কলকাতা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

মুকুল রায়ের বাড়িতে শীলভদ্র দত্ত! বিজেপি-তেই যাচ্ছেন ব্যারাকপুরের বিধায়ক?

মুকুল রায়ের বাড়িতে শীলভদ্র দত্ত! বিজেপি-তেই যাচ্ছেন ব্যারাকপুরের বিধায়ক?
বিজেপি-তেই যাচ্ছেন শীলভদ্র?

অক্টোবর মাসেই প্রশান্ত কিশোর এবং তাঁর দলের কাজকর্ম নিয়ে সরব হল শীলভদ্র দত্ত৷ জানিয়ে দেন, তিনি আগামী বিধানসভা নির্বাচনে লড়বেন না৷

  • Share this:

#কলকাতা: মুকুল রায়ের বাড়িতে শীলভদ্র দত্ত৷ যা নিয়ে ফের জোর জল্পনা রাজনৈতিক মহলে৷ তবে কি বিজেপি-তেই যোগ দিচ্ছেন ব্যারাকপুরের তৃণমূল বিধায়ক?

শীলভদ্র দত্ত বরাবরই মুকুল রায়ের ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত৷ ইতিমধ্যেই শীলভদ্র জানিয়ে দিয়েছেন আগামী নির্বাচনে তিনি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন না৷ শীলভদ্রের সঙ্গে তাঁর নিয়মিত যোগাযোগের কথা জানিয়ে এ দিন সেই জল্পনা আরও বাড়িয়েছেন মুকুল৷

সূত্রের খবর, এ দিন মুকুল রায়ের সল্টলেকের বাড়িতে যান শীলভদ্র দত্ত৷ যদিও সেকথা অস্বীকার করেছেন মুকুল৷ তবে ইঙ্গিতপূর্ণ ভাবে তিনি বলেন, 'ও তো রোজ আসে, আজও এসেছে, এ আর নতুন কী!'

মুকুল রায় অবশ্য দাবি করেছেন, এ দিন শীলভদ্র দত্ত তাঁর বাড়িতে যাননি৷ তবে তিনি বিজেপি-তে থাকাকালীনও তাঁর সঙ্গে ব্যারাকপুরের তৃণমূল বিধায়কের নিয়মিত যোগাযোগ রয়েছে, সেকথাও জোর গলায় জানিয়েছেন মুকুল৷ বিজেপি নেতা অস্বীকার করলেও, শীলভদ্র দত্ত এ দিনও তাঁর বাড়িতে গিয়ে বৈঠক করেছেন বলে সূত্রের খবর৷

অক্টোবর মাসেই প্রশান্ত কিশোর এবং তাঁর দলের কাজকর্ম নিয়ে সরব হল শীলভদ্র দত্ত৷ জানিয়ে দেন, তিনি আগামী বিধানসভা নির্বাচনে লড়বেন না৷ দলে কোণঠাসা হয়ে পড়ে এমনিতেই ক্ষুব্ধ ছিলেন শীলভদ্র৷ কয়েকদিন আগে শীলভদ্র দত্তের মান ভাঙাতে তাঁর সঙ্গে দেখা করতে যান টিম পিকে-র দুই সদস্য৷ কিন্তু নিজের সিদ্ধান্তে অনড় থাকেন শীলভদ্র৷ ওই দিনই সন্ধ্যায় তাঁর বাড়িতে যান খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক৷ কিন্তু অপেক্ষা করেও বাড়িতে না থাকায় ব্যারাকপুরের বিধায়কের দেখা পাননি তিনি৷ এবার মুকুল-শীলভদ্র বৈঠকের খবর ব্যারাকপুরের বিধায়কের দলবদলের সম্ভাবনা আরও জোরাল হল৷

এ দিন শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়েও ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্য করেছেন মুকুল রায়৷ তিনি দাবি করেন, শুভেন্দুর সঙ্গে বেশ কয়েকজন বিধায়ক রয়েছেন৷ সেই দলে শীলভদ্র দত্তও থাকতে পারেন৷ মুকুল রায় বলেন, 'শুভেন্দু গণ আন্দোলনের ফসল৷ আশা করি সেকথা মাথায় রেখেই ও নিজের সিদ্ধান্ত নেবে৷' মুকুল আরও বলেন, 'তৃণমূল বলে আর কিছু নেই৷ যেদিন ওই দল ছেড়েছিলাম সেদিনই বলেছিলাম, শেষের শুরু৷ আজও সেই কথাই বলছি৷ '

Sushobhan Bhattacharya

Published by: Debamoy Ghosh
First published: December 8, 2020, 7:14 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर