Home /News /kolkata /
Mamata Banerjee on Renu Khatun: রেণুর জন্য বড় ঘোষণা মমতার! শুধু চাকরি নয়, কৃত্রিম হাতেরও ব্যবস্থা করবে সরকার

Mamata Banerjee on Renu Khatun: রেণুর জন্য বড় ঘোষণা মমতার! শুধু চাকরি নয়, কৃত্রিম হাতেরও ব্যবস্থা করবে সরকার

রেণুর পাশে মমতা৷

রেণুর পাশে মমতা৷

এ দিন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছেন, হাত না থাকলেও যাতে কাজের অসুবিধা না হয়, রেণু জন্য সেরকম কাজেরই ব্যবস্থা করা হবে৷

  • Share this:

    #কলকাতা: নার্স হিসেবে সরকারি চাকরি পাওয়ায় হাতের কব্জি কেটে নিয়েছিল স্বামী৷ পূর্ব বর্ধমানের কেতুগ্রামের বাসিন্দা সেই রেণুু খাতুনের পাশে দাঁড়ালো রাজ্য সরকার৷

    এ দিন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছেন, হাত না থাকলেও যাতে কাজের অসুবিধা না হয়, রেণু জন্য সেরকম কাজেরই ব্যবস্থা করা হবে৷ পাশাপাশি, রেণুর জন্য রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে কৃত্রিম হাতেরও ব্যবস্থা করা হবে৷ দুর্গাপুরের বেসরকারি হাসপাতালে রেণুর চিকিৎসার যাবতীয় খরচও বহন করবে রাজ্য৷ শুধু তাই নয়, প্রয়োজনে রেণুর আরও উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থাও করবে রাজ্য সরকার৷

    আরও পড়ুন: রেণুর হাত কাটতে সুপারি দিয়েছিল স্বামী শের মহম্মদ, কী ঘটেছিল সেই রাতে?

    এ দিন মুখ্যমন্ত্রী বলেন, 'ও নার্সিং পরীক্ষায় বাইশতম স্থান দখল করেছিল৷ কিন্তু হাত না থাকায় ওঁর পক্ষে নার্সের কাজ করা কঠিন৷ তাই আমরা ওঁর জন্য এমন কাজের ব্যবস্থা করব যাতে ও মুখে কথা বলেই সেই কাজ করতে পারে৷ এ ছাড়াও আমরা ওঁর জন্য কৃত্রিম হাতের ব্যবস্থা করছি৷'

    আরও পড়ুন: শেষরক্ষা হল না, কেতুগ্রামে স্ত্রীর কব্জি কেটে পালানোর ঘটনায় গ্রেফতার মূল অভিযুক্ত শের মহম্মদ

    মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড থাকলেও দুর্গাপুরের বেসরকারি হাসপাতালে তা গ্রহণ করা হয়নি৷ কেন ওই হাসপাতালে স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড নেওয়া হল না, তা খতিয়ে দেখার জন্য তিনি মুখ্যসচিবকে নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী৷

    স্ত্রী সরকারি চাকরি পেলে তাঁর বদলি হয়ে যেতে পারে অথবা স্ত্রী তাকে ছেড়ে চলে যেতে পারেন, এই আশঙ্কা ছিল শের মহম্মদের৷ তাই স্ত্রী রেণু খাতুন সরকারি হাসপাতালে নার্সের চাকরি পেতেই তাঁকে সবক শেখানোর পরিকল্পনা করে শের মহম্মদ৷ সেই মতো দুষ্কৃতীদের সাহায্য নিয়ে ঘুমন্ত অবস্থায় স্ত্রীর হাতের কব্জি কেটে নেয় রেণুর স্বামী শের মহম্মদ৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published:

    পরবর্তী খবর