রিসোলিং টায়ার, নেই বিমার কাগজ! শহরে পুলকার অভিযানের ভয়াবহ চিত্র

রিসোলিং টায়ার, নেই বিমার কাগজ! শহরে পুলকার অভিযানের ভয়াবহ চিত্র

শহরের বিভিন্ন জায়গায় চলল পুলকার চেকিং। কমার্শিয়াল নয়, ডোমেস্টিক নম্বরেই চলছে পুলকার।

  • Share this:

#কলকাতা: ব্যস্ততার জন্য অনেকে বাবা-মা সন্তানদের স্কুলে নিয়ে যেতে পারেন না। ফলে তাঁদের সন্তানদের স্কুলে যাতায়াতের অন্যতম মাধ্যম পুলকার। এখন সেই পুলকারেই বিপদ!

পোলবার দুর্ঘটনার পর তদন্তে নামতেই সামনে এসেছে একাধিক ভয়াবহ তথ্য। সোমবার বিভিন্ন স্কুলে পরীক্ষা থাকলেও কলকাতা ট্রাফিক পুলিশের তরফে চলে পুলকার অভিযান। প্রথম দিনের অভিযানে জরিমানা করা হয় বহু পুলকারকে। সকালেই গড়িয়াহাট এলাকার একটি নামী ইংরেজি মাধ্যম স্কুলের সামনে আসে একটি পুলকার। পুলকারের নম্বর যখন কমার্শিয়াল হবার কথা, তার জায়গায় সেটিতে ছিল ডোমেস্টিক নম্বর। রাম পাসোয়ান পুলকার চালক জানান, এক-দু বছর নয়, পাঁচ বছর ধরেই এভাবে চালাচ্ছি। কোনওদিন সমস্যা হয়নি।

স্কুলেরই এক পড়ুয়ার অভিভাবক জানান, পুলকার এখন চিন্তার কারণ। শুধুই যে বে-লাগাম গতি তা নয়, অনেক পুলকার কার্যত অস্বাস্থ্যকর। এদিন কালিকাপুরে পূর্ব যাদবপুরের ট্রাফিক গার্ডের তরফে দেখা গেল চলছে পুলকার চেকিং। পুলকারের সব নথি থাকলেও টায়ার রিসোলিং করা ছিল। জানাতে চাইলে চালকের সাফাই ভাল চাকা আছে গাড়িতে, খারাপ চাকার ব্যবহার হলেও বদলানোর সময় হয়নি। তার বিনিময়ে জরিমানাও দিতে হল চালকে। এদিকে যাদবপুর ট্রাফিক গার্ডের তরফে চলল অভিযান। এক গাড়ির তো আবার সব নথিই খুঁজে পেলেন না চালক। ছিল না গাড়ির বিমার কাগজ। জানতে চাইলে বলেন, সবই আছে এখন পাচ্ছি না। ফলে জরিমানা দিতে হল চালককে। সব দেখে এক অভিভাবক বলেন, "সবই জানি কিন্তু উপায় নেই পুলকার ছাড়া।"

সোমবারে পুলকার অভিযানে অনেক জরিমানা হলেও প্রশ্নটা রয়ে গেল, এর পরেও কি সচেতন হবেন চালকরা? নাকি একই তিমিরে থেকে যাবে পড়ুয়াদের নিরাপত্তা।

First published: February 17, 2020, 5:07 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर