• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • অনুমতির জট কাটল মাঝেরহাট ব্রিজের, আগামী সপ্তাহেই সেতু চালুর সম্ভাবনা

অনুমতির জট কাটল মাঝেরহাট ব্রিজের, আগামী সপ্তাহেই সেতু চালুর সম্ভাবনা

সেতু চালু হলে সুবিধা হবে বেহালার মানুষের। গতি আসবে গঙ্গাসাগর মেলার

সেতু চালু হলে সুবিধা হবে বেহালার মানুষের। গতি আসবে গঙ্গাসাগর মেলার

সেতু চালু হলে সুবিধা হবে বেহালার মানুষের। গতি আসবে গঙ্গাসাগর মেলার

  • Share this:

#কলকাতা: মাঝেরহাট সেতু চালু করার ক্ষেত্রে কোনও বাধা আর রইল না। রেলের তরফে প্রয়োজনীয় ফিট সার্টিফিকেট দিয়ে দেওয়া হল রাজ্যের পূর্ত দফতরকে। সূত্রের খবর, আগামী ডিসেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহেই চালু হয়ে যেতে পারে মাঝেরহাট ব্রিজ। মুখ্যমন্ত্রীর অনুমতি পেলেই দিনক্ষণ জানিয়ে দেওয়া হবে। শুক্রবারই মাঝেরহাট ব্রিজ চালু করা নিয়ে যাবতীয় জটিলতার অবসান হয়েছে। পূর্ব রেলের তরফে ট্যুইট করে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, পূর্ত দফতর প্রয়োজনীয় সেফটি সার্টিফিকেট জমা করার অল্প সময়ের মধ্যেই রেল সেতু চালু করা নিয়ে চূড়ান্ত ছাড়পত্র দিয়ে দিয়েছে। ফলে সেতু কবে চালু করা হবে, বল এখন রাজ্যের কোর্টে। ফলে সেতু নিয়ে রেল-রাজ্য দ্বৈরথ কাটল বলেই মত প্রশাসনিক ও রাজনৈতিক মহলের।

গত বৃহস্পতিবার মাঝেরহাট ব্রিজ নিয়ে আন্দোলনে নামে বিজেপি। তারাতলা মোড়ে তাদের বিক্ষোভের জেরে রাজনৈতিক আঁচ গড়ায় অনেক দূর পর্যন্ত। নবান্ন থেকে পূর্ত মন্ত্রী পরিসংখ্যান দিয়ে জানান, কবে কবে আবেদন জানানো হয়েছে। কত দিন পরে অনুমতি মিলেছে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় জানান, রেলের জন্যেই সেতুর উদ্বোধনে বিলম্ব হচ্ছে। যদিও রেল দাবি করে সেতু নিয়ে পূর্ত দফতর কাজ শেষের পরে ফিট সার্টিফিকেট জমা করেনি। যে কারণেই সেতু চালুর জন্যে প্রয়োজনীয় অনুমতি দিতে পারছে না রেল। রেল সূত্রে খবর, শুক্রবারই নবান্ন থেকে ফিট সার্টিফিকেট পাঠানো হয়। তড়িঘড়ি সেই সার্টিফিকেট দেখে অনুমোদন দেয় রেল। এর ফলেই মনে করা হচ্ছে, সেতু চালু করার ক্ষেত্রে আর কোনও বাধা রইল না। প্রথা এবং আন্তর্জাতিক কোড মেনেই সেতুর ভার বহন সক্ষমতা যাচাই করেছে নির্মাণ সংস্থা ও পূর্ত দফতর। সেতুর কেবলের টিউনিং অর্থাৎ সংকোচন-প্রসারণ দেখা হয়েছে। এছাড়া সেতুর নিজস্ব ওজন যাচাই বা ডেড লোড পরীক্ষা করে দেখা হয়েছে। সেতুর ওপর বিভিন্ন ওজনের গাড়ি চালিয়ে ও দাঁড় করিয়ে রেখে সেতুর শক্তি পরীক্ষা করা হয়েছে। যাতে সেতুর কম্পন বোঝা গিয়েছে। সমস্ত পরীক্ষা শেষ। অনুমতি এসে গিয়েছে রেলেরও। এখন শুধু চালুর অপেক্ষায় মাঝেরহাট ব্রিজ।

Published by:Ananya Chakraborty
First published: