দেশব্যাপী সাধারণ ধর্মঘটে দফায় দফায় রেল অবরোধ, হাওড়া বর্ধমান শাখায় বন্ধ ট্রেন চলাচল

দেশব্যাপী সাধারণ ধর্মঘটে দফায় দফায় রেল অবরোধ, হাওড়া বর্ধমান শাখায় বন্ধ ট্রেন চলাচল

খড়দা, বারাকপুরে অবরোধ। রিষড়া, চন্দননগরে অবরোধ। বিভিন্ন জায়গায় ওভারহেড তারে কলাপাতা ফেলে অবরোধ ধমর্ঘটীদের।

  • Share this:

#কলকাতা: দেশব্যাপী সাধারণ ধর্মঘটে দফায় দফায় রেল অবরোধ। শিয়ালদহ মেইন লাইন, হাওড় বর্ধমান শাখায় বন্ধ ট্রেন চলাচল । খড়দা, বারাকপুরে অবরোধ। রিষড়া, চন্দননগরে অবরোধ। বিভিন্ন জায়গায় ওভারহেড তারে কলাপাতা ফেলে অবরোধ ধমর্ঘটীদের। দুর্গাপুর স্টেশনে অবরোধ। রেললাইনে নেমে বিক্ষোভ অবরোধ তুলতে গেলে পুলিশের সঙ্গে বচসা ধর্মঘটীদের স্টেশন মাস্টারের ঘরের সামনে অবরোধ।বারাসত-হৃদয়পুরের মাঝে রেললাইনের মাঝে ৩টি বোমা। যারজেরে ২০ মিনিট বন্ধ ছিল ট্রেন।

রামপুরহাট স্টেশনে বিশ্বভারতী ফার্স্ট প্যাসেঞ্জার অবরোধের চেষ্টা করেন ধর্মঘট সমর্থকরা। ট্রেনের ইঞ্জিন উঠে পড়েন তাঁরা। বিশ্বভারতী ফার্স্ট প্যাসেঞ্জার রামপুরহাট স্টেশন থেকে ছাড়ে সকাল ৫:১০। আগে থেকেই রেললাইনে জমায়েত করেছিলেন ধর্মঘট সমর্থকরা। যদিও জিআরপি ও আরপিএফ অবরোধকারীদের সরিয়ে দেয়। ঠিক সময়েই রামপুরহাট স্টেশন থেকে ছাড়ে বিশ্বভারতী ফার্স্ট প্যাসেঞ্জার। দুর্গাপুরে অবরোধ। স্টেশনের মধ্যে অবরোধ। রেললাইনে নেমে বিক্ষোভ।

হাওড়া-বর্ধমান মেন লাইনের হিন্দমোটর স্টেশনে অবরোধ। সকাল ছ'টা থেকে জড়ো হন ধর্মঘটীরা। রেললাইনে জমায়েত হয়ে অবরোধ শুরু ধর্মঘটীদের। এখনও ট্রেন অবরোধ চলছে। একইসঙ্গে রিষড়া ও কোন্নগরের মাঝে ওভারহেড তারে কলাপাতা ফেলে অবরোধ করেছিলেন ধর্মঘটীরা। আধঘণ্টা বন্ধ থাকার পর ট্রেন চলতে শুরু করে।

শিয়ালদহ থেকে সকাল ৭:২০ ছাড়ার কথা ছিল মা তারা এক্সপ্রেসের। বিভিন্ন জায়গায় ধর্মঘটের জেরে ট্রেন ছাড়েনি। দেড় ঘণ্টার বেশি সময় শিয়ালদহ স্টেশনে দাঁড়িয়ে মা তারা এক্সপ্রেস। ট্রেন দাঁড়িয়ে থাকায় বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে এসিও। চূড়ান্ত দুর্ভোগে যাত্রীরা।

First published: January 8, 2020, 9:36 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर