• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • TMC Tripura: ত্রিপুরার ফলে উজ্জীবিত, নতুন সেনাপতিকে দায়িত্বে এনে মাস্টারস্ট্রোক দেবেন মমতা?

TMC Tripura: ত্রিপুরার ফলে উজ্জীবিত, নতুন সেনাপতিকে দায়িত্বে এনে মাস্টারস্ট্রোক দেবেন মমতা?

ত্রিপুরা নিয়ে আশাবাদী তৃণমূল

ত্রিপুরা নিয়ে আশাবাদী তৃণমূল

TMC Tripura: আজ দলের গুরুত্বপূর্ণ ওয়ার্কিং কমিটির সদস্যদের নিয়েই বৈঠকে বসছেন মমতা বন্দোপাধ্যায়। সেখানে আলোচনা হতে পারে ত্রিপুরা নিয়ে।

  • Share this:

#কলকাতা: ত্রিপুরা পুর ভোটের (Tripura Civic Polls 2021) রেজাল্ট আউট হয়ে গেছে। অঙ্কের বিচারে তৃণমূল (TMC Tripura) একটি আসনে জয় লাভ করলেও, শতাংশের বিচারে জোড়া ফুল শিবির রাজ্যে দ্বিতীয় স্থানে চলে এসেছে বলে দাবি তাদের। এরকমই একটা পরিস্থিতিতে আজ দলের গুরুত্বপূর্ণ ওয়ার্কিং কমিটির সদস্যদের নিয়েই বৈঠকে বসছেন মমতা বন্দোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)।

সূত্রের খবর সেই বৈঠকে ত্রিপুরা প্রসঙ্গ উঠে আসবে। আর সেখানেই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিতে পারেন অশোক তনওয়ার। গান্ধি পরিবারের একদা ঘনিষ্ঠ এই নেতা, যিনি একাধারে হরিয়ানা প্রদেশ কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতিও বটে। তিনি আজ হাজির থাকতে পারেন দলের ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকে।

দলীয় সূত্রে খবর, অশোককে ত্রিপুরায় কাজে লাগানো হতে পারে। তৃণমূলের একটি সূত্র জানাচ্ছে, অশোককে ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকে আমন্ত্রণ যথেষ্ট ‘ইঙ্গিতবাহী’। ২০০৯ সালে হরিয়ানার সিরসা লোকসভা কেন্দ্র থেকে জয়ী হয়েছিলেন অশোক তনওয়ার। ২০১৪ এবং ২০১৯ সালে অবশ্য তিনি হেরে যান। এর কিছু দিন পরেই প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ভূপেন্দ্র সিং হুডার সঙ্গে মতবিরোধের জেরে দল ছাড়েন একদা রাহুল গান্ধির টিমের ওই গুরুত্বপূর্ণ সদস্য।

আরও পড়ুন: বারবার ব্যর্থতার ফল, এবার কলকাতা পুরভোটে প্রার্থী খুঁজতে নতুন ফর্মুলায় বঙ্গ BJP

প্রসঙ্গত, অশোকের স্ত্রী অবন্তিকা গান্ধি পরিবারের ঘনিষ্ঠ কংগ্রেস নেতা অজয় মাকেনের  বোন। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে দিল্লিতে নতুন দল ‘অপনা ভারত মোর্চা’ গড়ার কথা ঘোষণা করেন অশোক তনওয়ার। সেই কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি হিসেবে হাজির ছিলেন তাঁর দীর্ঘ দিনের বন্ধু, ত্রিপুরার ‘মহারাজা’ তথা ত্রিপুরা প্রদেশ কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি প্রদ্যোৎ দেববর্মন চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে দিল্লিতে নতুন দল ‘অপনা ভারত মোর্চা’ গড়ার কথা ঘোষণা করেন অশোক তনওয়ার। সেই কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি হিসেবে হাজির ছিলেন তাঁর দীর্ঘ দিনের বন্ধু, ত্রিপুরার ‘মহারাজা’ তথা ত্রিপুরা প্রদেশ কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি প্রদ্যোৎ দেববর্মনও। দুই বছর আগে কংগ্রেস ছেড়ে নয়া রাজনৈতিক মঞ্চ ‘তিপ্রা মথা’ গঠন করেছেন মহারাজা প্রদ্যোৎ মাণিক্য। গত এপ্রিল মাসে ত্রিপুরা রাজ্যের স্বশাসিত উপজাতি পরিষদের নির্বাচনে বিজেপি-আইপিএফটি জোটকে পর্যুদস্ত করে ক্ষমতা দখল করেছে ‘তিপ্রা মথা’।

আরও পড়ুন: সাত-সকালেই দিল্লি গেলেন দিলীপ ঘোষ! 'রাষ্ট্রীয় স্বার্থ' সামলে নামবেন পুরভোটের লড়াইয়ে

গত কাল ত্রিপুরার ফল বেরনোর দেখা যায়, একটি আসনে তিপ্রা মোথা জয় লাভ করেছে। ফলে পাহাড়ি অঞ্চল বাদ  দিয়েও আরবান বডির ভোটে আসন ছিনিয়ে নিয়েছে তারা। ত্রিপুরায় ৬০টি বিধানসভা আসনের মধ্যে এক তৃতীয়াংশ উপজাতি পরিষদের এলাকায়। সেখানে তৃণমূলের সঙ্গে প্রদ্যোৎ মাণিক্য হাত মেলালে বিজেপি বিপাকে পড়তে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। সম্ভাব্য সেই ‘সেতুবন্ধে’ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিতে পারেন অশোক। এর পাশাপাশি লুইজিনহো ফেলারিও, যিনি তৃণমূলের সদ্য রাজ্যসভার সাংসদ নির্বাচিত হয়েছেন তিনিও উত্তর পূর্বাঞ্চলের দায়িত্বে ছিলেন দীর্ঘদিন। ফলে আগামী দিনে জাতীয় স্তরের এই মুখেদের ব্যবহার করে ত্রিপুরা জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিতে পারে তৃণমূল কংগ্রেস।

Published by:Suman Biswas
First published: