• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • রাজীবের সঙ্গে ফের বৈঠকে দল, মানভঞ্জন হবে কি? উত্তরের দিকে তাকিয়ে সকলে

রাজীবের সঙ্গে ফের বৈঠকে দল, মানভঞ্জন হবে কি? উত্তরের দিকে তাকিয়ে সকলে

কিছুদিন আগেই রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় এবং শুভেন্দু অধিকারীর ছবি একই ফ্রেমে। যা ঘিরে বিভিন্ন জল্পনা শুরু হয় রাজ্য রাজনীতিতে।

কিছুদিন আগেই রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় এবং শুভেন্দু অধিকারীর ছবি একই ফ্রেমে। যা ঘিরে বিভিন্ন জল্পনা শুরু হয় রাজ্য রাজনীতিতে।

কিছুদিন আগেই রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় এবং শুভেন্দু অধিকারীর ছবি একই ফ্রেমে। যা ঘিরে বিভিন্ন জল্পনা শুরু হয় রাজ্য রাজনীতিতে।

  • Share this:

    #কলকাতা:আজ, সোমবার, দ্বিতীয় দফার বৈঠকে দলের সঙ্গে বসতে চলেছেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। সূত্রের খবর দক্ষিণ কলকাতায় এক মন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক হবার কথা। দলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করার পরই রাজীবের সঙ্গে এক দফা বৈঠক করে তৃণমূল নেতৃত্ব৷ প্রথম বৈঠক সদর্থক হওয়ায় রাজীবের সঙ্গে আবার এই বৈঠক হবে৷ কোনদিকে এই বৈঠক এগোবে, তার দিকে নজর থাকবে সবার।

    প্রথম বৈঠকে বেশ কিছু ক্ষোভ, অভিমানের কথা পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং প্রশান্ত কিশোরকে জানিয়েছিলেন রাজীব৷ এমনই সূত্রের খবর। তাঁর সঙ্গে দলের যে আলোচনা হয়েছে, তা তৃণমূলনেত্রীকে জানানো হয়েছে । আজকের বৈঠকের পর রাজীবের মান ভঞ্জন হবে কি না তা সেটাই দেখার।

    হরিদেবরপুরের এক কর্মসূচি থেকে রাজীব অভিযোগ করেছিলেন যে তিনি স্তাবকতা করেন না তাই তাঁর নম্বর কম।" তিনি আরও বলেন যে, "পিছন থেকে টেনে ধরা হয়েছে।" কয়েক মাস আগেই দলের মধ্যে বেশ কিছু সমস্যা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। সমস্যা মেটাতে আসরে নামেন তৃণমূলের নেতা ফিরহাদ হাকিম। কথা বলেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে। যদিও সাময়িক সমস্যা মিটে গেলেও, ফের নতুন করে শুরু হয় সমস্যা।

    কিছুদিন আগেই রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় এবং শুভেন্দু অধিকারীর ছবি একই ফ্রেমে। যা ঘিরে বিভিন্ন জল্পনা শুরু হয় রাজ্য রাজনীতিতে। তাহলে কি এবার শুভেন্দুর পথেই হাঁটতে চলছেন রাজ্যের আরও এক গুরুত্ত্বপূর্ণ মন্ত্রী? বিভিন্ন জল্পনা জিইয়ে রেখে, পোস্টার বিতর্ক নিয়ে প্রথম মুখ খুলে রাজীব জানান যে, 'সবার সঙ্গে তাঁকে মেলালে চলবে না। তিনি তার স্বতন্ত্র চিন্তাধারা নিয়ে চলেন।' হাওড়া, কলকাতাতে তাঁর নামে পোস্টার লাগানো নিয়ে তিনি জানিয়েছিলেন, পোস্টার প্রচারের তিনি বিরোধিতা করেন। কে বা কারা কোন উদ্দেশ্যে এই কাজ করছেন, তিনি তা জানেন না।

    Reporter: Kamalika Sengupta
    Published by:Pooja Basu
    First published: