পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় রুমা গুহঠাকুরতার শেষকৃত্য, রাজ্য সরকারের তরফে গান স্যালুট

News18 Bangla
Updated:Jun 03, 2019 01:40 PM IST
পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় রুমা গুহঠাকুরতার শেষকৃত্য, রাজ্য সরকারের তরফে গান স্যালুট
News18 Bangla
Updated:Jun 03, 2019 01:40 PM IST

#কলকাতা: প্রয়াত বর্ষীয়ান অভিনেত্রী, সঙ্গীতশিল্পী রুমা গুহঠাকুরতা। পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় শেষকৃত্য হবে, রাজ্য সরকারের তরফে গান স্যালুট দেওয়া হবে বলে জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কেওড়াতলা মহাশ্মশানে শেষকৃত্য হবে শিল্পীর। প্রয়াত অভিনেত্রীর বাড়িতে যান মুখ্যমন্ত্রী, কথা বলেন পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে।

সোমবার ভোর সওয়া ৬টা নাগাদ, কলকাতায় নিজের বাড়ি, ৩৮ বালিগঞ্জ প্লেসে 'ঠাকুরতা হাউস'-এ ঘুমের মধ্যেই প্রয়াত হন ক্যালকাটা ইয়ুথ কয়্যারের প্রতিষ্ঠাতা। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর।

কিশোর কুমারের প্রথম স্ত্রী রুমা। তাঁদের সন্তান অমিত। ১৯৩৪ সালে কলকাতায় জন্ম হয় রুমার। বাবা সত্যেন ঘোষ এবং মা সতী ঘোষ সংস্কৃতি জগতের মানুষ ছিলেন। ১৯৫২ সালে কিশোর কুমারের সঙ্গে বিয়ে হয় রুমার। ১৯৫৮ সালে বিচ্ছেদ হয়ে যায় তাঁদের। কিশোরের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর রুমার সঙ্গে বিয়ে হয় অরূপ গুহ ঠাকুরতার। ১৯৬০ সালে অরূপ বাবুকে বিয়ে করেন রুমা। গায়িকা শ্রমণা চক্রবর্তী, অয়ন গুহ ঠাকুরতা রুমা এবং অরূপবাবুর সন্তান।

দেবব্রত বিশ্বাসের ছাত্রী রুমা সুগায়িকা ছিলেন। গান গেয়েছেন, ‘অমৃত কুম্ভের সন্ধানে’, ‘বাঘিনী’, ‘পলাতক’-সহ আরও বেশ কিছু বিখ্যাত ছবিতে। অভিনেত্রী হিসাবেও দক্ষ ছিলেন রুমা। সত্যজিৎ রায় থেকে তপন সিংহ, তরুণ মজুমদার থেকে রাজেন তরফদার প্রত্যেকের ছবিতে অভিনয়ের জন্য প্রশংসিত হয়েছেন । ‘গঙ্গা’, ‘শাখাপ্রশাখা’ ‘আশিতে আসিও না’, ‘অভিযান’, ‘পলাতক’, ‘বাঘিনী’, ‘নির্জন সৈকতে’, ‘বালিকা বধূ’, ‘পার্সোন্যাল অ্যাসিস্ট্যান্ট’, ‘দাদার কীর্তি’, ‘হংসমিথুন’, ত্রয়ী ‘৩৬ চৌরঙ্গী লেন’-সহ একাধিক বাংলা ছবিতে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন রুমা। ‘জোয়ার ভাটা’, ‘মশাল’, ‘আফসর’, ‘রাগ রং’-এর মতো হিন্দি ছবিতেও অভিনয় করেছেন তিনি।

First published: 01:40:08 PM Jun 03, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर