করোনা আতঙ্কে শহরে বন্ধ একাধিক সুইমিং পুল ও জিম

করোনা আতঙ্কে শহরে বন্ধ একাধিক সুইমিং পুল ও জিম
  • Share this:

#কলকাতা: দেশে যত বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা, ততই বাড়ছে আতঙ্কও। প্রশাসন জানাচ্ছে, এখনই এ রাজ্যে উদ্বেগের কিছু নেই। তবে কিভাবে এই ভাইরাসের আক্রমণ থেকে দূরে থাকবেন সে বিষয়ে সচেতন থাকতে হবে। ইতিমধ্যেই রাজ্য সরকার স্কুলগুলিতে ছুটি ঘোষণা করেছে। আতঙ্কের জেরেই রবিবার থেকে কলকাতা জাদুঘর, সায়েন্স সিটি, বিড়লা মিউজিয়াম বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এবার এর সঙ্গে নতুন সংযোজন সুইমিংপুল। রাজ্য সরকার স্কুলগুলিতে ছুটি ঘোষণার পর থেকেই কলকাতার একাধিক সুইমিং পুল, জিম সেন্টার গুলিও অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ করে দেওয়ার নোটিশ জারি করেছে। নোটিশে স্পষ্ট বলা হচ্ছে, ভাইরাসের আক্রমণ ঠেকাতে আগাম সচেতনতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা। ১৫ মার্চ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত আপাতত বন্ধ থাকবে সুইমিংপুল, জিম সেন্টার গুলি। পরবর্তীতে সরকার কি সিদ্ধান্ত নেবে তার ওপরে নির্ভর করবে ৩১ মার্চের পরে এই জায়গা গুলি খুলবে কিনা। ভবানীপুর সুইমিং অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক উজ্জ্বল কুমার বসু জানিয়েছেন, প্রশাসনিক নির্দেশ আসার পরই তড়িঘড়ি তারা বৈঠক করে এই সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হন। তাদের সুইমিংপুলে সব মিলিয়ে প্রায় ৬০০ জন সাঁতার শেখে। তাদের প্রত্যেককেই এই সিদ্ধান্তের ব্যাপারে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। শুধু সাঁতার নয় বন্ধ। ৩১ মার্চ অবধি বন্ধ রাখা হয়েছে তাদের টেবিল টেনিস এবং জিম সেন্টারও।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এবং চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন, শরীরের সংস্পর্শে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। তাই সাঁতার শিখতে গেলে একসাথে প্রায় ১৫০-২০০জন এক জায়গায় সাঁতার কাটে। সে সময় তাদের মধ্যে সংস্পর্শ হওয়াটাই স্বাভাবিক। তাই আপাতত সমস্ত রকমের স্পোর্টস অ্যাকটিভিটি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। উজ্জ্বলবাবুর কথায়, "আগাম সতর্কতা মূলক ব্যবস্থা হিসেবে আমরা এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। মানুষের কথা ভেবেই এটা করা হল।"

SUJAY PAL

First published: March 15, 2020, 5:14 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर