Home /News /kolkata /
Chinese App: সাইবার ক্রাইমে জেরবার কলকাতার নাগরিকরা, খোদ পুলিশ কমিশনার দিলেন সতর্কবার্তা

Chinese App: সাইবার ক্রাইমে জেরবার কলকাতার নাগরিকরা, খোদ পুলিশ কমিশনার দিলেন সতর্কবার্তা

aware common people from chinese app

aware common people from chinese app

চিনা অ্যাপ নিয়ে এবার সচেতন করলেন কলকাতার পুলিশ কমিশনার 

  • Share this:

#কলকাতা: কখনও লোনের প্রলোভন দেখিয়ে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার মত অভিযোগ, কখনও আবার হুমকি দিচ্ছেন কোন অচেনা ব্যক্তি আর তাতেই হুহু করে টাকা ফাঁকা হচ্ছে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট৷  অনেক সময় পাসওয়ার্ডের নাম করে পিন নিয়ে প্রতারণা বা বিদ্যুৎতের বিল মেটানোর নামে একটি লিঙ্কে ক্লিক করে অ্যাকাউন্টের সব টাকাই হারানো উদাহরণও এখন ভুড়িভুড়ি৷ কলকাতায় এভাবে রোজই প্রতারণা হয়েই চলেছে৷

এবার প্রতারণার নয়া সংযোজন চিনা অ্যাপ। এই অ্যাপের মাধ্যমে ভয়াবহ অভিজ্ঞতার বিবরণ দিচ্ছেন  কলকাতারই বাসিন্দারই। মূলত কম সময়ে কম টাকার লোনের প্রলোভন দেখানো হচ্ছে, এভাবেই প্রথমে ফাঁদে ফেলছে প্রতারকরা। সেই ফাঁদে পা দিলে টাকা তো মিলছে কিন্তু চাওয়া টাকার মূল্যের অর্ধেক টাকা মিলছে। কেন তা জানতে চাইলে বলা হয় সার্ভিসিং চার্জের জন্য কাটা হয়েছে বাকি টাকা। এদিকে নিদিষ্ট সময়ের মধ্যে টাকা দাও বা না দেওয়া হোক, শুরু হচ্ছে অন্য জঘন্য খেলা৷  মোবাইল ফোনে থাকা অন্য ব্যক্তিদের মোবাইল নম্বরে থেকে চাওয়া হচ্ছে টাকা৷  না দিলে দেওয়া হচ্ছে হুমকি।

আরও পড়ুন - Virat Kohli: সমালোচনায় ক্ষতবিক্ষত বিরাট কোহলি, পাশে দাঁড়াল ‘চিরশত্রু’ প্রতিপক্ষের তারকা

অনেক সময় ওই লোন নেওয়া ব্যাক্তির ছবি নোংরা ভাবে ব্যবহার করে পাঠানো হবে পরিচিত ব্যাক্তিদের এই হুমকিও দেওয়া হচ্ছে। শুধু বাড়তি টাকা দেওয়ার জন্য হুমকি নয়, নোংরা ছবির ভয় দেখিয়ে বেশি বেশি টাকা চাওয়াই হচ্ছে প্রতারকদের প্রধান কাজ। একইভাবে CESC-র বিল না মেটালে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হবে, এই কথা বলে একটি লিঙ্কের মাধ্যমে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগও দায়ের হয়েছে লালবাজারের সাইবার থানায়।

আরও পড়ুন - Skin Care Tips: অতিরিক্ত আর্দ্রতায় ত্বকের দফারফা, ঘাবড়াও মত! এই পদ্ধতিতে ফিরবে জেল্লা

বৃহস্পতিবার কলকাতা পুলিশের কমিশনার বিনীত গোয়েল সাংবাদিক সম্মেলন করে এই প্রতারকদের থেকে বাঁচতে কি করণীয় তা জানালেন। তিনি বলেন  এই সমস্ত লিঙ্কগুলিতে কোনওভাবেই ক্লিক করবেন না৷  মূলত নেপাল, তামিলনাড়ু, মহারাষ্ট্র সহ বেশ কিছু জায়গা থেকে এই প্রতারণার ছক তৈরি করা হচ্ছে।

কলকাতায় লাগাতার ভুয়ো কল সেন্টারের ধড়পাকড় চলছে। এখনও পর্যন্ত ১৬ টি ভুয়ো কল সেন্টারের ৯৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে গত দুই থেকে তিন মাসে এই চিনা অ্যাপের মাধ্যমে প্রতারণার প্রবনতা বেড়েছে যা চিন্তা বাড়িয়েছে লালবাজারের কর্তাদের।

Susovan Bhattacharjee
Published by:Debalina Datta
First published:

Tags: Chinese app, Kolkata Police

পরবর্তী খবর