Home /News /kolkata /
Cow Smuggling Case: মাথায় 'গুরু' এনামুলের হাত, সরকারি চাকরির সুযোগ ছেড়ে গরুপাচারে আব্দুল লতিফ?

Cow Smuggling Case: মাথায় 'গুরু' এনামুলের হাত, সরকারি চাকরির সুযোগ ছেড়ে গরুপাচারে আব্দুল লতিফ?

গরুপাচারে আব্দুল লতিফ

গরুপাচারে আব্দুল লতিফ

Cow Smuggling Case: ২০১৩ সালে লতিফের পরিচয় হয় আন্তজাতিক গরুপাচারের কিংপিং এনামুল হকের সঙ্গে। অভিযোগ, তারপরই শুরু হয় বিভিন্ন প্রভাবশালীদের সঙ্গে পরিচয়, ওঠা বসা, যার মধ্যে অনুব্রত অন্যতম।

  • Share this:

    #কলকাতা: বাবা ছিলেন কৃষি দফতরের কর্মী। সেই বেতন দিয়ে কোনও রকম চলত সংসার। হঠাৎ কর্মরত অবস্থায় মৃত্যু হয় বাবার, তারপর তার কাছে আসে কাজের সুযোগ, কিন্তু সরকারি চাকরিতে যোগ দেয়নি আব্দুল লতিফ। অভিযোগ, একপ্রকার সরকারি চাকরিকে না করেই তার মন চলে যায় গরু পাচার কারবাড়ির দিকে। মাথায় 'গুরু' এনামুলের হাত, ইলামবাজারের গরু হাটের খড় বিক্রেতা ধীরে ধীরে হয়ে ওঠে ওই গরু হাটের পাশাপাশি আরও বিভিন্ন গরু হাটের বাদশাহ।

    ২০১৩ সালে লতিফের পরিচয় হয় আন্তজাতিক গরুপাচারের কিংপিং এনামুল হকের সঙ্গে। অভিযোগ, তারপরই শুরু হয় বিভিন্ন প্রভাবশালীদের সঙ্গে পরিচয়, ওঠা বসা, যার মধ্যে অনুব্রত অন্যতম। কার্যত ২০১৩ সালের পর থেকেই পাল্টে যায় আব্দুল লতিফের লাইফস্টাইল। বোলপুরে রয়েছে তার মার্বেলের দোকান ,বিলাস বহুল বাড়ি, নামি দামি গাড়ি, এক কথায় সফল ব্যাবসায়ী হিসেবে পরিচিতি পেতে শুরু করে আব্দুল লতিফ।

    আরও পড়ুন : ৫৪৮ থেকে ৫৩৫! সামান্য কমলেও ডেঙ্গি সংক্রমণ নিয়ে উদ্বেগে নবান্ন

    গোয়েন্দা সূত্রে জানা গিয়েছে যে, আব্দুল লতিফের কাজ ছিল ইলামবাজার-সহ বিভিন্ন গরু হাটগুলোতে তার দখলে নেওয়া। এই হাটগুলি থেকে উন্নত মানের গরু কেনা কম দামে এবং সেটি বাংলাদেশে পাচার করার করিডোর অবধি পৌঁছে দেওয়া। বিভিন্ন গরু হাট গুলিতে ছোট মাফিয়াদের সাথে সেটিং করত এনামুল , সেটিং করার পরে গরু হাট গুলো চলে যেত লতিফের কব্জায়। গরু হাটের বিষয়ে এনামুলের সবথেকে বিশ্বস্ত ছিল এই আব্দুল লতিফ।'

    সৌরভ তিওয়ারি
    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published:

    Tags: Cow Smuggling

    পরবর্তী খবর