দু জনের শরীরে এই ভ্যারিয়েন্টের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে। আগেই এই অমিক্রন নিয়ে সতর্ক করেছিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বা হু। দক্ষিণ আফ্রিকায় চিহ্নিত করোনাভাইরাসের নতুন রূপ ' ওমিক্রণ ' নিয়ে সব রাজ্যকে আবারো নতুন করে সতর্ক করেছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। গ্রেট ব্রিটেন, বাংলাদেশ, সিঙ্গাপুর,ইজরায়েল-সহ ১২ টি দেশের বিমান যাত্রীদের ক্ষেত্রে বিশেষ সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। তবে এরই মধ্যে গতকালের থেকে শুক্রবার রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা আরও বেশ কিছুটা কমল (West Bengal Coronavirus Update)। আরও কিছুটা স্বস্তি দিয়ে আজ রাজ্যে করোনা সংক্রমণের হারও বেশ কিছুটা কমল (West Bengal Coronavirus Update)।

গত পরপর কয়েক দিন ধরেই রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা কমতে থাকছিল। গতকাল করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৬৫৭ জন, সেটা আজ আরও কিছুটা কমে হয়েছে ৬০৮ জন। করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা গতকাল ১২ জন ছিল,সেটা আজ বেড়ে ১৩ জন হয়েছে। আজ করোনা আক্রান্ত হওয়ার চেয়ে করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর সুস্থ হওয়ার সংখ্যা বেশি হল। আজ করোনা  আক্রান্ত হওয়ার পর সুস্থ হয়েছে ৬১৫ জন। বর্তমানে রাজ্যের সক্রিয় করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা আট হাজারের নিচে নেমে ৭ হাজার ৬৭০ জন। তবে উদ্বেগ বাড়িয়ে গোটা রাজ্যে গত ২৪ ঘন্টায় মাত্র ৪০ হাজার ২৪২ জনের করোনা পরীক্ষা হয়েছে, যার মধ্যে ৬০৮ জন করোনা পজিটিভ।

আরও পড়ুন: ভারতে ঢুকে পড়ল করোনার ভয়ঙ্কর ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট, আক্রান্ত ২

তবে করোনা সংক্রমণের হার নিয়ে  আশঙ্কায় ছিল চিকিৎসকরা। সেটা বেশ কিছুটা স্বস্তি দিয়ে রাজ্যে করোনা পজিটিভিটি রেট গতকালের 1.76%% থেকে অনেকটাই কমে 1.51% হলো। যদিও রাজ্যে চিকিৎসক মহলের একাংশ বলছেন,যেখানে বারবার করে বলা হচ্ছে, আরও বেশি করে করোনা পরীক্ষা করার কথা, সেখানে রাজ্যে  এখন এতটাই কম করোনা পরীক্ষা করা হচ্ছে এবং তার ফলে আক্রান্তের সংখ্যা অনেক কম থাকছে,এটা কিন্তু যথেষ্ট চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়াচ্ছে।

রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা অনেকটা কমলেও রীতিমত নিয়ম করে করোনা আক্রান্তের ক্ষেত্রে কলকাতার রেকর্ডকে অন্য কোন জেলা টপকাতে পারছে না। কলকাতায় করোনা আক্রান্তের ক্ষেত্রে প্রতিদিনই সবথেকে বেশি থাকছে। গত ২৪ ঘন্টায় কলকাতায় গতকালের থেকে বেড়ে ১৫৮ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছে, আর মৃত্যু হয়েছে ৩ জনের। অন্যদিকে এরপরই উত্তর ২৪ পরগনা জেলায় গতকালের থেকে বেশ কিছুটা বেড়ে ১২৭ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছে এবং করোনায় মৃত্যু হয়েছে এক ধাক্কায় ৫জনের। নতুন করে কলকাতার পাশের হাওড়া জেলায় আক্রান্ত কিছুটা কমে হয়েছে ৩৭ জন। দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলাও পিছিয়ে নেই, সেখানে করোনা আক্রান্ত হয়েছে ৪৯ জন, এদিন মৃত্যু বেড়ে হয়েছে ৪ জনের। অন্যদিকে হুগলি  জেলাতেও করোনা আক্রান্ত কমে হয়েছে ৪৫ জন। নদিয়া জেলায় আজ আবার আগের দিনের থেকে সামান্য বেড়ে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ২১ জন। তবে নতুন করে আবার আতঙ্ক বাড়িয়ে গত পরশু হঠাৎ করেই বীরভূম জেলায় করোনা আক্রান্ত এক ধাক্কায় বেড়ে ৩৬ জন হয়েছিল,সেটা আজ বেশ কিছুটা কমে ১১ জন হয়েছে। তবে পশ্চিম বর্ধমান জেলায় করোনা আক্রান্ত বেড়ে হয়েছে ২৬ জন। আশার কথা,গোটা দক্ষিণবঙ্গের মধ্যে কলকাতা, উত্তর ২৪ পরগনা এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনা বাদ দিয়ে আর কোন জেলায় এদিন করোনা আক্রান্ত হয়ে কারো মৃত্যু হয়নি।

আরও পড়ুন: সারদা-নারদা-কয়লা তদন্ত, লম্বা তালিকা নিয়ে মোদির কাছে রাজ্য বিজেপি

তবে দক্ষিণবঙ্গের থেকে উত্তরবঙ্গের জেলাগুলির পরিস্থিতি অনেকটাই ভালো। গতকাল উত্তর বঙ্গের জেলাগুলিতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা এক ধাক্কায় অনেকটা বাড়লেও আজ আবার বেশ খানিকটা নিয়ন্ত্রণ হয়েছে।আজ উত্তরবঙ্গের মধ্যে দার্জিলিং জেলায় সর্বাধিক ২৩ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছে,মৃত্যু হয়েছে ১ জনের। সেখানে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায় গতকাল করোনা আক্রান্ত যেখানে ২৬ জন হয়েছিল, সেখানে আজ আক্রান্তের সংখ্যা কমে ১৪ জন হয়েছে। জলপাইগুড়ি জেলাতেও করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৪ জন। অন্যদিকে মালদা জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা আজ ১২ জন হয়েছে। এরপরই  কোচবিহারে আক্রান্ত হয়েছে ১১ জন।

আজ রাজ্যের মধ্যে সবথেকে কম করোনা আক্রান্ত হয়েছে উত্তরবঙ্গের কালিম্পং জেলায়।সেখানে আজ মাত্র একজন করোনা আক্রান্ত হয়েছে। এরপর আলিপুরদুয়ার জেলা এবং উত্তর দিনাজপুর জেলায় ৩  জন করে করোনা সংক্রামিত হয়েছে। অন্যদিকে দক্ষিণবঙ্গের মধ্যে ঝাড়গ্রাম জেলায় ২ জন আজ করোনা আক্রান্ত হয়েছে। এরপরই মুর্শিদাবাদ জেলায় চারজন আক্রান্ত হয়েছে। তারপর পুরুলিয়া এবং বাঁকুড়া জেলায় ৫ জন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছে।

Published by:Raima Chakraborty
First published: