corona virus btn
corona virus btn
Loading

‘বন্দী’ পেঁয়াজে বিস্মিত আদালত,"পেঁয়াজ আমাদের দিন’’, বললেন বিচারপতি

‘বন্দী’ পেঁয়াজে বিস্মিত আদালত,
Representational Image

পেঁয়াজ "বন্দি" জেনে বিচারপতি বললেন,"আমাদের দিন, ব্যবহার করবো !" শুল্ক দফতর-কে অবস্থান জানাতে নির্দেশ হাইকোর্টের।

  • Share this:

Arnab Hazra

#কলকাতা: দুর্মূল্যের বাজারে সীমান্তে বন্দিজীবন কাটাচ্ছে ৩৫টন পেঁয়াজ। শুল্ক দফতরের ঘেরাটোপে মালদহের মহদীপুর সীমান্তে। প্রায় দু’ সপ্তাহ ধরে। ১৯ অক্টোবর ২০১৯ ভারত সরকার অনুমতি দায় কেরালার সরবরাহকারী সংস্থাকে। ৭জানুয়ারি ২০২০ মধ্যে বাংলাদেশে ৭০ মেট্রিক টন পেঁয়াজ রফতানির। ৩৫ টন রফতানি হয়ে গেলেও বাকী ৩৫ টন করতে গিয়ে বিপত্তি। শুল্ক দফতর আটকে দিয়েছে পেঁয়াজ।

দেশের বাজারে পেয়াঁজ অগ্নিমূল্য তাই রফতানি বন্ধের অনুরোধ পাঠানো হয়েছে বরাত পাওয়া সংস্থা গুলির কাছে। সেই মোতাবেক শুল্ক দফতর একটি নির্দেশিকা পায়। তাতেই আটকে দেওয়া হয় টনটন পেঁয়াজ। ১৫ দিনের বেশি ট্রাকবন্দী থাকলে পেঁয়াজের টাটকা ভাব নষ্ট হয়ে যাবে। কলকাতা হাইকোর্টে মামলা ঠুকেছে কেরালার সরবরাহকারী সংস্থা।

কর্ণধার রেনিল টি. পি. আদালতের কাছে অভিযোগ, হঠাৎ পেঁয়াজ আটকে দেওয়ায় তা নষ্ট হতে বসেছে। একই সময়কালে আরও ৫৮ ট্রাক পেঁয়াজ বাংলাদেশে রফতানির জন্য ছাড়া হয়েছে। হয় তাঁর পেঁয়াজ বাংলাদেশে পাঠাতে দেওয়া হোক। তা না হলে ৪৫ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরন দিক শুল্ক দফতর।

শুক্রবার জরুরি ভিত্তিতে মামলাটি শুনানিতে আসে। বিচারপতি শেখর ববি শরাফ বিষয়টি জেনেই কিছুটা অবাক হন। এরপর মামলাকারীর আইনজীবীর উদ্দেশ্য অভিযোগ সম্পর্কে জানতে চান। তা জানতেই কিছুটা ঠাট্টা ছলে বিচারপতির মন্তব্য, " পেঁয়াজ আমাদের দিয়ে দিন, ব্যবহার করবো।"

পেঁয়াজের বিপুল পরিমাণ জেনে অবশ্য আর কিছু বলেন নি বিচারপতি।  তবে "বন্দী" পেঁয়াজের টাটকা ভাব ধরে রাখা সমস্যার,এটা শুক্রবারের ভরা এজলাসও বুজেছে। হাইকোর্ট সোমবারের মধ্যে শুল্ক দফতর-কে অবস্থান(ইনস্ট্রাকশন) জানাতে নির্দেশ দিয়েছে।

বাঙালির হেঁসেলে বাড়ন্ত এখন পেঁয়াজ। আর নিয়মের যাঁতাকলে সীমান্তে পচতে বসেছে টনটন পেঁয়াজ। জোগান কম, চাহিদা বেশি।নিটফল হুশহুশ দামবৃদ্ধি। পেঁয়াজের আকাল মিটতেই চাইছে না।  পেঁয়াজের নয়া "নভেম্বরবিপ্লব" দেখেছে বাঙালি। সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে এখন ডাবল সেঞ্চুরির পথে পেঁয়াজ। তাই মাঝ ডিসেম্বর পেরিয়েও বাঙালির পেঁয়াজ ক্ষত এখনো দগদগে। ফলতঃ পেঁয়াজ দাম আম-আদমির ধরাছোঁয়ার বাইরে। যদিও নতুন মরসুমে ওঠা কালো পেঁয়াজ কিছুটা লড়াই দিচ্ছে "পাত-যুদ্ধে"। এই অবস্থায় মালদহ সীমান্তে ৷ পেঁয়াজ আছে অথচ তা নেওয়ার লোক নাই। না কাঁটাতারের ওপারে না এপারে। হাইকোর্ট পাড়ায় বলাই দা'র খাবারের স্টল। ডিম টোস্ট, অমলেট সহ নানা পদ তৈরি করে চলেছেন বছরের পর বছর ধরে। পেঁয়াজের এমন "বন্দী" দশা জেনে তাঁরও আক্ষেপ, এতগুলো পেঁয়াজ পচে যাবে!

First published: December 21, 2019, 9:03 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर