• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • RIP Subrata Mukherjee|| কালীপুজোর দুপুরে বাথরুম থেকে ফিরেই ম্যাসিভ কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট! আর সাড়া মিলল না...

RIP Subrata Mukherjee|| কালীপুজোর দুপুরে বাথরুম থেকে ফিরেই ম্যাসিভ কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট! আর সাড়া মিলল না...

Subrata Mukherjee passes away: দুপুরের খাবারে রুটি-তরকারি অর্ডার করেছিলেন। সেই সময়ে হালকা বুকে ব্যথা অনুভব হয়। তারপরে বাথরুমে যান। বাথরুম থেকে ফিরেই ম্যাসিভ কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট হয় প্রবীণ রাজনীতিবিদ সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের।

Subrata Mukherjee passes away: দুপুরের খাবারে রুটি-তরকারি অর্ডার করেছিলেন। সেই সময়ে হালকা বুকে ব্যথা অনুভব হয়। তারপরে বাথরুমে যান। বাথরুম থেকে ফিরেই ম্যাসিভ কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট হয় প্রবীণ রাজনীতিবিদ সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের।

Subrata Mukherjee passes away: দুপুরের খাবারে রুটি-তরকারি অর্ডার করেছিলেন। সেই সময়ে হালকা বুকে ব্যথা অনুভব হয়। তারপরে বাথরুমে যান। বাথরুম থেকে ফিরেই ম্যাসিভ কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট হয় প্রবীণ রাজনীতিবিদ সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের।

  • Share this:

    #কলকাতা: দুপুরের খাবারে রুটি-তরকারি অর্ডার করেছিলেন। সেই সময়ে হালকা বুকে ব্যথা অনুভব হয়। তারপরে বাথরুমে যান। বাথরুম থেকে ফিরেই ম্যাসিভ কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট। সিপিআর দেওয়া হয়, কিন্তু কোনও সাড়া দেননি। রাত ৯.২২ মিনিটে থেমে যায় লড়াই। দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে ইতি টেনে প্রয়াত হলেন রাজ্যের পঞ্চায়েত ও গ্রামন্নোয়ন-সহ চার দফতরের মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায় (Subrata Mukherjee)। মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিল ৭৬ বছর।

    এসএসকেএম (SSKM) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থাতেই বৃহস্পতিবার দীপাবলির পড়ন্ত বেলায় হৃদরোগে আক্রান্ত হন তিনি। অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে ICU-তে স্থানান্তরিত করা হয়। বাড়ির পুজো ছেড়ে মন্ত্রীকে দেখতে তড়িঘড়ি এসএসকেএমে পৌঁছন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (CM Mamata Banerjee)। হাসপাতালে পৌঁছন অরূপ বিশ্বাস। বেশ কিছুক্ষণ হাসপাতালে কাটানোর পর মুখ্যমন্ত্রীই (Mamata Banerjee on Subrata Mukherjee) ঘোষণা বলেন, 'আলোর দিনে এতবড় অন্ধকার, ভাবতেও পারিনি। অনেক দুর্যোগ এসেছে, কিন্তু এটা ভীষণ বড় দুর্যোগ। সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের মতো মানুষ, এত প্রাণবন্ত তিনি, পার্টি অন্ত প্রাণ আর হবে কিনা জানি না। সেদিনও দেখা হল, হাসল। বলল আবার জেলায় জেলায় যাব। কিন্তু কী যে হল। বিরাট হার্ট অ্যাটাক হল। ডাক্তাররা চেষ্টা করেছিলেন অনেক। দার্জিলিংয়েও এমন হয়েছিল একবার, অনেক কষ্ট করে আমরা ফিরিয়ে এনেছিলাম। কিন্তু এবার আর হল না।''

    আরও পড়ুন: প্রয়াত রাজ্যের পঞ্চায়েতমন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়

    আরও পড়ুন: 'এত বড় দুর্যোগ আসেনি জীবনে', সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের প্রয়াণে বললেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

    উল্লেখ্য, গত ২৫ অক্টোবর সকালে সকালে বাড়িতেই অসুস্থ বোধ করেন সুব্রত মুখোপাধ্যায় (Subrata Mukherjee)। তড়িঘড়ি তাঁকে নিয়ে আসা হয় এসএসকেএম হাসপাতালে। সেখানে কার্ডিওলজি বিভাগে প্রাথমিক পরীক্ষা-নিরীক্ষার পরেই তাঁকে আইসিইউ-তে ভর্তি করা হয়েছিল। হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক সরোজ মণ্ডলের তত্ত্বাবধানে তাঁকে আইসিইউ-তে ভর্তি করা হয়। পরে তাঁকে নন ইনভেসিভ ভেন্টিলেশন বা বাইপ্যাপ সাপোর্টে রাখা হয়েছিল। অক্সিজেনও দেওয়া হয়। ক্রমশ তাঁর শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল হয়। কিন্তু এ দিন ফের অবস্থার অবনতি হয়।
    Published by:Shubhagata Dey
    First published: