Home /News /kolkata /
Millennium Park|| মিলেনিয়াম পার্কের টিকিট বিক্রির টাকা গায়েব, অভিযোগ এক বেসরকারি সংস্থার বিরুদ্ধে  

Millennium Park|| মিলেনিয়াম পার্কের টিকিট বিক্রির টাকা গায়েব, অভিযোগ এক বেসরকারি সংস্থার বিরুদ্ধে  

বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দিলেন পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম৷

বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দিলেন পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম৷

Millennium Park|| বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দিলেন পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম৷

  • Share this:

#কলকাতা: মিলেনিয়াম পার্কের টিকিট বিক্রির টাকা নিয়ে চম্পট দেওয়ার অভিযোগ একটি বেসরকারি সংস্থার বিরুদ্ধে। বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দিলেন পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। প্রায় সাত মাস বেতন না পেয়ে কার্যত দিশেহারা পার্কের কর্মচারীরা। করোনাকালে প্রায় বছর দুয়েক বন্ধ ছিল মিলেনিয়াম পার্ক। মাঝে তিন মাসের জন্য খুলেছিল পার্ক। পার্কের কর্মচারীদের অভিযোগ, কেএমডিএর অধীনে থাকা সেই পার্কের দেখাশোনা ও টিকিট বিক্রির বরাত দেওয়া হয়েছিলো চারঘাট ক্লাসিক ইন্টারন্যাশনাল সোসাইটি নামে একটি বেসরকারি সংস্থাকে। অভিযোগ অক্টোবর থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত পার্ক চালানোর পর টিকিট বিক্রির টাকা আর কেএমডিএর হাতে দেয়নি সংস্থা। সূত্রের খবর, সেই টাকা না পেয়ে নর্থ পোর্ট থানায় প্রতারণার অভিযোগ করে কেএমডিএ। কেএমডিএ-র সিইও-কেও তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন দফতরের ভারপ্রাপ্ত মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম।

আরও পড়ুন- বিজেপির চাপে নত, তবু এনডিএ'র দ্রৌপদী মুর্মুকেই সমর্থন করবে উদ্ধবের শিবসেনা!

এদিকে দীর্ঘদিন পার্ক বন্ধ থাকায় প্রায় অনাহারে দিন কাটাচ্ছেন পার্কের কর্মচারীরা। অনেকদিন ব্যবহার না হওয়ায় খারাপ হচ্ছে পার্কের রাইডগুলো। অবিলম্বে পার্ক খোলার দাবি জানিয়েছে কর্মচারীদের সংগঠন সিটু। সংস্থার কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করা হলেও কাউকে ফোনে পাওয়া যায়নি।

আরও পড়ুন: দলে থেকেও ব্রাত্য! দ্রৌপদী মুর্মুর সঙ্গে সাক্ষাতেও এই বিধায়ককে কেন ডাকল না বিজেপি?

সিটু নেতা সৌমজিৎ রজক জানিয়েছেন, "একটা সংস্থা টিকিট বিক্রি করে সেই টাকা নিয়ে পালাল। এগুলো কার টাকা? আমার আপনার টাকা। জনগণের টাকা। সেই টাকা উদ্ধার করার জন্য প্রশাসনের যে উদ্যোগ নেওয়ার প্রয়োজন ছিল সেটা দেখা যাচ্ছে না। এর থেকেই সন্দেহ হয় সর্ষের মধ্যে ভূত আছে কিনা? প্রশাসন ব্যনস্থা না নিলে আমরা তদন্তের দাবি জানিয়ে আদালতের দারস্থ হব। এরই পাশাপাশি আমাদের দাবি অবিলম্বে পার্ক খুলতে হবে। পার্কের কর্মচারীদের দায়িত্ব নিতে হবে সরকারকে। সাত মাস পার্ক বন্ধ রয়েছে। বেতন বন্ধ রয়েছে। ৩২ জন কর্মচারীর মধ্যে একজনের মৃত্যু হয়েছে। যদিও পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম জানিয়েছেন, ইতিমধ্যেই এই ঘটনার তদন্ত করার জন্য সিইও কে বলা হয়েছে।"

আরও পড়ুন: দলে থেকেও ব্রাত্য! দ্রৌপদী মুর্মুর সঙ্গে সাক্ষাতেও এই বিধায়ককে কেন ডাকল না বিজেপি?

মিলেনিয়াম পার্ক কলকাতার অন্যতম জনপ্রিয় পার্কের মধ্যে একটা। গঙ্গার হাওয়া খাওয়ার জন্য আট থেকে আশি সকলেরই ঠিকানা হয়ে গিয়েছিলো এই পার্কটি। এছাড়াও বাচ্চাদের আকৃষ্ট করার জন্য বেশকিছু রাইড চালানো হচ্ছিল। পার্ক বন্ধ থাকায় যেমন এই সব মানুষ সমস্যায় পড়েছেন তেমনই খারাপ হচ্ছে রাইডগুলো। তবে কেএমসি সূত্রে খবর খুব দ্রুত ফের টেন্ডার ডেকে পার্কটি চালানোর ব্যবস্থা করা হবে

Published by:Rachana Majumder
First published:

Tags: Firhad Hakim

পরবর্তী খবর