corona virus btn
corona virus btn
Loading

স্যানিটাইজড হয়েই সপরিবারে ট্রাম্পের দেশে চললেন কুমোরটুলির দেবী দুর্গা

স্যানিটাইজড হয়েই সপরিবারে ট্রাম্পের দেশে চললেন কুমোরটুলির দেবী দুর্গা

অন্যান্যবারের তুলনায় এবার কুমোরটুলি অনেকটাই ফাঁকা ফাঁকা। এখনোও বঙ্গদেশের দুর্গাপুজোর অর্ডার আসেনি।

  • Share this:

#কলকাতা: মা চলেছেন সাগর পাড়ে। সঙ্গে স্যানিটাইজার নিয়ে। করোনা আতঙ্কে বাদ যাচ্ছেন না দেবতারাও। স্বয়ং মা দুর্গা কে বারবার স্যানিটাইজার করছেন মৃৎশিল্পী। কাজ করার আগে ও পরে বারবার।কুমোরটুলিতে ভিনদেশে পাড়ি দেওয়া মা দুর্গার প্রতিমা এভাবেই জীবাণুমুক্ত করছেন মৃৎশিল্পীরা। স্নানযাত্রার দিনেই মেলবোর্ন পাড়ি দিল কুমোরটুলির দুর্গা। ক্যাঙ্গারুর দেশ।  এরপর মা দুর্গা পাড়ি দেবেন ট্রাম্পের দেশে। পরের ঠাকুর টি যাবে নর্থ ক্যারোলিন এ। তার শেষ পর্যায়ের কাজ চলছে। আর বারবার মা দুর্গার ফাইবারের মূর্তিতে স্যানিটেশন করা হচ্ছে এবার প্যাকেট বন্দি হয়ে মা দুর্গা পাড়ি দেবেন আমেরিকায়।

অন্যান্যবারের তুলনায় এবার কুমোরটুলি অনেকটাই ফাঁকা ফাঁকা। এখনোও বঙ্গদেশের দুর্গাপুজোর অর্ডার আসেনি। তাতে কি ভিনদেশের যে অর্ডার আগেই এসেছিল সেগুলোই পাড়ি দিচ্ছে৷ কুমোরটুলি থেকে কুমোরটুলির মৃৎশিল্পী কৌশিক ঘোষ। প্রতি বছর 30 থেকে 32 টি প্রতিমা ভিনদেশে পাড়ি দেয় কৌশিক বাবুর কুমোরটুলি স্টুডিও থেকে । এ বছর ও যাবে , তবে সাগর পাড়ে এবার মাত্র আট থেকে দশটি প্রতিমা যাবার সম্ভাবনা। কেউ অর্ডার দিয়েও ক্যানসেল করেছেন। আবার অনেকেই নমো নমো করে পূজো সারছেন।

আমেরিকার নর্থ ক্যারোলিন এ যে প্রতিমা যাবে সেটি ফাইবারের তৈরি মূর্তি 6 ফুট চওড়া এবং সাড়ে সাত ফুট উচ্চতা। এক চালায় মা দুর্গার সংসার। ট্যাগ করার আগেও বারবার সাইজ করে নিচ্ছেন সেই একচালার মা দুর্গার প্রতিমা কে।

এমনিতেই সেভাবে অর্ডার আসেনি। প্রায় গতবারের দামি এবারে অর্ডার নিতে হয়েছে দু-একটা প্রতিমায় সামান্য বেশি। যদিও লকডাউন উত্তর পিরিয়ডে প্রতিমা তৈরির খরচ অনেকটাই বেড়ে যাবে। তার উপর রয়েছে শ্রমিক সমস্যা।অল্প সংখ্যায় শ্রমিক নিয়ে দিনরাত খেটে এখন ভিনদেশের প্রতিমা তৈরীতে ব্যস্ত কুমোরটুলির মৃৎশিল্পী কৌশিক ঘোষ।এবারের প্রতিমা তৈরি এক অনন্য অভিজ্ঞতা ।করোনা আতঙ্কে নিজেরাতো হাত ধুয়ে নিচ্ছি। প্রতিমাকে এভাবে স্যানিটাইজেশন করতে হবে আগে কখনো ভাবি নি ।জানালেন মৃৎশিল্পী কৌশিক ঘোষ।

Published by: Dolon Chattopadhyay
First published: June 5, 2020, 11:19 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर