ভোল বদল কলকাতা স্টেশনের, চালু হচ্ছে প্রিমিয়াম লাউঞ্জ

আধুনিক এই লাউঞ্জ দেখলে মনে হবে যেন আপনি বসে আছেন কোনও বিমানবন্দরের লাউঞ্জে।

আধুনিক এই লাউঞ্জ দেখলে মনে হবে যেন আপনি বসে আছেন কোনও বিমানবন্দরের লাউঞ্জে।

  • Share this:

#কলকাতা: দীর্ঘ রেল যাত্রার ধকল এবার আপনার আর লাগবে না। একাধিক টার্মিনাল স্টেশনে তৈরি করা হচ্ছে আধুনিক ব্যবস্থা। সেই ব্যবস্থায় এবার তৈরি হয়ে গেল কলকাতা স্টেশন। লকডাউনের মধ্যেও চলল জোরকদমে কাজ। তাতেই তৈরি সম্পূর্ণ হল কলকাতা স্টেশনের লাউঞ্জ। আধুনিক এই লাউঞ্জ দেখলে মনে হবে যেন আপনি বসে আছেন কোনও বিমানবন্দরের লাউঞ্জে। যেখানে হাজির রিক্লাইনার, ম্যাসেজ চেয়ার। থাকছে শ্যালন, ফিস স্পা। লকডাউন পর্ব মিটলেই রেল চলাচল শুরু হলে যাত্রীদের জন্যে খুলে দেওয়া হবে এই স্পেশাল লাউঞ্জ।

পূর্ব রেলের পরিকল্পনা অনুযায়ী, তারা শিয়ালদহ স্টেশনের ওপর থেকে চাপ কমাতে চায়। সে কারণেই দূরপাল্লার ট্রেন চলাচল শিয়ালদহের বদলে পুরোপুরি ভাবে কলকাতা স্টেশন থেকে করা হতে পারে। বর্তমানে কলকাতা স্টেশন হল আন্তর্জাতিক স্টেশন। কারণ এখান থেকে বাংলাদেশ যাওয়ার জন্যে বন্ধন, মৈত্রী এক্সপ্রেস ছাড়ে। এছাড়া উত্তরবঙ্গ ও উত্তর ভারত যাওয়ার একাধিক ট্রেন এখানে থেকে যাতায়াত করে। দুরপাল্লার ট্রেনের যে সমস্ত যাত্রীরা এখানে আসেন তাদের থাকার জন্য আশেপাশে ভালো কোনও হোটেল নেই। ফলে বিশ্রাম নেওয়ার জন্যে তাদের বেশ অসুবিধা হয়। এবার সেই অসুবিধা কাটতে চলেছে।

কলকাতা স্টেশনে তৈরি হয়ে গেল অত্যাধুনিক 'সফর' লাউঞ্জ। এখানে থাকছে মোট ৯টি বেড। ৭ টি রিক্লাইনার চেয়ার। যেখানে আপনার সুবিধা মতো আপনি বসতে বা শুতে পারবেন। থাকছে মহিলা ও পুরুষদের জন্যে স্নানের ব্যবস্থা। থাকছে বেবি ফিডিং রুম। সমস্তটাই শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত। এছাড়া থাকছে ফিস স্পা। যেখানে একসাথে চার জন বসতে পারবেন। ঠিক তার পাশেই থাকছে শ্যালন। দু'জন সেই শ্যালন ব্যবহার করতে পারবেন। তবে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখেই সেই কাজ করা যাবে। এর পাশাপাশি আরামের জন্য থাকছে ম্যাসেজ চেয়ার। ফলে আরামের ব্যবস্থা পুরোপুরি থাকছে এই লাউঞ্জ জুড়ে। লাউঞ্জে ঢুকলেই চোখ আটকাবে রেলের কামরার মতো দেখতে ফুড স্টলে।

রিসেপশন থেকে কফি কাউন্টার। গোটাটাই রেলের কামরার ধাঁচে। যারা থাকবেন এই কাউন্টারে তাদেরকেও রেলের স্টাফেদের মতো পোশাক পড়ানো হবে। ফলে লাউঞ্জে ঢুকলেই মনে হবে যেন আপনি পৌছে গেছেন রেলের কামরায়। আপাতত গোটা লাউঞ্জ সেজেগুজে অপেক্ষা করছে। তবে এর পাশাপাশি থাকছে বাচ্ছাদের জন্যে গেম পার্লার ও বড়দের জন্যে লাইব্রেরি।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published: