• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • BUILDING COLLAPSED AND AGED WOMAN DIED IN KOLKATA KAUREA POLICE STATION DD

ঘর থেকে বেরিয়েছিলেন স্বামী ও ছেলে, হঠাৎ বিকট শব্দ, কাকীমার আর্ত চিৎকার, তারপর...

Building collapsed and aged woman died in Kolkata Kaurea police station

কড়েয়ায় বাড়ির ছাদ ভেঙে মৃত্যু প্রৌঢ়ার, আতঙ্কে পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা...

  • Share this:

    #কলকাতা: বিপজ্জনক বাড়ির ছাদ ভেঙে মৃত্যু ঘটনা কড়েয়া থানা এলাকায়। ৩৮/সি বন্ডেল রোডে রবিবার দুপুরে হঠাৎ ভেঙে পড়ে একটি বাড়ির ছাদ। সেই সময় ঘরে ছিলেন যশবিন্দর কৌর নামে বছর পঞ্চাশের এক প্রৌঢ়া। ধ্বংসস্তূপের নিচে আটকে পড়েন তিনি। পাশের ঘরে ঘুমিয়ে ছিলেন এক আত্মীয়। বিকট শব্দ শুনে তিনি বেরিয়ে দেখেন যে তাঁর কাকীমা যশবিন্দর চিৎকার করছেন। তিনি জানান, ‘‘শব্দ শুনে বেরিয়ে দেখি কাকাদের ঘরের ছাদ পুরো পড়ে গিয়েছে।’’ এরপর তিনি ও প্রতিবেশীরা ধ্বংসস্তূপের নিচে থেকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ওই প্রৌঢ়াকে উদ্ধার করেন।

    তাঁদের দাবি, এসএসকেএম নিয়ে যাওয়ার পথে মারা যান যশবন্দির। নিহত মহিলার স্বামী রোশন কৌর জানিয়েছেন, ঘটনার কিছুক্ষণ আগেই ঘর থেকে তিনি ও তাঁর ছেলে বাইরে বেরিয়েছিলেন। স্ত্রীর মৃত্যুর খবরে কান্নায় ভেঙে পড়েন তিনি। এক প্রতিবেশী জানিয়েছেন, পৌনে তিনটে নাগাদ জোর শব্দ পান তিনি। বেরিয়ে দেখেন এই ঘটনা। তিনি আরও জানান, ঘরে সেই সময় একা ছিলেন যশবিন্দর। কাজ করছিলেন। তাঁর ওপরেই ছাদ ভেঙে পড়ে। ওই প্রতিবেশীও উদ্ধার কাজে হাত লাগিয়েছেন। পরিবারের বক্তব্য, তাঁরা কয়েক প্রজন্ম ধরেই ওই বাড়িতে ভাড়া থাকেন। বাড়ির মালিক বছর পনের আগে প্রমোটারকে বাড়ি ও সংলগ্ন জমি বিক্রি করে দিলেও কোনও ফ্ল্যাট তৈরি হয়নি। এই ভাবেই বাড়িটি পড়ে ছিল। তবে দেখে বোঝা যাচ্ছে বাড়িটির কোনও রক্ষণাবেক্ষণ হত না। এমনকি বাড়িটি বিপজ্জনক ঘোষণাও করা হয়েছে কয়েক বছর আগে।

    তা সত্ত্বেও কেন বসবাস করে মানুষ জন, এই প্রশ্নের জবাবে ৬৫ নম্বর ওয়ার্ড কো-অর্ডিনেটর নিবেদিত শর্মা জানিয়েছেন, অনেক বারই ঝড়ের সময় ওই বাড়ির বাসিন্দাদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। বলাও হয়েছিল বাড়িটি খালি করতে। ঘটনার খবর পেয়ে তিনিও আসেন ঘটনাস্থলে। আসে কড়েয়া থানার পুলিস। সিইএসসি-র তরফে বাড়িটিতে গিয়ে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন করা হয়। ঘটনার পর থেকে প্রতিবেশীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়েছে। তবে এই ঘটনার পর কি আদৌ সতর্ক হবেন আত্মীয় ও প্রতিবেশীরা প্রশ্ন থাকছেই। দিন কয়েক আগে ভর দুপুরে বড় বাজারে গুপ্তা ম্যানশনের দোতলা বারান্দার একাংশ ভেঙে পড়েছিল নিচে। ওই দিন বড়সড় দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পেয়েছিলেন অনেকে।

    Amit Sarkar

    Published by:Debalina Datta
    First published: