Home /News /kolkata /
Lalbazar Central Lock Up: লালবাজারের সেন্ট্রাল লকআপে চালু হল 'লকার' ব্যবস্থা, নেপথ্যে বড় কারণ!

Lalbazar Central Lock Up: লালবাজারের সেন্ট্রাল লকআপে চালু হল 'লকার' ব্যবস্থা, নেপথ্যে বড় কারণ!

লালবাজারের সেন্ট্রাল লকআপ

লালবাজারের সেন্ট্রাল লকআপ

Lalbazar Central Lock Up: লালবাজারের অন্দরে কান পাতলে এমন বহু তথ্য শোনা যায়। গান স্লোগান এ পর্যন্ত সবই ঠিক ছিল। হঠাৎ করে সপ্তাহ খানেক আগের ঘটনাসূত্রে বদলে গেল সেন্ট্রাল লকআপের নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

  • Share this:

#কলকাতা: বর্তমান সময় হোক বা বিগত সরকারের আমল। শহর কলকাতায় কোনও আইন অমান্য কর্মসূচি হোক বা আন্দোলন, দেখা গিয়েছে এই ধরনের ঘটনায় যাদের ধরপাকড় করে পুলিস, তাদের ঠাঁই হয় লালবাজারের সেন্ট্রাল লকআপ-এ (Lalbazar Central Lock Up)। কিছু সময় সেখানে রাখার পর জামিনে মুক্ত করে দেওয়া হয় তাঁদের। কোনও রাজনৈতিক দলের নেতা কর্মীরা গ্রেফতার বরণ করলে তাদেরও নিয়ে যাওয়া হয় লালবাজারের সেন্ট্রাল লকআপে। প্রায় শোনা যায়, যতটুকু সময় তারা ওই লকআপে থাকেন, কখনও দলীয় স্লোগান কখনও প্রতিবাদী গান গাওয়া হয়। লালবাজারের অন্দরে কান পাতলে এমন বহু তথ্য শোনা যায়। গান স্লোগান এ পর্যন্ত সবই ঠিক ছিল। হঠাৎ করে সপ্তাহ খানেক আগের ঘটনাসূত্রে বদলে গেল সেন্ট্রাল লকআপের নিরাপত্তা ব্যবস্থা। লালবাজার সূত্রে খবর, সেন্ট্রাল লকআপের নজরদারি আরও বাড়ানো হয়েছে। বিশেষ ব্যবস্থা হিসেবে তৈরি করা হয়েছে এবার লকারও।

আরও পড়ুন : ১৫০ টাকায় 'দেড় কেজি' লোভনীয় বিরিয়ানি! মাটন বিরিয়ানি মাত্র ২২০! কলকাতার কোথায় পাবেন? রইল ঠিকানা!

কী হবে এই লকারে? পুলিস সূত্রে খবর, এখন থেকে যে সকল আন্দোলনকারী বা বিক্ষোভে অংশগ্রহণকারীদের গ্রেফতারের পর যখন সেন্ট্রাল লকআপে (Lalbazar Central Lock Up)  আনা হবে, তখন খালি হাতেই তাদের লকআপে ঢোকানো হবে। অর্থাৎ তাদের সঙ্গে থাকা মোবাইল, ব্যাগ সব কিছুই নিয়ে নেওয়া হবে। পরে যখন ছাড়া হবে ফেরত দেওয়া হবে জিনিসগুলো। লালবাজার সূত্রে দাবি করা হয়েছে, মোবাইলগুলি রাখার জন্য এই লকার ব্যবস্থা। আর ব্যাগ ও অন্য সামগ্রি রাখা হবে পাশের স্টোর রুমে।

আরও পড়ুন : কোভিড উদ্বেগে ফের বিমান যাত্রার নিয়ম বদল কেন্দ্রের! করতে হবে Random RT-PCR Test

উল্লেখ্য, সম্প্রতি আন্দোলনরত চাকরিপ্রার্থীদের একাংশকে গ্রেফতার করে আনা হয়েছিল লালবাজারে। পুলিসের তরফে অভিযোগ, এদের মধ্যে কয়েকজন সেন্ট্রাল লকআপে (Lalbazar Central Lock Up) ভিতর থেকে তালা দিয়ে দেন। সেই তালা ভেঙে আন্দোলনকারীদের বার করে আনা হয় বাইরে। সূত্রের খবর, ওই দিনই সিদ্ধান্ত হয় কোনও কিছু নিয়ে আর সেন্ট্রাল লকআপে ঢোকা যাবে না। তাই লকার ব্যবস্থার মাধ্যমে সামান্য হলেও নিরাপত্তায় নজরদারি বাড়িয়েছে কলকাতা পুলিস। এক কর্তা জানিয়েছেন, এই নয়া নিয়মের মধ্যে পড়বেন রাজনৈতিক নেতারাও।

Published by:Sanjukta Sarkar
First published:

Tags: Kolkata Police, Lalbazar

পরবর্তী খবর