• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • সিমার্স পানশালা কান্ডে পুলিশের জালে বাগুইআটির প্রভাবশালী নেতা

সিমার্স পানশালা কান্ডে পুলিশের জালে বাগুইআটির প্রভাবশালী নেতা

সল্টলেকের সিমার্স পানশালা কান্ডে জগজিত সিংহের পর এবার পুলিশের জালে ধরা পড়ল তৃণমূল নেতা ধিরাজ সরকার ওরফে বুম্বা।

সল্টলেকের সিমার্স পানশালা কান্ডে জগজিত সিংহের পর এবার পুলিশের জালে ধরা পড়ল তৃণমূল নেতা ধিরাজ সরকার ওরফে বুম্বা।

সল্টলেকের সিমার্স পানশালা কান্ডে জগজিত সিংহের পর এবার পুলিশের জালে ধরা পড়ল তৃণমূল নেতা ধিরাজ সরকার ওরফে বুম্বা।

  • Share this:

    # বিধাননগরঃ সল্টলেকের সিমার্স পানশালা কান্ডে জগজিত সিংহের পর এবার পুলিশের জালে ধরা পড়ল তৃণমূল নেতা ধিরাজ সরকার ওরফে বুম্বা। বিধাননগরের এলক্ট্রনিক্স কমপ্লেক্স থানার পুলিশ তাঁকে গ্রেফতার করেছে। বুম্বা বাগুইআটি এলাকার প্রভাবশালী তৃণমূল নেতা। মন্ত্রী থাকাকালীন রচপাল সিং এর বহু দিনের আপ্তসহায়ক ছিল এই বুম্বা। যদিও মন্ত্রিত্ব ছাড়া পর রচপাল সিংহের আপ্তসহায়কের কাজ চলে যায় তাঁর।

    প্রাক্তন মন্ত্রীর ঘনিষ্ঠতার জেরে এলাকায় নীলবাতি লাগানো স্কর্পিও গাড়ি করে ঘুরে বেড়াতো সে। নিজেকে ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশনের বড় কর্তা পরিচয় দিত সে। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ অনেক রাত অবধি সিমার্স বার চালানোয় মদত দিত বুম্বা। পুলিশের একাংশের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতার জেরে জগজিত সিংকে কিছু অঘটন ঘটলে বুম্বা মিটমাট করে দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছিল। এমনকী, এই ঘটনার তদন্তে পুলিশের ওপর চাপ দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে।

    বুম্বার বিরুদ্ধে এর আগে নোটবন্দীর সময় এক মহিলার কাছ থেকে পুরোনো নোট বদল করার নাম করে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। মহিলা বাগুইআটি থানায় অভিযোগ দায়ের করেছিল। কিন্তু পুলিশের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতার জেরে সে পার পেয়ে যায়। এলাকায় দখল চালানো ও তোলা আদায়ের অভিযোগও রয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে। পুজোর নাম করে সে এলাকার পয়সাওয়ালা মানুষদের কাছ থেকে চাঁদার নাম করে জোর জুলুম চালানোর অভিযোগ রয়েছে ওর বিরুদ্ধে। রচপাল সিংএর আপ্ত সহায়কের কাজ ছেড়ে দেওয়ার পরেও তাঁর বিন্দুমাত্র প্রতিপত্তি কমেনি। তৃণমূলের রাজ্য স্তরের নেতাদের সঙ্গে তাঁর ওঠাবসা বেশ ভালই ছিল। এই জোরেই সে তাঁর অনৈতিক কাজকর্ম চালিয়ে যাচ্ছিল বলে অভিযোগ।

    First published: