Home /News /kolkata /
Shantilal Mukherjee || অজানা নম্বর থেকে ফোন, চাওয়া হচ্ছে বিদ্যুতের বিল, সাবধান! এক ক্লিকেই গায়ের দু লক্ষ টাকা

Shantilal Mukherjee || অজানা নম্বর থেকে ফোন, চাওয়া হচ্ছে বিদ্যুতের বিল, সাবধান! এক ক্লিকেই গায়ের দু লক্ষ টাকা

অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা হাতানো এখন রোজকার ব্যাপার। তার ফাঁদেই Shantilal Mukherjee || অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা হাতানো এখন রোজকার ব্যাপার। তার ফাঁদেই এবার শান্তিলাল মুখোপাধ্যায়৷ প্রথমে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়ার হুমকি,  পরে টাকা আত্মসাৎ৷ 

আরও পড়ুন...
  • Share this:

    সাইবার প্রতারণার শিকার টলিউডের অভিনেতা শান্তিলাল মুখোপাধ্যায়। অভিযোগ, বিদ্যুতের বিল মেটানোর নামে তাঁর  ফোনে একটি এসএমএস আসে। ওই লিংকে ক্লিক করতেই অ্যাকাউন্ট থেকে উধাও হয়ে যায় দু-লক্ষ টাকা। লালবাজার সাইবার সেল ও সরশুনা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন তিনি৷

    আরও পড়ুন- কলকাতায় ট্রাফিক সিগন্যালে মরণফাঁদ! খোলা মুখ বিদ্যুতের তার ভয় ধরাবে

    অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা হাতানো এখন রোজকার ব্যাপার। তার ফাঁদেই এবার শান্তিলাল মুখোপাধ্যায়৷ প্রথমে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়ার হুমকি,  পরে টাকা আত্মসাৎ৷

    প্রায় প্রতিদিন সাইবার প্রতারণার ঘটনার খবর আসছে সামনে। অনলাইন মাধ্যমে লেনদেন করতে গিয়ে প্রায়ই প্রতারণার শিকার হচ্ছেন সাধারণ মানুষ। কিছু ক্ষেত্রে সেই সমস্ত ঘটনার সমাধান যেমন করছে পুলিশ পাশাপশি বহু অভিযোগের তদন্তও চলছে। ব্যাংক প্রতারণা থেকে শুরু করে বিভিন্ন সংস্থার নাম করে প্রতারকরা। আর এবার এক নতুন সাইবার প্রতারণার অভিযোগ আসছে। তা হল ইলেকট্রিক বিল৷ সম্প্রতি বর্ধমান শহরের পুলিশ লাইন এলাকার এক বাসিন্দা এই নতুন প্রতারণার শিকার হয়েছেন। সেটিও শান্তিলাল মুখোপাধ্যায়ের ঘটনার মতোই৷ তিনি বিদ্যুৎ বিল মেটানোর জন্য পাঠানো লিঙ্কে ক্লিক করতেই তার ব্যাংক একাউন্ট থেকে ৫০ হাজার টাকা উঠে গিয়েছে বলে অভিযোগ। অন্য একটি ঘটনায় বর্ধমান শহরের রানীসায়র পাড় এলাকায় এক ব্যক্তিকে ফোন করে একইভাবে বিদ্যুৎ বিল বকেয়া থাকার কথা জানানো হয়। তবে তাঁর স্মার্টফোন না থাকায় তিনি প্রতারণার হাত থেকে বেঁচে গিয়েছেন।

    আরও পড়ুনঃ মুখ্যমন্ত্রীর আসার আগে ‘মাটি তীর্থ, কৃষি কথা’র হাল দেখতে হাজির প্রশাসনিক আধিকারিকরা

    একইভাবে সম্প্রতি আরও একটি ঘটনায় এক গ্রাহকের মোবাইলে বিদ্যুৎ বিল সংক্রান্ত বিষয়ে ফোন করা হয়। সেখানে গ্রাহকের জানানো হয়, তাঁর গত মাসের বিদ্যুৎ বিল বাকি রয়েছে। বিদ্যুৎ বিল না দেওয়া হলে ২৪ ঘন্টার মধ্যে সংযোগ কেটে দেওয়া হবে। তাকে একটি ম্যাসেজের লিঙ্ক পাঠানো হয়। যার মাধ্যমে বকেয়া বিদ্যুৎ বিল মিটিয়ে দেওয়া যাবে বলে জানানো হয়। ফোন পাওয়ার পরই আতঙ্কিত হয়ে পড়েন ওই ব্যক্তি।

    Published by:Rachana Majumder
    First published:

    Tags: Fraud, Shantilal mukherjee

    পরবর্তী খবর