কল সেন্টারে চলা গাড়িতেই বাচ্চাকে স্কুলে পাঠাচ্ছেন না তো? জেনে নিন বৈধ স্কুলগাড়ি চেনার কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য..

কল সেন্টারে চলা গাড়িতেই বাচ্চাকে স্কুলে পাঠাচ্ছেন না তো? জেনে নিন বৈধ স্কুলগাড়ি চেনার কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য..
স্পিড গভর্নর

পুলকারের নামে যেসব গাড়ি স্কুলে খাটে তার বেশিরভাগ 'কন্ট্রাক্ট ক্যারেজ' অর্থাৎ সকালে তারা স্কুলের বাচ্চাদের নিয়ে যায় আর রাতে কখনও কল সেন্টার, কখনও বা শাটলে যাত্রী পরিবহন করে।

  • Share this:
#কলকাতা: হুগলির পোলবায় শুক্রবার স্কুল পড়ুয়া সমেত নয়ানজুলিতে পড়ে পুলকার। তার জেরে দুই পড়ুয়ার অবস্থা আশঙ্কাজনক। এই ঘটনায় আরও একবার প্রশ্ন উঠছে, পুলকারে পড়ুয়াদের স্কুলে পাঠানো কতটা নিরাপদ? বারবার পুলকারে দুর্ঘটনা ঘটলেও কেন কড়া ব্যবস্থা নিচ্ছে না প্রশাসন, প্রশ্ন তুলছেন সাধারণ মানুষ।
কিন্তু এই পরিস্থিতিতে নিজের সন্তানের সুরক্ষার কথা ভেবে অভিভাবকদেরও সচেতন হওয়ার সময় এসেছে বলে মনে করছেন অনেকেই। কিন্তু কীভাবে বুঝবেন আপনার বাচ্চা নিরাপদ হাতেই স্কুলে যাচ্ছে বা বাড়ি ফিরছে? কিংবা কী করে বুঝবেন কল সেন্টারে চলা গাড়িতেই আপনার বাচ্চা স্কুলে যাচ্ছে ?
ওয়েস্ট বেঙ্গল অনলাইন ক্যাব অপারেটর গিল্ডের সাধারণ সম্পাদক ইন্দ্রনীল বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, পুলকারের নামে যেসব গাড়ি স্কুলে খাটে তার বেশিরভাগ 'কন্ট্রাক্ট ক্যারেজ' অর্থাৎ সকালে তারা স্কুলের বাচ্চাদের নিয়ে যায় আর রাতে কখনও কল সেন্টার, কখনও বা শাটলে যাত্রী পরিবহন করে। তাই স্কুলের বাচ্চাদের নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে যে সাবধানতা বা সতর্কতা থাকা দরকার, তাদের সেটা থাকে না। তাই পুলকারে বাচ্চা স্কুলে পাঠানোর আগে কয়েকটি বিষয় যাচাই করার উপায় বলে দিচ্ছেন তিনি। বাইরে থেকে কী করে বুঝবেন যে গাড়ি আপনার সন্তানকে স্কুলে নিয়ে যাচ্ছে সেটি শুধু স্কুলেই চলে কিনা।
উপায় হল-
১) যে গাড়ি শুধু স্কুলের বাচ্চাদের ভাড়া খাটে তার  রং হবে পুরো হলুদ। ২) যদি পুরো গাড়ির রং হলুদ না হয়, তাহলে গাড়িতে হলুদ রঙের লম্বা দাগ থাকবে। ৩) এছাড়া যে স্কুলে গাড়িটি ভাড়া খাটে, সেই স্কুলের নাম লেখা থাকবে গাড়িতে।
গাড়ির বাইরে থেকে এই চিহ্ন গুলি দেখতে পেলে কিছুটা নিশ্চিন্ত হতে পারেন। এছাড়া বাচ্চাকে গাড়িতে স্কুলে পাঠানোর আগে জেনে নিন আরও কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয়-
১) চালকের বৈধ লাইসেন্স রয়েছে কিনা দেখে নেওয়া দরকার। ২) চালকের কাছে দেখতে চান গাড়ির পারমিটের কাগজ। যদি সেখানে 'Permit Condition' অংশে স্কুলের জন্য পারমিট লেখা থাকে তাহলে নিশ্চিন্ত হয়ে বাচ্চাকে পাঠান। ৩) গাড়ির নম্বর প্লেট থেকে রেজিস্ট্রেশন নম্বর যাচাই করে দেখে নিন গাড়িটি কমার্শিয়াল লাইসেন্স আছে কিনা। ৪) স্কুল কর্তৃপক্ষের কাছে জানতে চান এই গাড়িটি অনুমোদিত বলে তারা পরিবহন দফতরকে জানিয়েছে কিনা।
উল্লিখিত বৈশিষ্টগুলি থাকলে বুঝতে হবে গাড়িটি বৈধ। আর বৈধ স্কুল গাড়িতে 'স্পিড গভর্নর' বলে একটি বিশেষ যন্ত্র বসানোর সরকারি নির্দেশ রয়েছে। এই যন্ত্রটি স্কুলগাড়ির গতি ঘণ্টায় ৬০ কিলোমিটারের বেশি হতে দেয় না। ফলে দুর্ঘটনার সম্ভাবনা কম থাকে।
প্রসঙ্গত, সাধারণ বাণিজ্যিক গাড়িতেও ওই যন্ত্র বসানো বাধ্যতামূলক। সেক্ষত্রে গতি ৮০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টায় বাধা থাকে। পোলবার ঘটনায় গাড়িটিতে ওই যন্ত্র থাকলেও সেটি খোলা ছিল। ফলে বেপরোয়া গতিতে ছুটছিল গাড়িটি। তার জেরেই ঘটে এত বড় দুর্ঘটনা। ইন্দ্রনীল বন্দ্য়োপাধ্য়ায় বলেন, "সরকারি নিয়ম অনুযায়ী এই গাড়িগুলোকে পুলকার বলা উচিত নয়। স্কুলবাস বলাই নিয়ম। বাচ্চাদের সুরক্ষার কথা ভেবে এই সব গাড়ির বদলে বড় স্কুল বাস বা নিজের গাড়ি ব্যবহার করা উচিত।"
Sujoy Pal
First published: February 15, 2020, 8:47 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर