• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • Local Train in West Bengal: দীর্ঘ অপেক্ষার পর চালু লোকাল ট্রেন, দিনবদলের আশায় হাসি এখন ওঁদের মুখেও

Local Train in West Bengal: দীর্ঘ অপেক্ষার পর চালু লোকাল ট্রেন, দিনবদলের আশায় হাসি এখন ওঁদের মুখেও

দিন বদলাবে হকারদের? (প্রতীকী ছবি)

দিন বদলাবে হকারদের? (প্রতীকী ছবি)

Local Train in West Bengal: লোকাল ট্রেন চলতে শুরু করায় হাসি ফুটেছে হকারদের মুখে। দীর্ঘদিন পর দিনবদলের আশায় তাঁরা।

  • Share this:

    #কলকাতা: কোভিড-কালের প্রতিবন্ধকতা কাটিয়ে দীর্ঘ ৫ মাস পর, আজ, রবিবার থেকে বাংলায় শুরু হল লোকাল ট্রেন (Local Train in West Bengal)। কোভিড পরিস্থিতিতে পূর্ব রেল কর্তৃপক্ষ স্পেশ্যাল ট্রেন (Special Train) চালু করেছিল বিভিন্ন শাখায়। আজ রবিবার থেকে পূর্ব নির্ধারিত সময়ে ট্রেন চালু করলেও, সকালে বেশ কিছু নির্ধারিত ট্রেন না চলায় সমস্যায় নিত্যযাত্রীরা। পাশাপাশি উদ্বেগজনক অবস্থায় কোভিড পরিস্থিতি থাকায় ট্রেন যাত্রা যাত্রীদের জন্য কতটা সুরক্ষিত হবে, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন ট্রেন যাত্রীদের একাংশ। তবে রবিবার ছুটির দিন হওয়ায় অন্যান্য দিনের অফিস টাইমের তুলনায় এদিন যাত্রী সংখ্যা কম ট্রেনে। তবে, হাসি ফুটেছে হকারদের মুখে। দীর্ঘদিন পর দিনবদলের আশায় তাঁরা।

    আরও পড়ুন: স্বস্তির জায়গাতেই প্রকট অস্বস্তি, বড় ভাঙন BJP-তে! পুরভোটের আগেই TMC-র উচ্ছ্বাস

    ৫ মাস পর অবশেষে স্বস্তির খবর নিত্যযাত্রীদের জন্য। রেলের তরফে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে ধাপে ধাপে চলবে লোকাল ট্রেন। রাজ্য সরকারের তরফ থেকে লোকাল ট্রেন পরিষেবা স্বাভাবিক করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আর সেই নির্দেশিকার পরেই দক্ষিণ পূর্ব রেলের তরফ থেকে প্রকাশিত হয় বিজ্ঞপ্তি। স্বাভাবিক কারণেই খুশিতে রেলযাত্রীরা। এক নিত্যযাত্রী চামেলি দেবনাথ জানিয়েছেন, ''প্রায় দু বছর পর ঠিকঠাকভাবে বাড়ি থেকে বেরোলাম। নবদ্বীপ যাচ্ছি। খুব ভালো লাগছে লোকাল ট্রেন পরিষেবা চালু হয়েছে বলে। তবে আমরা, যাত্রীদেরই করোনা বিধি মেনে চলতে হবে। না হলে আবার লকডাউন পরিস্থিতি ফিরে আসতে বাধ্য।''

    আরও পড়ুন: BJP-র 'পুরস্কারেও' অনড়, জল্পনা সত্যি করে আজই অভিষেকের হাত ধরে তৃণমূলে রাজীব?

    পঞ্চাশ শতাংশ যাত্রী নিয়ে চলবে লোকাল ট্রেন। কিন্তু করোনা বিধি মেনে কতটা ট্রেন চালানো সম্ভব হবে, তা নিয়ে সন্দিহান অনেকেই। যদিও রাজ্য প্রশাসন ও রেলের তরফে স্পষ্ট করে দেওয়া হয়েছে, সমস্ত বিধি মেনেই চালানো হবে লোকাল ট্রেন। যদিও আজ রবিবার ছুটির দিন এবং লোকাল ট্রেন শুরুর প্রথম দিন হওয়ায় যাত্রী সংখ্যা অনেক জায়গাতেই ছিল কম। এক রেল চালকের কথায়, ''করোনাকে তো জাতীয় বিপর্যয় বলা যায়, সেক্ষেত্রে রাজ্য সরকার ও কেন্দ্র সরকার যেভাবে সমস্ত বিষয়টি নিয়ন্ত্রণ করেছে, তা প্রসংশনীয়। আমরাও চাই ট্রেন চলুক এবং রেলযাত্রীরা পরিষেবা পান।'' লোকাল ট্রেন চালু হওয়ায় পানাগড় স্টেশনে যাত্রীদের মিষ্টি মুখ করান তৃণমূল কর্মী সমর্থকরা।

    আরও পড়ুন: ২০২৪-এ BJP-কে ভোট নয়, অঙ্গীকারবদ্ধ হলেই ফ্রি-তে পেট্রোল! লোন পেতেও সহায়তা

    তবে, সবচেয়ে আনন্দে বোধহয় হকাররা। স্বাভাবিক। দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর ফের তাঁদের জন্য যে খুলে যাচ্ছে আয়ের রাস্তা। অতিমারিতে রেলে হকারদের হকারি করতে কোনও বাধা নেই। কিন্তু করোনা বিধি মেনেই তাঁদের হকারি করতে হবে জানিয়ে দিয়েছে রেল। ট্রেনের অনেক যাত্রীরই অভিযোগ, ট্রেনে যে সব হকাররা উঠছেন, তাঁরা মাস্ক পরছেন না। করোনা-কালের অন্যান্য সতর্কতা বিধিও মানছেন না। সেই বিষয়গুলিও কড়া হাতে সামলাতে চাইছে রেল।

    Published by:Suman Biswas
    First published: