corona virus btn
corona virus btn
Loading

ভেঙে পড়ছে পিস হাভেন, শতাব্দী প্রাচীন শবাগার ১ মাস বন্ধ

ভেঙে পড়ছে পিস হাভেন, শতাব্দী প্রাচীন শবাগার ১ মাস বন্ধ

ঐতিহ্যের শহর কলকাতা থেকে নিঃশ্বব্দে মুছে যাচ্ছে ঐতিহ্য। রফি আহমেদ কিদওয়াই রোড এবং বো ব্যারাকের দুই শতাব্দী প্রাচীন শবাগার। দুটিই বন্ধ।

  • Share this:

#কলকাতা: ঐতিহ্যের শহর কলকাতা থেকে নিঃশ্বব্দে মুছে যাচ্ছে ঐতিহ্য। রফি আহমেদ কিদওয়াই রোড এবং বো ব্যারাকের দুই শতাব্দী প্রাচীন শবাগার। দুটিই বন্ধ। দুটিরই দিন ফুরিয়েছে। আধুনিক কলকাতার ভরসা এখন তপসিয়ার পিস ওয়ার্ল্ড।

এই বাড়িটাই ছিল অনেকের শেষ ঠাঁই। শরীর তখন দেহ হয়েছে। মৃতদেহ। কিন্তু, প্রিয়জনেরা থাকেন অনেক দূরে। তাদের আসা পর্যন্ত তাই নিথর দেহের শুয়ে থাকা। শেষযাত্রার অগে শেষ কিছুক্ষণের অপেক্ষা। রফি আহমেদ কিদওয়াই রোডের এই শতাব্দীপ্রাচীন বাড়িটাই ছিল শেষযাত্রার আগের ঠিকানা। পিস হাভেন। সেটাও এবার বিলুপ্তির পথে। নীরবে কলকাতার বুক থেকে মুছে যাচ্ছে আরেক ঐতিহ্য। আইনি জটিলতা ও রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে প্রায় এক মাস ধরে এই পিস হাভেন বন্ধ। ব্রিটিশ আমলের যে বাড়িটায় আগে এগারোটি দেহ শুয়ে থাকত, সেই বাড়িটার এখন ভগ্ন দশা। রবিবার এর একাংশ ভেঙেও পড়ে।

একসময় এই পিস হাভেনে কফিনও তৈরি হত। সেই কফিনেই ব্রিটিশদের দেহ তাঁদের দেশে পাঠানো হত। এই বাড়িটা কলকাতাকে অনেক দিন ধরে দেখেছে। দেখেছে, বহু সমাপ্তি। এখানে রাখা ছিল বহু বিশিষ্টজন এবং রাজনীতিকদের দেহ।

একই হাল বো ব্যারাকের এই শবাগারটিরও। এর বয়স প্রায় ২০০ বছর। এটিরও দিন ফুরিয়েছে। আধুনিক কলকাতায় এখন রাজ্য সরকারের তৈরি করা তপসিয়ার এই পিস ওয়ার্ল্ডই ভরসা। ২০১৫ সালে এটি তৈরি করা হয়। ২৪ জনের দেহ রাখা যায়।

এখানে উন্নত পরিকাঠামো আছে। আধুনিক প্রযুক্তি আছে। কিন্তু, ঐতিহ্য? সে তো হারিয়ে গেল। সবার অজান্তে। নীরবে।

First published: August 27, 2019, 8:54 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर