Home /News /kolkata /
Buddhadeb Bhattacharjee|| কেন্দ্র-রাজ্যকে বিঁধে DYFI সম্মেলনে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের বার্তা, যুব সমাজ পেল অক্সিজেন

Buddhadeb Bhattacharjee|| কেন্দ্র-রাজ্যকে বিঁধে DYFI সম্মেলনে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের বার্তা, যুব সমাজ পেল অক্সিজেন

বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। ফাইল ছবি।

বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। ফাইল ছবি।

Buddhadeb Bhattacharjee, DYFI National Convention: শারিরীক কারণে বাড়ি থেকে বেরোন না তিনি। তবে দলের কর্মীদের কাছে এখনও অক্সিজেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। সে ব্রিগেডের মাঠই হোক কিংবা নির্বাচন। এমনকী সম্মেলনেও প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যের জন্য অপেক্ষা করে থাকে দলের কর্মী সমর্থকেরা।

আরও পড়ুন...
  • Share this:

#কলকাতা: শারিরীক কারণে বাড়ি থেকে বেরোন না তিনি। তবে দলের কর্মীদের কাছে এখনও অক্সিজেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। সে ব্রিগেডের মাঠই হোক কিংবা নির্বাচন। এমনকী সম্মেলনেও প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যের জন্য অপেক্ষা করে থাকে দলের কর্মী সমর্থকেরা। সল্টলেকের ইজেডসিসিতে চলছে ডিওয়াইএফআই-এর সর্বভারতীয় সম্মেলন। সেই সম্মেলনে বার্তা দিয়েছেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। তাঁর পাঠানো বিবৃতি পড়ে শোনানো হয়। তিনি বলেন, "বর্তমানে আমাদের রাজ্যে এবং দেশে যে জনবিরোধী ও দমনপীড়নের সরকার চলছে তা প্রতিহত করতে পারে একমাত্র বামপন্থী আন্দোলন। সেই লক্ষ্যে অবিচল থেকে সমস্ত প্রতিকূলতা অগ্রাহ্য করে পশ্চিমবঙ্গের ডিওয়াইএফআই কর্মীরা রাজ্যের সর্বত্র প্রতিদিন আন্দোলন সংগঠিত করছেন। তাঁদের সংগ্রামকে আমার আন্তরিক অভিনন্দন এবং ডিওয়াইএফআই-এর এই কনফারেন্স এর সমস্ত সদস্যবৃন্দকে আমার আন্তরিক শুভেচ্ছা জানাই।"

আরও পড়ুন: বিয়ার বিক্রিতে সর্বকালীন রেকর্ড! রাজ্যে দিনে কত লক্ষ কেস বিক্রি হচ্ছে জানেন? চমকে উঠবেন...

দীর্ঘ ২৭ বছর পর রাজ্যে ডিওয়াইএফআই-এর সর্বভারতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সারা দেশের প্রায় ৫০০ প্রতিনিধি এসেছে এই সম্মেলনে যোগ দিতে। সাম্প্রদায়িক রাজনীতির বিরুদ্ধে, কর্মসংস্থানের দাবিতে লাগাতার আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে সংগঠনের কর্মী সমর্থকেরা। এ রাজ্যেও আনিসকান্ড, হাঁসকালি সহ বেশকিছু বিষয়ে আন্দোলন করে চলেছে ডিওয়াইএফআই। এবার দেশজুড়ে লাগাতার আন্দোলনের পরিকল্পনা করছে সংগঠনের নেতৃত্ব। সম্মেলন শেষ হলেই সেই আন্দোলনে তাঁরা ঝাঁপাবে বলে সংগঠন সূত্রে খবর। তার আগে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের এই বিবৃতি নেতৃত্বকে আরও চাঙ্গা করবে বলে মনে করছেন রাজনীতির কারবারিদের একাংশ।

আরও পড়ুন: ছেড়ে আসা বাড়িতে পড়ে লক্ষ লক্ষ টাকার সোনা! ঘুম উড়েছে দুর্গা পিতুরি লেনের কারিগরদের

সংগঠনের এক নেতা জানিয়েছেন, "বুদ্ধবাবুর কোনও বক্তব্য আমাদের কর্মী সমর্থকদের মধ্যে উৎসাহ জোগায়। আমরা লাগাতার আন্দোলনের মধ্যে আছি। এই বার্তা সেটা আরও তীব্র করবে।" সম্মেলনে যোগ দিতে আসা এক প্রতিনিধি বলেন, "বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য শুধুমাত্র পশ্চিম বঙ্গের নেতা নন। তিনি দেশের নেতা। আমাদের সবার নেতা। তাঁর এই বক্তব্যে আমরা সবাই খুব আনন্দিত, উৎসাহিত। দেশে মূল্যবৃদ্ধি হয়েই চলেছে। বেকারি বাড়ছে। ওষুধের দামও চলে যাচ্ছে নাগালের বাইরে। আর কেউ প্রতিবাদ করলে তাঁর উপর নেমে আসছে আক্রমন। এরই বিরুদ্ধে আগামিদিনে আমরা অনেক বড় আন্দোলনে যাচ্ছি। বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের এই বক্তব্যকে সামনে নিয়ে আমরা এগিয়ে চলব।"

এ দিন বুদ্ধবাবুর বিবৃতি প্রসঙ্গে কুনাল ঘোষ বলেন, "বুদ্ধ বাবু  ভাল থাকুন। সুস্থ থাকুন। ঘরে বসে বিবৃতি দেওয়া সহজ। নতুন প্রজন্মকে হাল ধরতে বলছেন, আর আপনারা কম্পিউটার ঢুকতে দিলেন না। ঘরে বসে বিবৃতি দেওয়া সহজ। কম্পিউটার ঢুকতে দেবেন না বলে আন্দোলন করে গেলেন। প্রাথমিকে ইংরেজি তুলে দিলেন। একের পর এক গণহত্যা হয়েছে। দমন পীড়ন কাকে বলছেন। বুদ্ধবাবু মুখ্যমন্ত্রী ও পুলিশ মন্ত্রী ছিলেন৷ এই বক্তৃতা ওনার অসম্পূর্ণ। বাস্তবের মাটি অনুভব করে কথা বলুন। জনগণের রায় থেকে উপলব্ধি আসলে ভাল।"

UJJAL ROY

Published by:Shubhagata Dey
First published:

Tags: Buddhadeb Bhattacharjee, Cpim

পরবর্তী খবর