নিয়ম কড়া হলেও ক্লাব-অভিভাবকের কাছে সততার অনুরোধ সিএবি-র

রুলবুক থাকলেও হাত পা বাঁধা। স্বীকারোক্তি সিএবি সচিবের।

Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:Dec 03, 2016 08:50 AM IST
নিয়ম কড়া হলেও ক্লাব-অভিভাবকের কাছে সততার অনুরোধ সিএবি-র
Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:Dec 03, 2016 08:50 AM IST

#কলকাতা: সেকেন্ড ডিভিশনে নো-এন্ট্রি। প্রথম ডিভিশনে তিন। আর ছোটদের ক্রিকেটে বহিরাগত খেলিয়ে ধরা পড়লেই সাসপেন্ড। হাতে কড়া রুলবুক। তবু কেন ঠুঁটো সিএবি?

বহিরাগত খেলালে বহিস্কার। দেবাং গান্ধীর নির্দিষ্ট অভিযোগে ভিত্তি করে গতবারই এক কোচিং সেন্টারকে সাসপেন্ড করেছিল সিএবি। কিন্তু তাতেও থামানো যায়নি র‍্যাকেট দৌরাত্ম‍্য। তিন বছর আগেই ক্লাব ক্রিকেটের মান ফেরাতে উদ‍্যোগী হয়েছিল সিএবি। ময়দানে শুধু প্রথম ডিভিশনের ক্লাব ক্রিকেটেই তিন ভিনরাজ‍্যের ক্রিকেটারকে খেলানোর ছাড়পত্র আছে। কিন্তু জুনিয়র বা সাব-জুনিয়রে ? প্রতিবারই আসে ভুরি ভুরি অভিযোগ। গোড়ায় গলদের কথা মেনে নিচ্ছেন স্বয়ং সিএবি-র সচিব সুবীর গঙ্গোপাধ্যায়।

নিয়ম আছে তিন বছর সাসপেনশনের। দরকারে শাস্তি বাড়িয়ে ৫ বছর করার কথাও ভাবছে সিএবি। কিন্তু ঠগ বাছতে যেখানে গা উজাড়, সেখানে লিখিত অভিযোগ পাওয়াই মস্ত সমস‍্যা।

রুলবুক থাকলেও হাত পা বাঁধা। স্বীকারোক্তি সিএবি সচিবের। গলায় আক্ষেপ, সততা চাই অভিভাবক, ক্লাব, স্কুল, কোচিং সেন্টারের তরফে।

First published: 08:50:18 AM Dec 03, 2016
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर