• HOME
  • »
  • NEWS
  • »
  • kolkata
  • »
  • SOVAN CHATTERJEE TO END THREE DECADE TRYST WITH KMC TODAY DMG
liveLIVE NOW

Sovan Chatterjee: কলকাতা পুরসভার সঙ্গে শোভনের তিন দশকের সম্পর্কে ইতি, নতুন সূচনার অপেক্ষায় রত্না

যে ১৩১ নম্বর ওয়ার্ড থেকে শোভন চট্টোপাধ্যায় (Sovan Chatterjee) কাউন্সিলর ছিলেন, সেখান থেকেই এবার রত্নাকে (Ratna Chatterjee) প্রার্থী করা হয়েছে৷

  • News18 Bangla
  • | December 21, 2021, 10:40 IST
    facebookTwitterLinkedin
    LAST UPDATED A MONTH AGO

    AUTO-REFRESH

    HIGHLIGHTS

    17:12 (IST)

    17:11 (IST)

    17:11 (IST)

    17:10 (IST)

    17:9 (IST)

    17:9 (IST)

    17:8 (IST)

    17:8 (IST)

    17:7 (IST)

    17:7 (IST)

    #কলকাতা: বিধায়ক হিসেবে বেহালা পূর্ব কেন্দ্র থেকে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের (Sovan Chatterjee) জায়গা দখল করেছেন৷ আজ কাউন্সিলর হিসেবে শোভনের ১৩১ নম্বর ওয়ার্ড থেকে ভাগ্য পরীক্ষা রত্না চট্টোপাধ্যায়ের (Ratna Chatterjee)৷

    ১৩১ নম্বর ওয়ার্ডের নতুন কাউন্সিলর যেই হোন না কেন, জনপ্রতিনিধি হিসেবে শোভনের তিন দশকেরও বেশি সময়ের ইনিংসে আজই ইতি পড়ছে৷ কারণ, কলকাতা পুরসভার ওয়েবসাইটেও ১৩১ নম্বর ওয়ার্ডের কো- অর্ডিনেটর হিসেবে এ দিন পর্যন্ত লেখা ছিল শোভন চট্টোপাধ্যায়ের নাম৷

    শোভন চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদের মামলা চলছে রত্না চট্টোপাধ্যায়৷ দাম্পত্য কলহে বাড়ি ছেড়েছেন শোভন৷ কার্যত রাজনীতির থেকেই অনেক দূরে তিনি৷ বেহালা পূর্ব কেন্দ্রের বিধায়ক ছিলেন শোভন৷ ২০২১ সালে সেই কেন্দ্র থেকে রত্না চট্টোপাধ্যায়কে প্রার্থী করেছিল তৃণমূল৷ বিজেপি-তে যোগ দিলেও ওই কেন্দ্র থেকে শোভনকে প্রার্থী করা হয়নি৷ সেই ক্ষোভেই গেরুয়া শিবিরের সঙ্গেও সম্পর্কচ্ছেদ করেন তিনি৷ বেহালা পূর্ব থেকে বিধায়ক নির্বাচিত হন রত্না৷

    আরও পড়ুন: কাউন্সিলর হিসেবেই প্রথম পরিচিত! আজ ভাগ্য পরীক্ষা হাফ ডজন বিধায়ক, মন্ত্রী, সাংসদেরও

    বিধানসভা নির্বাচনের পর পুরভোটেও রত্না চট্টোপাধ্যায়ের উপরেই আস্থা রেখেছে তৃণমূল নেতৃত্ব৷ যে ১৩১ নম্বর ওয়ার্ড থেকে শোভন চট্টোপাধ্যায় কাউন্সিলর ছিলেন, সেখান থেকেই এবার রত্নাকে প্রার্থী করা হয়েছে৷ রত্না জয়ী হলে জনপ্রতিনিধি হিসেবে আপাতত মুছে যাবে শোভনের নাম৷ প্রসঙ্গত, তিন দশকেরও বেশি সময় ধরে কলকাতা পুরসভার কাউন্সিলর, মেয়র পারিষদ, মেয়র হিসেবে দায়িত্ব সামলেছেন শোভন৷ ভবিষ্যতে কী হবে তা সময়ই বলবে, তবে আজই জনপ্রতিনিধি হিসেবে শোভনের ইনিংসে সরকারি ভাবে দাড়ি পড়ছে৷

    আরও পড়ুন: নিজেদের ছাপিয়ে যাওয়ার লড়াই তৃণমূলের, কঠিন পরীক্ষায় পাস মার্কস পাবে বিরোধীরা?

    এক সময় বেহালাকে বলা হত শোভনের গড়৷ সেই বেহালাতেই এবার নিজেকে আরও একবার প্রতিষ্ঠা করার লড়াই রত্নার৷ বাড়ি ছাড়ার পর এবং মেয়র পদে ইস্তফা দেওয়ার পর থেকে সেভাবে বেহালায় নিজের পাড়ামুখো হননি শোভন৷ সেই সময় দলের সঙ্গে যোগাযোগ রেখে এলাকার মানুষের পাশে থেকেছেন রত্নাই৷ ফলে কাউন্সিলর হিসেবে দায়িত্ব পেলেও খুব অসুবিধার মধ্যে পড়ার কথা নয় রত্না চট্টোপাধ্যায়ের৷

    কাউন্সিলর, মেয়র পারিষদ হিসেবে দীর্ঘদিন পরিষেবা দিয়ে কলকাতাবাসীর কাছে পরিচিত মুখ হয়ে উঠেছেন অতীন ঘোষ, দেবাশিস কুমার, দেবব্রত মজুমদাররা৷ সেই অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগাতেই ফের তাঁেদর কাউন্সিলর পদেই প্রার্থী করেছে শাসক দল৷