• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • KMC Elections 2021: দাদা তৃণমূল, ভাই বিজেপি! দুই দলের প্রার্থী হয়েও সম্পর্ক অটুট রাজেশ- রাজীবের

KMC Elections 2021: দাদা তৃণমূল, ভাই বিজেপি! দুই দলের প্রার্থী হয়েও সম্পর্ক অটুট রাজেশ- রাজীবের

দুই ভাই রাজেশ ও রাজীব৷

দুই ভাই রাজেশ ও রাজীব৷

রাজেশ এবং রাজীব দু' জনেই একই বাড়িতে থাকেন৷ জো়ডাসাঁকো এলাকার ১৩, পাঁচু ধোবানি গলির ঠিকানাতেই মনোনয়ন জমা দিয়েছেন দু' জনে (KMC Elections 2021)৷

  • Share this:

#কলকাতা: তৃণমূল (TMC) এবং বিজেপি (BJP) মানেই কি শুধু বৈরিতা আর সংঘাত? রাজনৈতিক দল আলাদা মানেই যে সংঘাতের সম্পর্ক নয়, তা প্রমাণ করে দিয়েছেন কলকাতা পুরসভার (KMC Elections 2021) দুই প্রার্থী রাজেশ সিনহা এবং রাজীব সিনহা৷ প্রথম জন এবারের পুরভোটে ২৫ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী৷ আর দ্বিতীয় জন ৪১ নম্বর ওয়ার্ডের বিজেপি প্রার্থী৷ সম্পর্কে যাঁরা দুই ভাই!

রাজেশ এবং রাজীব দু' জনেই একই বাড়িতে থাকেন৷ জো়ডাসাঁকো এলাকার ১৩, পাঁচু ধোবানি গলির ঠিকানাতেই মনোনয়ন জমা দিয়েছেন দু' জনে৷ গা লাগোয়া দুই ওয়ার্ড থেকে দুই ভাই তৃণমূল- বিজেপি-র হয়ে লড়াই করলেও দু' জনের সম্পর্কে তাঁর কোনও প্রভাব পড়েনি৷ পরিবার নিয়ে রাজেশ এবং রাজীব একসঙ্গেই থাকেন, দু' জনের ব্যবসাও একসঙ্গেই৷

আরও পড়ুন: দু' তিন মাসের মধ্যেই সব পুরসভায় ভোট, কর্ণজোড়ার বৈঠকে ফের দাবি মমতার

বড় ভাই রাজেশের মতো ছোট ভাই রাজীবেরও দাবি, বাড়িতে রাজনীতি ঢুকতে দেন না তাঁরা৷ সেটাই নাকি সুসম্পর্ক বজায় রাখার রসায়ন৷ রাজীবের কথায়, 'আমাদের সম্পর্কে রাজনীতির কোনও প্রভাব পড়েনি৷ আমাদের সম্পর্ক খুবই ভাল৷ দুই ভাই একসঙ্গেই থাকি৷ ব্যবসাও একসঙ্গে৷'

ছোট ভাই রাজেশের কথায়, 'রাজনীতিতে এটাই দুর্ভাগ্য যে কেউ অন্য দল করলেই লোক মুখ ঘুরিয়ে নেয়৷ সেটা হওয়া উচিত নয়৷ দল আলাদা, বাড়ি আলাদা৷ নির্বাচন, রাজনীতি নিয়ে কোনও দিনই আমাদের বাড়িতে কোনও আলোচনা হয় না৷'

আরও পড়ুন: কলকাতায় চাই সবুজ-ঝড়, দুদিনেই 'গুরুদায়িত্ব' সামলাবেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়

রাজেশ এবং রাজীবন সিনহার বাবা অনয় গোপাল সিং একসময় জগদ্দলের কংগ্রেস বিধায়ক ছিলেন৷ তাঁদের জ্যাঠা আবার সমাজবাদী রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন৷ রাজেশ এবং রাজীবও বাবার মতোই একসময় কংগ্রেস করতেন৷ পরে দল পরিবর্তন করে তৃণমূল এবং বিজেপি-তে যোগদান করেন তাঁরা৷

রাজনৈতিক দল আলাদা হওয়া সত্ত্বেও দু' জনের সম্পর্কে কোনও প্রভাব পড়েনি৷ তবে প্রার্থী হওয়ার পর পরস্পরকে শুভেচ্ছাও জানাননি৷ ছোট ভাই রাজীব বলছেন, ভোটের ফল যাই হোক না কেন, দাদার সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক একই রকম থাকবে৷ আর দাদা রাজেশ কিছুটা হাল্কা মেজাজে বলছেন, 'মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে না থাকলে উন্নয়নে শামিল হওয়া সম্ভব নয়৷ তাই ভাই জিতুক বা হারুক, বলব তৃণমূলেই যোগ দিতে৷'

Published by:Debamoy Ghosh
First published: