Home /News /kolkata /
Graduation Online Admission Centrally: স্নাতকে চলতি শিক্ষাবর্ষ থেকে কেন্দ্রীয়ভাবে অনলাইনে ভর্তি, বাদ যাদবপুর, প্রেসিডেন্সি

Graduation Online Admission Centrally: স্নাতকে চলতি শিক্ষাবর্ষ থেকে কেন্দ্রীয়ভাবে অনলাইনে ভর্তি, বাদ যাদবপুর, প্রেসিডেন্সি

আজ শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু উপাচার্যদের নিয়ে বৈঠক করেন। সেই বৈঠকেই মূলত স্নাতক স্তরে কেন্দ্রীয়ভাবে অনলাইনে ভর্তি কীভাবে হবে, তা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়।

  • Share this:

#কলকাতা: চলতি শিক্ষাবর্ষ থেকেই রাজ্য চায় স্নাতকে কেন্দ্রীয়ভাবে অনলাইনে ভর্তি প্রক্রিয়া করতে। ভর্তিতে স্বচ্ছতা বজায় রাখতেই রাজ্যের তরফে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। কিন্তু সেই কেন্দ্রীয়ভাবে অনলাইনে ভর্তি প্রক্রিয়া থেকে বাদ রাখা হচ্ছে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় কে। বাদ থাকছে প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ও। নতুন এই দুই বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র ভর্তির জন্য যেহেতু পরীক্ষা নেয় তাই এই বিশ্ববিদ্যালয়গুলিকে বাদ রাখা হচ্ছে বলে উচ্চ শিক্ষা দফতর সূত্রে খবর।

পাশাপশি সেন্ট জেভিয়ার্স ও রামকৃষ্ণ মিশনকেও বাদ রাখা হচ্ছে এই প্রক্রিয়া থেকে। যেহেতু এই কলেজগুলি ছাত্র ভর্তির জন্য আলাদা করে পরীক্ষা নেয়, তাই এদেরকে এই আওতার বাইরে রাখা হচ্ছে। তবে এদিনের বৈঠক শেষে শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু বলেন "চলতি শিক্ষাবর্ষ থেকে কেন্দ্রীয়ভাবে অনলাইনে ভর্তি শুরু করার ইচ্ছে রয়েছে। একটি পোর্টাল থাকবে। সেই পোর্টালের মাধ্যমে ছাত্রছাত্রীরা তাদের বিশ্ববিদ্যালয় পছন্দ করে নিতে পারবে।" তবে গোটা বিষয়টি নিয়ে এখনও উচ্চশিক্ষা দফতরও  কাজ করছে বলেই এই দিনের বৈঠকে শিক্ষামন্ত্রী জানান উপাচার্যদের। যদিও যাদবপুর, প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়কে এর আওতার বাইরে রাখা নিয়েও শিক্ষকদের একাংশ প্রশ্ন তুলছে। তবে এই বিষয় নিয়ে যাদবপুর, প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

উচ্চ শিক্ষা দফতরের আধিকারিকদের মতে যেহুতু এগুলি স্ব-শাসিত বিশ্ববিদ্যালয় এবং নিজেরাই নিজেদের মত পরীক্ষা পরিচালনা করে তাই এই দুই বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয়ভাবে অনলাইন ভর্তি প্রক্রিয়ায় আওতার বাইরে রাখা হচ্ছে। অন্যদিকে এদিনের বৈঠক শেষে শিক্ষা মন্ত্রী কলেজের ফেস্ট নিয়েও কড়া মনোভাব নেন। তিনি বলেন "এরপর কলেজের ফেস্ট হলে তার দফতরের সঙ্গে আলোচনা করে করা যায় সেই বিষয় ভাবনা চিন্তা করছে রাজ্য।" অন্যদিকে উচ্চশিক্ষা দফতর ও ছাত্র সংসদ নির্বাচনে করাতে চায় সেই ব্যাপারে খানিকটা ইঙ্গিত এদিন দেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু। তিনি বলেন "নবান্নের তরফে সবুজ সঙ্কেত পেলেই ছাত্র সংসদ নির্বাচন হবে। রাজ্য ছাত্র সংসদ নির্বাচনের পক্ষেই।"

প্রসঙ্গত উল্টোডাঙ্গা গুরুদাস কলেজ-এর ফেস্টকে কেন্দ্র করে সম্প্রতি বিতর্ক শুরু হয়েছে। ছাত্র সংসদ ছাড়াই কীভাবে এত টাকার অনুমোদন নিয়ে সংসদ পোস্ট করলেও তা নিয়ে শুরু হয়েছে চাপানউতোর। যদিও গোটা বিষয়টি তৃণমূল কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্বের নজরে এসেছে বলেও সূত্রের খবর।

SOMRAJ BANDOPADHYAY

সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায়

Published by:Rukmini Mazumder
First published:

Tags: Graduation Online Admission Centrally

পরবর্তী খবর