• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • WEST BENGAL BOARD OF SECONDARY EDUCATION INITIATED NEW RULE OF NOT DEDUCTING NUMBER IN EXAMINATION IN CASE OF SPELLING MISTAKE RM

বানান ভুল হলেও কাটা যাবে না নম্বর, মধ্যশিক্ষা পর্ষদের নয়া নিয়ম

প্রশ্নের উত্তর ঠিকঠাক লিখেছে নাকি পরীক্ষার্থীরা, সেটাই নজর রাখুন। পর্ষদের এমনই বার্তা মূল্যায়নকারী শিক্ষকদের।

প্রশ্নের উত্তর ঠিকঠাক লিখেছে নাকি পরীক্ষার্থীরা, সেটাই নজর রাখুন। পর্ষদের এমনই বার্তা মূল্যায়নকারী শিক্ষকদের।

  • Share this:

#কলকাতা: বানান ভুল হলেও কাটা যাবে না নম্বর। একমাত্র বাংলা বিষয় ছাড়া বাকি বিষয়গুলির ক্ষেত্রে এমনই নিয়ম চালু করল মধ্যশিক্ষা পর্ষদ। মূলত এতদিন বাংলা ছাড়া অন্যান্য বিষয় গুলিতেও ভুল বানানের ওপর নজর রাখা হত। বিশেষত উত্তরপত্র মূল্যায়নের সময় বানান ভুল হলেও কোনও কোনও সময়ে মূল্যায়নকারী শিক্ষকরা নম্বর কেটে নিতেন। যা ঘিরে অবশ্য অনেক বিতর্ক হয়েছে বিভিন্ন সময়ে। ইতিমধ্যেই বিভিন্ন বিষয়ের প্রধান পরীক্ষকদের সঙ্গে বৈঠক সেরে ফেলেছে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ। সেই বৈঠকগুলিতেই এমনই বার্তা পর্ষদের তরফে দেওয়া হয়েছে বলে সূত্রের খবর। যদিও এ 'বিষয় নিয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাননি পর্ষদ সভাপতি।

মধ্যশিক্ষা পর্ষদ উত্তরপত্র মূল্যায়ন নিয়ে একাধিক নিয়মাবলী চালু করছে, যা নিয়ে কার্যত সমস্যার মুখে পড়তে চলেছেন শিক্ষকদের একাংশ। ইতিমধ্যেই উত্তরপত্রর মূল্যায়নে কোনও প্রশ্নের নম্বর কেন কম দেওয়া হল তার ব্যাখ্যা শিক্ষকদের দেওয়া নিয়ে নির্দেশ দিয়েছে পর্ষদ। এবার আরও এক ধাপ এগিয়ে বানান ভুল হলেও নম্বর কাটা যাবে না বলে জানিয়ে দিল পর্ষদ। মূলত বাংলা ছাড়া আর কোনও বিষয়ে বানান ভুল হলে নম্বর কাটা যাবে  না বলেই জানানো হয়েছে পর্ষদের তরফে। পর্ষদের যুক্তি, বাংলা বিষয়েই বানান ভুল হচ্ছে নাকি ঠিক হচ্ছে সেটা দেখাটাই একমাত্র যুক্তিযুক্ত। অঙ্ক, ইতিহাস,ভূগোলের মতো বিষয়গুলিতে উত্তরটা ঠিক নাকি ভুল, সেটাই আসল বিচার্য বিষয়। যদিও এতদিন ধরে এই বিষয়গুলিতেও বানান ভুলের জন্য অনেক সময় শিক্ষকরা নম্বর কেটে নিতেন।  এবার থেকে তা করা যাবে না বলেই পর্ষদের তরফে জানানো হয়েছে। যদিও এ' বিষয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাননি পর্ষদ সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়।

নির্ভুল মূল্যায়নের জন্য মূল্যায়নকারী শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে একাধিক নিয়মাবলী চালু করেছে পর্ষদ। গতবারের তুলনায় উত্তরপত্র মূল্যায়নের জন্য কম সময় দেওয়া হয়েছে। তার উপরে একের উপর এক নিয়মাবলী চালু করায় সমস্যায় পড়বেন শিক্ষকরা, এমনটাই বলছে শিক্ষক সংগঠনগুলি।

SOMRAJ BANDOPADHYAY

Published by:Rukmini Mazumder
First published: