ভরা শ্রাবণেই ডারউইন ও তাইওয়ানে পাড়ি দিচ্ছে কুমোরটুলির দুর্গাপ্রতিমা

ভরা শ্রাবণেই ডারউইন ও তাইওয়ানে পাড়ি দিচ্ছে কুমোরটুলির দুর্গাপ্রতিমা
ফাইবারের প্রতিমা যাচ্ছে ডারউইনে ৷ ছবি: সৌরভ সাহা ৷

  • Share this:

    #কলকাতা: সারাদিন ধরে প্যাচপ্যাচে বৃষ্টি থেকে খানিক স্বস্তি ৷ সকাল গড়িয়ে দিনটা দুপুরে রং নিতেই ঝকঝকে সোনালি রোদ ৷ নীল আকাশের কোলে পেজা তুলোর আনাগোনা ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে ৷ এখনও বর্ষারানি বিদায় নেয়নি, তার আগেই শরতে ছোঁয়া মিশেছে প্রকৃতির রং-রূপে ৷ পুজো পুজো আমেজ সেভাবে শুরু না হলেও, কুমোরটুলিতে কিন্তু প্রস্তুতি তুঙ্গে ৷ বাঁশ পড়েছে কলকাতার বিভিন্ন বড় পুজো মণ্ডপে ৷ আবার কোথাও সবে পুজোর প্ল্যানিং ঝালিয়ে নেওয়ার ফাইনাল টাচ চলছে ৷

    পুজো আসতে এখনও দু’মাস বাকি ৷ পুজো নিয়ে ব্যস্ততা এখনও সেভাবে শুরু হয়নি ৷ তবে, মা দুর্গা তাঁর ছেলেপুলেকে নিয়ে তৈরি ৷ রওনা দেবেন বিদেশে ৷ প্রতিমা শিল্পী কৌশিক ঘোষ এবং তাঁর সহযোগী কারিগরদের হাতের নিপুণ ছোঁয়ায় রূপ পেয়েছে ফাইবারের দুর্গা প্রতিমা ৷ সঙ্গে রয়েছেন লক্ষ্মী, সরস্বতী, গণেশ ও কার্তিকও ৷ গত কয়েক মাসের অক্লান্ত পরিশ্রমে দুর্গা প্রতিমা অপরূপ রূপে সাজিয়ে তুলেছেন কৌশিকবাবু ৷


    তিনি জানালেন, এই মুহূর্তে তাঁর স্টুডিওতে এক্কেবারে প্রস্তুত রয়েছে দু’টি দুর্গা প্রতিমা ৷ একটি প্রতিমা যাচ্ছে ডারউইনে ৷ অন্যটি যাচ্ছে তাইওয়ানে ৷ এবারই তাইওয়ানের কয়েক ঘর বাঙালি দুর্গাপুজো শুরু করতে চলেছন ৷ এর আগে তাঁরা পুজো করতেন ফটোতেই ৷ এবার তাঁরা মনস্থির করেন যে প্রতিমাতেই পুজো হবে ৷ সেই কারণেই যোগাযোগ করা হয় কুমোরটুলিতে ৷

    22

    ফাইবারের এই প্রতিমা যাচ্ছে তাইওয়ানে ৷ ছবি: সৌরভ সাহা ৷

    বিদেশের মাটিতে পুজো একটা অন্যরকম বিষয় ৷ শিল্পী আরও জানালেন, কলকাতার মতো জাঁকের সঙ্গে সেখানে হয়তো দুর্গাপুজো হয় না ৷ তবে ওখানে রয়েছে আন্তরিকতার ছোঁয়া ৷ পুজোর কটাদিন একসঙ্গে মায়ের পুজোয় ব্রতী হওয়া, একসঙ্গে পাত পেড়ে ভোগ আর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, এক্কেবারে ঘরোয়া পরিবেশে পুজোতে মেতে ওঠেন প্রবাসী বাঙালিরা ৷ আর সেই কারণে তাঁরা বরাবরই সনাতনী দুর্গামূর্তিকেই প্রাধান্য দিয়ে আসেন ৷ যেহেতু এতটা পথ পাড়ি দেয় দুর্গামূর্তি, সেই কারণে ওজন যতোটা সম্ভব কম করা হয় ৷ একচালার দুর্গামূর্তিটির ওজন ২০ থেকে ২৫ কিলোগ্রাম ৷ এরপর প্রতিমাগুলিকে বাক্সবন্দি করলে আরও কিছুটা ওজন বাড়ে ৷ তবে, ফাইবারের প্রতিমার সুবিধে প্রচুর ৷ ওজন মাটি দিয়ে তৈরি প্রতিমার মতো ওতোটা বেশি নয় ৷ সেই কারণে এ দেশ থেকে বিদেশে নিয়ে যেতে বেশ সুবিধে ৷ একই সঙ্গে রংও বেশ কয়েকবছর একইরকম রাখা যায় ৷

    23

    চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি ৷ ছবি: সৌরভ সাহা ৷

    তবে, এই বছরই আরও কয়েকটি দেশে পাড়ি দিয়েছে দেবীপ্রতিমা ৷ বিদেশে মাটিতে পুজো উদ্যোক্তারা আগেভাগেই দেবীপ্রতিমাকে নিয়ে গিয়েছেন ৷ শেষ মুহূর্তে যাতে কোনপ্রকার অসুবিধে না হয় ৷ সেই কারণেই এতোটা তৎপরতা ৷

    ভিডিও : সৌরভ সাহা ৷

    First published: