‘আমি সংবিধান বিরোধী নই, আশা করি রাজ্য বুঝেছে আমাকে’: রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়

‘আমি সংবিধান বিরোধী নই, আশা করি রাজ্য বুঝেছে আমাকে’: রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়

সেন্ট জেভিয়ার্স বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠা দিবসের অনুষ্ঠানে গিয়ে কার্যত রাজ্যকে ফের খোঁচা রাজ্যপালের৷এস সি এস টি বিল নিয়ে ও জট খোলার সম্ভাবনা। সোমবার মুখ্য সচিবের সঙ্গে আলোচনাতেও বসতে চলেছেন রাজ্যপাল।

  • Share this:

#কলকাতা: শুক্রবার বিধানসভায় দাঁড়িয়ে রাজ্যের দেওয়া ভাষণ পাঠ করলেও তিনি যে নিজের অবস্থান থেকে সরছেন না শনিবার তা ফের স্পষ্ট করলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। সেন্ট জেভিয়ার্স বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠা দিবসের অনুষ্ঠানে গিয়ে কার্যত রাজ্যকে ফের খোঁচা রাজ্যপালের। বিধানসভাতে দেওয়া ভাষণ এর ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই রাজ্যের কাছে দেওয়া আপত্তির অংশ নিয়ে মুখ খুললেন রাজ্যপালই। তিনি বলেন, "রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা, বরাদ্দ অর্থের সঠিক ব্যবহার ও আমলাদের রাজনীতিকরণ নিয়ে আপত্তির কথা সরকারকে জানিয়েছি। আপত্তিগুলো নিয়ে সরকার উদ্যোগ নেবে আশা রাখি।"

রাজ্যের প্রস্তাবিত বাজেটের খসড়ার কিছুুু অংশ নিয়ে রাজ্যকে আপত্তির কথা জানিয়েছিল রাজ্যপাল। যদিও রাজ্য রাজ্যপালের দেওয়া প্রস্তাব খারিজ করে জানিয়ে দিয়েছিল রাজ্যের দেওয়া ভাষণই চূড়ান্ত। যদিও শেষ পর্যন্ত ভাষণের বাইরে বলার কিছু আগ্রহ প্রকাশ করলেও তা শেষ পর্যন্ত করেননি রাজ্যপাল। যদিও তার স্বপক্ষে সংবিধান মেনেই কাজ করার কথা উল্লেখ করেন তিনি। আর তার ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই ফের সরব হলেন রাজ্যপাল। শনিবার নিউটাউনে এক অনুষ্ঠানে যোগ দিতে এসে রাজ্যের কাছে দেওয়া আপত্তির প্রসঙ্গ নিয়ে নীরবতা ভাঙেন রাজ্যপাল। তিনি বলেন, "আমলাদের রাজনীতিকরণ নিয়ে আপত্তি জানিয়েছি। বিশ্ববিদ্যালয় ও আইনশৃঙ্খলা নিয়ে রাজ্যকে পরামর্শ দিয়েছি। বরাদ্দ অর্থের সঠিক ব্যবহার নিয়েও বলেছি। আমার আশা রাজ্য আমার প্রস্তাব আলোচনা করবে।"

তবে তিনি রাজ্যের সঙ্গে কোনো রকম বিরোধে যেতে চান না বলেও এদিন স্পষ্ট করেন। তিনি বলেন, "রাজ্যপাল সংবিধান বিরোধী নয়। আশাকরি রাজ্য বুঝেছেে আমাকে।" তিনি এদিন কেন্দ্র ও রাজ্যের মধ্যে সুসম্পর্ক বজায় রাখার উপরে ও জোর দেন। এদিকে আগামী ১০ই ফেব্রুয়ারি এস সি ও এস টি  মুখ্য সচিবের সঙ্গে আলোচনায় বসতে চলেছেন রাজ্যপাল। রাজভবন সূত্রে খবর, রাজ্যের তরফে দেওয়া ব্যাখায় সন্তুষ্ট হলে ওই দিনই এসসি এসটি বিলে অনুমোদন দিতে পারেন রাজ্যপাল।

SOMRAJ BANDOPADHYAY

First published: February 8, 2020, 9:13 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर