corona virus btn
corona virus btn
Loading

সিবিআইয়ের চাপ-কৌশল, রাজীব কুমারকে আপাতত গ্রেফতার নয়, সিবিআই চায় জিজ্ঞাসাবাদ করতে

সিবিআইয়ের চাপ-কৌশল, রাজীব কুমারকে আপাতত গ্রেফতার নয়, সিবিআই চায় জিজ্ঞাসাবাদ করতে
  • Share this:

#কলকাতা: রাজীব কুমারকে গ্রেফতারে কোনও আইনি বাধা নেই। তবু তাঁকে গ্রেফতার করল না কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা। তাদের অস্ত্র এখন চাপ-কৌশল। সারদা তদন্তে চাপ বাড়াতে নোটিস দিয়ে রাজীব কুমারকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডেকে পাঠাল সিবিআই। পালটা আজ ফের বারাসত আদালতে আগাম জামিনের আরজি জানাতে চলেছেন কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার। সারদা মামলায় রাজীব কুমারকে গ্রেফতার না করার যে রক্ষাকবচ শীর্ষ আদালত দিয়েছিল, তার মেয়াদ শেষ হয় ২৪ মে। গ্রেফতারের এমন ছাড়পত্র পাওয়ার পরেও সিবিআই কিন্তু সেই পথে হাঁটল না। রবিবার দুপুরে সিজিও কমপ্লেক্সে কয়েক দফায় বৈঠকের পর সন্ধেয় রাজীব কুমারের পার্ক স্ট্রিটের বাড়ি যায় সিবিআই। সরদা তদন্তে জিজ্ঞাসাবাবাদের জন্য নোটিস দিয়ে চলে আসেন সিবিআই আধিকারিকরা। সিবিআইয়ের এই পদক্ষেপকে চাপ তৈরির কৌশল বলেই মনে করা হচ্ছে।

রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে সারদা মামলায় ষড়যন্ত্র করে তথ্যপ্রমাণ নষ্টের মতো অভিযোগকে হাতিয়ার করেছে সিবিআই। কিন্তু, এই মামলার চার্জশিটে ২০১ ধারায় তথ্যপ্রমাণ নষ্টের কোনও উল্লেখ নেই। বিশেষজ্ঞদের মতে, অপরাধ হওয়ার আগে থেকে কেউ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকলে তবেই তাঁর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ তোলা যায়। রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে তা প্রমাণ করা কঠিন। এই পরিস্থিতিতে তাই কৌশলে চাপই বাড়াতে চাইছে সিবিআই।
রাজীব কুমারকে গ্রেফতার করলে আদালতে সিবিআইকে কারণ দেখাতে হবে। রাজীব কুমারকে কেন গ্রেফতার করা হল তা নিয়ে জবাবদিহি করতে হবে। উপযুক্ত তথ্যপ্রমাণ তুলে ধরতে না পারলে মুখ পুড়বে সিবিআইয়ের। এখনই সেই ঝুঁকি তারা নিতে চাইছে না। আপাতত, সিবিআই চাইছে দুঁদে আইপিএস অফিসার রাজীব কুমারকে আরও জিজ্ঞাবাসাদ করতে। কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনারের উত্তরে সন্তুষ্ট না হলে তখন তাঁকে গ্রেফতারের কথা ভাবতে পারে সিবিআই। সেই মতো, রবিবার, রাজীব কুমারের বাড়িতে গিয়ে তারা নোটিস দিয়ে চলে আসে। এর আগে, সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে, শিলঙে রাজীব কুমারকে জিঞ্জাসাবাদ করেন সিবিআই আধিকারিকরা। পালটা কৌশল হিসেবে রাজীব কুমার ফের আদালতে আগাম জামিনের আরজি জানাতে পারেন। গ্রীষ্মকালীন অবকাশ শুরু হলেও, বিশেষ বেঞ্চে আরজি জানাতে পারেন রাজীব কুমার।

First published: May 27, 2019, 12:47 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर