পিছিয়ে গেল উচ্চপ্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ , অপ্রশিক্ষিত প্রার্থীদের নিয়োগ নিয়ে আশঙ্কা

পিছিয়ে গেল উচ্চপ্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ , অপ্রশিক্ষিত প্রার্থীদের নিয়োগ  নিয়ে আশঙ্কা

আগামী দু’সপ্তাহ উচ্চপ্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া নিয়ে এগোবে না কমিশন ৷

  • Share this:

#কলকাতা: প্রশিক্ষণহীনদের নিয়োগ নিয়ে ফের আদালতে বিপাকে রাজ্য ৷ এর জেরেই বাধাপ্রাপ্ত উচ্চপ্রাথমিকের নিয়োগ প্রক্রিয়া ৷ টেট বাতিল নিয়ে জনস্বার্থ মামলায় এদিন আদালতে স্কুল সার্ভিস কমিশন জানিয়েছে, আগামী দু’সপ্তাহ উচ্চপ্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া নিয়ে এগোবে না কমিশন ৷

শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে অব্যাহত আইনি জট ৷ মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক স্তরে শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে একাধারে যেখানে সরছে আইনি বাধা, সেখানে উচ্চ প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগে আশঙ্কার কাঁটা ৷ প্রাথমিক ও উচ্চপ্রাথমিক টেট বাতিলের আবেদন নিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হন মামলাকারী শম্ভুনাথ কুন্ডু ৷ আদালতের কাছে তাঁর আবেদন ছিল, প্রশিক্ষণহীনদের শিক্ষকপদে নিয়োগ করা হলে রাজ্যে শিক্ষার মান নেমে যাবে ৷ তাই শিক্ষার অধিকার আইন অনুযায়ী প্রশিক্ষণহীনদের নিয়োগে নিষেধাজ্ঞা চেয়ে আদালতে একটি জনস্বার্থ মামলা করেন ৷

সেই মামলায় প্রাথমিক ও উচ্চপ্রাথমিকের টেট পরীক্ষা বাতিল করার আবেদন করানো হয় ৷ মামলাকারীদের আইনজীবী বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য বলেন, ‘ ২০১৬ র ৩১ মার্চের পর প্রাথমিকে প্রশিক্ষণহীন শিক্ষক নিয়োগে বৈধ ছাড়পত্র দেয়নি কেন্দ্র ৷ তাহলে কিসের ভিত্তিতে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে প্রশিক্ষণহীনদের সুযোগ দেওয়া হচ্ছে রাজ্যে?’

আরও পড়ুন

SSC ফলপ্রকাশে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার হাইকোর্টের

অন্যদিকে, প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের আইনজীবী সুবীর সান্যাল বলেন, ‘নিয়মেই আছে চাকরি পাওয়ার দু’বছরের মধ্যে প্রশিক্ষণ শেষ করতে পারবেন প্রাথমিকের শিক্ষকরা ৷ মামলাকারীর আইনজীবীর গ্রহণযোগ্যতা কম ৷’

দুই পক্ষের সওয়াব-জবাব শোনার পর অস্থায়ী প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ ও স্কুল সার্ভিস কমিশনের কাছে হলফনামা চায় ৷ এর পরিপ্রেক্ষিতে পর্ষদ জানায়, তাদের নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ ৷ অপ্রশিক্ষিতদের নিয়োগ নিয়ে কোনও পদক্ষেপ করা আর সম্ভবপর নয় ৷

উচ্চপ্রাথমিকের নিয়োগ এখনও শুরু না হওয়ায় সেই প্রক্রিয়ায় অপ্রশিক্ষিতদের উপর নিষেধাজ্ঞা চান মামলাকারী ৷ তাঁর পরিপ্রেক্ষিতে আপাতত উচ্চপ্রাথমিকের নিয়োগ নিয়ে SSC-এর হলফনামা চায় অস্থায়ী প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ ৷ এদিন আদালতে স্কুল সার্ভিস কমিশন জানায়, মামলার পরবর্তী শুনানি না হওয়া পর্যন্ত, আগামী দু’সপ্তাহের মধ্যে পঞ্চম-অষ্টম শ্রেণির শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করা হবে না ৷

এর ফলে আরও পিছিয়ে গেল উচ্চপ্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষা ৷ একইসঙ্গে অপ্রশিক্ষিত পরীক্ষার্থীদের ভবিষ্যৎ নিয়ে উঠে গেল বড়সড় প্রশ্ন ৷ আবারও আদালতের রায়ের উপর নির্ভর করে ঝুলে রইল রাজ্যে শিক্ষকপদে চাকরিপ্রার্থীদের ভাগ্য ৷

First published: 02:27:40 PM Mar 03, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर