Mamata Banerjee: 'ভোট গণনার আগে অন্যের দেওয়া বিরিয়ানি, চা নয়! মায়ের হাতের খাবার খান,' সাবধান করলেন মমতা

Mamata Banerjee: 'ভোট গণনার আগে অন্যের দেওয়া বিরিয়ানি, চা নয়! মায়ের হাতের খাবার খান,' সাবধান করলেন মমতা

'ভোট গণনার আগে অন্যের দেওয়া বিরিয়ানি, চা নয়! মায়ের হাতের খাবার খান,' সাবধান করলেন মমতা

ভোটের গণনার আগের রাতে অন্যের দেওয়া চা আর বিরিয়ানি খাবেন না। কাউন্টিং এজেন্টদের এমনই বার্তা দিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)।

  • Share this:

#কলকাতা: ভোটের গণনার আগের রাতে অন্যের দেওয়া চা আর বিরিয়ানি খাবেন না। কাউন্টিং এজেন্টদের এমনই বার্তা দিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। দলের কর্মীদের এমন সচেতন করার কারণ কী? যা নিয়ে রাজনৈতিক মহলে শুরু হয়েছে জল্পনা।

নির্বাচনী প্রচারে প্রায় প্রতিদিন রাজনৈতিক সমাবেশের মঞ্চে বক্তব্যের শেষ দিকে এসে মমতা বন্দোপাধ্যায় সতর্ক করেছেন তাঁর দলের ভোট কর্মীদের। বিশেষ করে যাঁরা বুথ এজেন্ট, পোলিং এজেন্ট তাঁদেরকে তিনি বারবার বাড়ির খাবার ব্যতীত অন্য খাবার খেতে বারণ করছেন। মমতা বন্দোপাধ্যায় জানিয়েছেন, বুথ কর্মী তাঁর দলের সম্পদ। কিন্তু চক্রান্ত করে কেউ বা কারা তাঁদের খাবারের মধ্যে ঘুমের ওষুধ বা এমন কিছু মিশিয়ে দিতে পারে। আর তাতে নেশাগ্রস্ত হয়ে পড়লে ভোট বাক্সে অন্যরকম প্রভাব পড়তে পারে। এভাবেই বার বার সাবধান করেছেন মমতা।

মমতা বন্দোপাধ্যায় তাঁদের আগেই জানিয়েছিলেন, "নির্বাচনের পরে আগামী একমাস পাহারা দিতে হবে ইভিএম মেশিন। যে সব ভোটের গণনা কেন্দ্র আছে, সেখানে সারাক্ষণ নজর রাখতে হবে। যাঁরা দলের কর্মী তাঁদের একটি টিম বানিয়ে সেখানে থাকতে হবে। এরা সব সময়ে নজর রাখবেন গণণা কেন্দ্রের উপরে।"

এই সব কর্মীদের মমতা বন্দোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, ভোট মেটার পরেও দায়িত্ব গণনা কেন্দ্রে গিয়ে নজর রাখা। সে কারণেই এই বিশেষ দল গঠন করতে বলা হয়েছে। আর এই দলে যারা থাকবেন তাদের জন্যে বলা হয়েছে, "কেউ একটা বিরিয়ানি প্যাকেট দিয়ে দিল, আর তোমরা তা খেয়ে নিলে তা হবে না। ওই খাবারে যদি কেউ কিছু মিশিয়ে দেয় তাহলে সমস্যা হবে। তাই বাড়ি থেকে মায়ের রান্না করে দেওয়া খাবার নিয়ে এসে খাবে।"

এমনকি বন্ধুদের থেকে চা খেতেও নিষেধ করেছেন মমতা বন্দোপাধ্যায়। এর আগে ভোটের দিন পোলিং এজেন্টদের সাবধানে কাজ করতে বলেছেন মমতা বন্দোপাধ্যায়। মক পোলিং ৩০ বার করতে বলেছেন। দু'বার ইভিএম সুইচ অফ সুইচ অন করতে বলেছিলেন। ভিভিপ্যাট মেশিন ভালো করে পরীক্ষা করতে বলেছিলেন। রাজনৈতিক মহলের মতে, ইভিএমের স্বচ্ছতা নিয়ে এর আগেও প্রশ্ন তুলেছিল তৃণমূল কংগ্রেস। তাই ভোটের আগে বারবার সাবধান করে দিয়েছেন মমতা বন্দোপাধ্যায় তাদের পোলিং ও বুথ এজেন্টদের।

আগামীকাল রবিবার ভোটের গণনা। সেখানেও প্রতি ইঞ্চিতে লড়াই চালিয়ে যেতে বলেছেন মমতা বন্দোপাধ্যায়। তাই যাঁরা কাউন্টিং এজেন্ট রয়েছেন, তাদের অন্য কারও থেকে সিগারেট অবধি নিতে বারণ করেছেন তিনি। দিদির সাজেশন, গণনাকেন্দ্র ছাড়লে চলবে না। মিডিয়ার সঙ্গে বিজেপির বোঝাপড়া হয়ে গিয়েছে। প্রথম দিক থেকেই দেখাবে ওরা এগিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু ঘাবড়ালে চলবে না। হতাশায় গণনাকেন্দ্র ছেড়ে আসা ঠিক হবে না। শেষ অবধি আমরাই জিতব। বিজেপি অনেক রকম বদমাইশি করবে। ওদের পাতা ফাঁদে পা দেওয়া চলবে না। আমাদের জয় নিয়ে কোনও প্রশ্ন নেই। বিভ্রান্তিমূলক প্রচারে কেউ কান দেবেন না।

Abir Ghoshal

Published by:Swaralipi Dasgupta
First published:

লেটেস্ট খবর