কলকাতায় নিয়ন্ত্রণে ডেঙ্গি, লার্ভা খুঁজতে ব্যবহার করা হচ্ছে ড্রোন

কলকাতায় নিয়ন্ত্রণে ডেঙ্গি, লার্ভা খুঁজতে ব্যবহার করা হচ্ছে ড্রোন

বর্ষার পরেও শক্তিশালী এডিস ইজিপ্টাই। চিকিৎসকদের আশঙ্কা ছিল, বুলবুল চলে গেলে প্রভাব বাড়াবে ডেঙ্গির মশা। তাদের আশঙ্কাই সত্যি হল।

  • Share this:

#কলকাতা: দিনে নয়, রাতেও দাপট ডেঙ্গি মশাদের। দাবি চিকিৎসকদের। যার জেরে বাড়ছে মৃত্যুও। শহরে এখনও পর্যন্ত ছ'জনের মৃত্যু হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে কলকাতা পুরসভার ডেপুটি মেয়র অতীন ঘোষের দাবি, সার্বিক ভাবে ডেঙ্গি নিয়ন্ত্রণে। লার্ভা খুঁজতে এবার ড্রোনের সাহায্য নিচ্ছে পুরসভা।

বর্ষার পরেও শক্তিশালী এডিস ইজিপ্টাই। চিকিৎসকদের আশঙ্কা ছিল, বুলবুল চলে গেলে প্রভাব বাড়াবে ডেঙ্গির মশা। তাদের আশঙ্কাই সত্যি হল। ফলে শহরে দিনে দিনে বাড়ছে ডেঙ্গি আক্রান্তের সংখ্যা। ভরছে সরকারি, বেসরকারি হাসপাতাল। যদিও পুরসভার দাবি, এই বছর কলকাতায় ডেঙ্গি আক্রান্তের সংখ্যা অনেক কম। এখনও পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ৩২৬০ জন। ইতিমধ্যেই ৩টি বরোর ১২টি ওয়ার্ডকে ডেঙ্গি প্রবণ বলে চিহ্নিত করা হয়েছে। চিহ্নিত হয়েছে ৭, ১০ এবং ১৩ নম্বর বরো। এরমধ্যে ১০ নম্বর বরোর আটটি ওয়ার্ডে সবচেয়ে বেশি ডেঙ্গি আক্রান্তের সংখ্যা।

ট্যাংরার পূর্বাঞ্চল। কলকাতা পুরসভার ৫৮ নম্বর ওয়ার্ড। গোবিন্দ খটিক রোডের একটু ভিতরে এই পুকুর। নিউজ এইটিন বাংলার ক্যামেরায় ধরা পড়ল নোংরায় ভরা পুকুর। এই পুকুর পাড়ের আশপাশের বাড়িতে রয়েছেন ডেঙ্গি আক্রান্তরা।

First published: 05:07:13 PM Nov 19, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर