corona virus btn
corona virus btn
Loading

যাত্রী পরিবহণে জলপথের ওপর জোর, ২৯টি রুটে বাড়ছে লঞ্চের সংখ্যা, জানুন টাইম টেবিল

যাত্রী পরিবহণে জলপথের ওপর জোর, ২৯টি রুটে বাড়ছে লঞ্চের সংখ্যা, জানুন টাইম টেবিল
Representative Image

বেশি যাত্রী নিরাপদে যাতে নদী পারাপার করতে পারে তাই রাজ্য পরিবহণ নিগম আগামিকাল থেকে এই ২৯টি রুটে ৪০ লঞ্চ চালাবে। কোথাও ৩০ মিনিট অন্তর তো কোথাও লঞ্চ চলবে ১ ঘন্টা অন্তর।

  • Share this:

#কলকাতা: কলকাতা, হাওড়া ও হুগলির ২৯টি রুটে ৪০ লঞ্চ পরিষেবা চালু হয়ে যাচ্ছে আগামিকাল অর্থাৎ শনিবার  থেকে। এই সব রুটে কিছু অংশে লঞ্চ চলাচল করত। কিছু রুটে আবার কাঠের নৌকা নিয়ে চলাচল হত। বেশি যাত্রী নিরাপদে যাতে নদী পারাপার করতে পারে তাই রাজ্য পরিবহণ নিগম আগামিকাল থেকে এই ২৯টি রুটে ৪০ লঞ্চ চালাবে। কোথাও ৩০ মিনিট অন্তর তো কোথাও লঞ্চ চলবে ১ ঘন্টা অন্তর।

রাজ্য পরিবহণ নিগম তাদের নয়া জলযান চালাবে এই সব রুটে। ৮ই জুন থেকে ৭০ শতাংশ কর্মী বাধ্যতামূলক যে কোনও সরকারি অফিসে। খুলে যাচ্ছে একাধিক বেসরকারি সংস্থার অফিস। সরকারি বাস রাস্তায় নেমেছে। বেসরকারি বাস রাস্তায় নামানোর চেষ্টা চলছে। এবার যাত্রী পরিবহণে জলপথের ওপর জোর দিচ্ছে রাজ্য সরকার। রাজ্য পরিবহণ নিগম তাই সিদ্ধান্ত নিয়েছে কলকাতা ও শহরতলির একাধিক রুটে জলযানের সংখ্যা যেমন বাড়ানো হবে, তেমনই নতুন লঞ্চ চালাবে তারা। এই পরিস্থিতিতে আগামিকাল, শনিবার, থেকেই শুরু হয়ে যাচ্ছে সেই পরিষেবা।

যে সব রুটে এই নয়া পরিষেবা মিলবে তা হল, শ্রীরামপুর থেকে ব্যরাকপুর ধোবিঘাট৷ প্রতি ৩০ মিনিট অন্তর এখানে একটি করে লঞ্চ চলবে। শেওড়াফুলি থেকে মনিরামপুর, প্রতি ৩০ মিনিট অন্তর এখানেও একটি করে লঞ্চ চলবে। তেলিনীপাড়া থেকে শ্যামনগর, এখানেও ৩০ মিনিট অন্তর একটি করে লঞ্চ চলবে। উত্তরপাড়া থেকে আড়িয়াদহ, প্রতি ৩০ মিনিট অন্তর ১ টি করে লঞ্চ চলবে। উত্তরপাড়া থেকে বাগবাজার ১ ঘন্টা ১৫ মিনিট অন্তর ২ টি করে লঞ্চ চলবে। উত্তরপাড়া থেকে কুটিঘাট, ৪৫ মিনিট অন্তর ২ টি করে লঞ্চ চলবে। কোন্নগর থেকে পানিহাটি, ৩০ মিনিট অন্তর একটি করে লঞ্চ চলবে। উলুবেড়িয়া থেকে আছিপুর ৩০ মিনিট অন্তর ১ টি করে লঞ্চ চলবে। বেলুড় থেকে আড়িয়াদহ, ৪৫ মিনিট অন্তর ২ টি করে লঞ্চ চলবে। বেলুড় থেকে বাগবাজার, একঘন্টা অন্তর ১ টি করে লঞ্চ চলবে। বেলুড় থেকে শিপিং ১ ঘন্টা ১০ মিনিট অন্তর ২ টি করে চলবে। বেলুড় থেকে হাওড়া ১ ঘন্টা ১০ মিনিট অন্তর ২ টি করে চলবে। বেলুড় থেকে কাশীপুর, প্রতি আধঘন্টা অন্তর ১টি করে লঞ্চ চলবে। হাওড়া থেকে মেটিয়াবুরুজ,  প্রতি এক ঘন্টা অন্তর ২ টি করে লঞ্চ চলবে। হাওড়া থেকে কুটিঘাট, ১ ঘন্টা ১০ মিনিট অন্তর ২ টি করে লঞ্চ চলবে। হাওড়া থেকে কাশীপুর, ৪৫ মিনিটের ব্যবধানে ২ টি করে লঞ্চ চলবে। ফেয়ারলি থেকে আড়িয়াদহ ৪৫ মিনিট অন্তর ১ টি করে চলবে। ফেয়ারলি থেকে মেটিয়াবুরুজ ১ টা লঞ্চ চলবে সময় ভাগ করে। বেলুড় থেকে বাগবাজার, প্রতি ১ ঘন্টা অন্তর ১ টি করে লঞ্চ চলবে। হাওড়া থেকে আরমেনিয়ান ঘাট, ১ টি করে লঞ্চ চলবে প্রতি ৩০ মিনিটের ব্যবধানে। হাওড়া থেকে শিপিং লঞ্চ চলবে প্রতি ৩০ মিনিট অন্তর ১টি করে। হাওড়া থেকে ফেয়ারলি প্রতি ৩০ মিনিট অন্তর ১ টি করে লঞ্চ চলবে। ফেয়ারলি থেকে কুটিঘাট, ৩৫ মিনিট অন্তর ২ টি করে লঞ্চ চলবে। কুটিঘাট থেকে বেলুড়, প্রতি ৩০ মিনিট অন্তর ১ টি করে লঞ্চ চলবে। নুরপুর থেকে গাদিয়ারা, প্রতি ৩০ মিনিট অন্তর ১ টি করে লঞ্চ চলবে। নাজিরগঞ্জ থেকে মেটিয়াবুরুজ, প্রতি ৩০ মিনিট অন্তর ১টি করে লঞ্চ চলবে।  রামকৃষ্ণপুর থেকে চাঁদপাল, প্রতি ৩০ মিনিট অন্তর ১ টি করে লঞ্চ চলবে। চাঁদপাল থেকে হাওড়া,ভায়া ফেয়ারলি, প্রতি ৩০ মিনিট অন্তর ১টি করে লঞ্চ চলবে।  হাওড়া থেকে বাগবাজার, প্রতি ৩০ মিনিট অন্তর ৩টি করে চলবে। পরিবহণ দফতর সূত্রে খবর, আগামী দিনে যাত্রী সংখ্যার চাপ বা চাহিদা বুঝে আরও লঞ্চ বা ভেসেল দেওয়া হবে এই সমস্ত রুটে। রুটের সংখ্যাও বাড়ানো হতে পারে। পরিবহণ মন্ত্রী জানিয়েছেন, যত আসন তত যাত্রী নিয়েই চলবে জলযান। তবে কোভিড ১৯ বিধি মেনেই সবাইকে চলতে হবে।

Published by: Pooja Basu
First published: June 5, 2020, 11:06 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर